Breaking News
Home / অপরাধ-আদালত / আইনজীবী বাবুসোনা হত্যা মামলার প্রধান আসামির মৃত্যু

আইনজীবী বাবুসোনা হত্যা মামলার প্রধান আসামির মৃত্যু

যমুনা নিউজ বিডি: রংপুরের বিশেষ জজ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট রথীশ চন্দ্র ভৌমিক ওরফে বাবুসোনা হত্যা মামলার প্রধান আসামি কামরুল ইসলাম মারা গেছেন। আজ শনিবার ভোর সাড়ে ৫টার দিকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ (রমেক) হাসপাতালে মারা যান তিনি।

রামেক হাসপাতালের পরিচালক ডা. অজয় রায় জানান, হাসপাতালের আনার কিছুক্ষণ পরেই কামরুল মারা যান। কি কারণে মারা গেছেন তা ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পেলে জানা যাবে।

এ বিষয়টি নিশ্চিত করে রংপুর কারাগারের জেলার আমজাদ হোসেন বলেন, বাবুসোনা হত্যা মামলার প্রধান আসামি কামরুল ইসলাম বেশ কিছুদিন থেকে ডায়াবেটিক ও হৃদরোগের সমস্যায় ভুগছিলেন। ভোরে তিনি গুরুতর অসুস্থ হলে তাকে রামেকে ভর্তি করা হয়। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। আমরা ডেড সার্টিফিকেট পেয়েছি। ময়নাতদন্ত ও অন্যান্য আনুষ্ঠানিকতা শেষে মরদেহটি পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

উল্লেখ্য, চলতি বছরের ২৯ মার্চ রাতে বাবুসোনাকে ১০টি ঘুমের ওষুধ খাইয়ে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়। এরপর তার মরদেহ তাজহাট মোল্লাপাড়ায় প্রেমিক কামরুলের ভাইয়ের নির্মাণাধীন বাড়ির ঘরের মেঝেতে পুঁতে রাখা হয়।

এ ঘটনায় ৩ এপ্রিল রাতে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বাবুসোনার স্ত্রী স্নিগ্ধা সরকার ওরফে দীপা ভৌমিককে আটক করে র‌্যাব । তিনি এ হত্যাকাণ্ডের কথা স্বীকার করেন এবং মরদেহের অবস্থান সম্পর্কে তাদের জানান। সেই সূত্র ধরে ওইদিন রাতে মোল্লাপাড়ার একটি বাড়ির মেঝে খুঁড়ে নিহত বাবুসোনার গলিত মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

বর্তমানে বাবুসোনা হত্যা মামলাটি রংপুর জেলা জজ আদালতে বিচারাধীন ছিল। এর পরিপ্রেক্ষিতে এই মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ চলছিল। মামলার অপর আসামি বাবুসোনার স্ত্রী কামরুলের প্রেমিকা স্নিগ্ধা সরকার ওরফে দীপা জেলহাজতে রয়েছেন।

Check Also

বগুড়ার শেরপুরে কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা ॥ থানায় অভিযোগ

যমুনা নিউজ বিডি: বগুড়ার শেরপুর পৌর শহরের বাসস্ট্যান্ড বাঁশপট্টি এলাকায় নাচ শেখানোর নামে কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণের …

Powered by themekiller.com