Home / রাজনীতি / কেন্দ্রীয় বিএনপি ও স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতৃবৃন্দের সুস্থতা কামনায় রাজশাহী মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের দোয়া

কেন্দ্রীয় বিএনপি ও স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতৃবৃন্দের সুস্থতা কামনায় রাজশাহী মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের দোয়া

রাজশাহী প্রতিনিধিঃ রাজশাহী মহানগর সেচ্ছাসেবকদলের উদ্যোগে গতকাল শুক্রবার বাদ আছর দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিএনপি’র জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য মীর্জা আব্বাস, ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু, বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার অন্যতম উপদেষ্টা, সাবেক মেয়র ও সংসদ সদস্য জননেতা মিজানুর রহমান মিনু, স্বেচ্ছাসেবকদল কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদির ভূঁইয়া জুয়েল, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি এস.এম জিলানী ও ঢাকা মহানগর উত্তর সেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক কাজী রেজাওয়ানুল হোসেন রিয়াজ এবং অসুস্থ বিএনপি, স্বেচ্ছাসেবক দল, অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠনের নেতাদের সুস্থতা কামনায় এই দোয়া করা হয়।
নগরীর মালোপাড়াস্থ বিএনপি কার্যালয়ে দোয়া মাহফিলে সভাপতিত্ব করেন কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক দলের রাজশাহী বিভাগীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ও মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি জাকির হোসেন রিমন। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় নির্বাহী কমিটির ত্রাণ ও পুনর্বাসন বিষয়ক সহ-সম্পাদক ও রাজশাহী মহানগর বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট শফিকুল হক মিলন।
মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আবেদুর রেজা রিপনের সঞ্চালনায় মাহফিলে বিশেষ অতিথি ছিলেন যুবদল কেন্দ্রীয় কমিটির রাজশাহী বিভাগীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ও রাজশাহী জেলা যুবদলের সভাপতি মোজাদ্দেদ জামানী সুমন, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুল ওয়াদুদ বাবলু, সহ-সভাপতি সাইদুল ইসলাম, ওয়াদুদ, আক্তার, আনোয়ার ও রাসেল, সাংগঠনিক সম্পাদক আনন্দ কুমার মন্ডল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মীর তারেক।
এছাড়াও মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলেল যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রুহুল, শিমুল, পিটার, শুভ, সুজন, লিটন, দপ্তর সম্পাদক জজ, ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদের রাজশাহী বিভাগীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ও রাজশাহী মহানগর ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম রবি ও জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম জনিসহ মহানগর সেচ্ছাসেবক দলের সকল ওয়ার্ডের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকসহ অন্যান্য নেতাকর্মীবৃন্দ।
প্রধান অতিথি বলেন, বাংলাদেশের প্রথম প্রেসিডেন্ট, বাংলার রাখাল রাজা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান ছিলেন বাংলাদেশের উন্নয়নের রুপকার। তাঁর ছোঁয়ায় দেশে কৃষি বিপ্লব ঘটেছে। যুদ্ধ বিধস্ত দুর্ভিক্ষে পড়া দেশকে তিনি যখন সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছিলেন, দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা চাঙ্গা করে তুলছিলেন এবং দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করেছিলেন ঠিক সেই সময়ে কিছু দেশী বিদেশী চক্র ষড়যন্ত্র করে এই মহান নেতাকে হত্যা করেছিল। তারা ভেবেছিল জিয়াকে হত্যা করে বিএনপিকে নিশ্চিন্ন করে দেবে। কিন্তু জাতীয়তাবাদের বিশ্বাসী লোকজন প্রতিনিয়ত বৃদ্ধি পাচ্ছে। দেশের ৮০ভাগ লোক এখন বিএনপিকে ভাল বাসে।
মিলন আরো বলেন, বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াকে গৃহবন্দী ও বিএনপি’র ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে দেশান্তর করে রেখেছে এই সরকার। এই অবৈধ সরকারের কবল থেকে বেগম জিয়ার মুক্তি ও দেশবাসীকে রক্ষা করতে আন্দোলনের কোন বিকল্প নাই। আর এই আন্দোলনে সময়মত সকলকে রাজপথে থাকার আহবান জানান মিলন। পরে অসুস্থ বিএনপি, স্বেচ্ছাসেবক দল ও অন্যান্য নেতাকর্মীদের সুস্থতা কামনা এবং প্রয়াত নেতাদের রুহের মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।

Check Also

জয়পুরহাট আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে সভাপতি আ.লীগের, সম্পাদক বিএনপির

জয়পুরহাট প্রতিনিধিঃ জয়পুরহাট আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়েছেন বিএনপি প্যানেলের আইনজীবী প্রার্থীরা। শনিবার এ নির্বাচনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!
%d bloggers like this:

Powered by themekiller.com