Home / সম্পাদকীয়

সম্পাদকীয়

প্রশ্ন ফাঁস রোধে জরুরি ব্যবস্থা নিন

কোনোভাবেই রোধ করা যাচ্ছে না প্রশ্ন ফাঁস। ভর্তি পরীক্ষা, নিয়োগ পরীক্ষা থেকে শুরু করে সব ধরনের পাবলিক পরীক্ষায় প্রশ্ন ফাঁসের ঘটনা ঘটছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ঐতিহ্য ও সুনাম ধুলায় মিশিয়ে দিয়েছে প্রশ্ন ফাঁসের ঘটনা। প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগে এরই মধ্যে বেশ কয়েকজনকে গ্রেপ্তারও করা হয়েছে। কিন্তু তাতেও প্রশ্ন ফাঁস রোধ করা যায়নি। সর্বশেষ প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায়ও ঘটেছে প্রশ্ন ফাঁসের ঘটনা। পরীক্ষার …

Read More »

অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিন

প্রশ্নপত্র ফাঁসের পাশাপাশি ভর্তি ও নিয়োগ পরীক্ষায় জালিয়াতির খবর সংবাদমাধ্যমে নিয়মিতই আসছে। এক মাস আগে অনুষ্ঠিত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায়ও জালিয়াতি ধরা পড়ে। এরপর সিআইডি ১৪ জনকে গ্রেপ্তার করে, যাদের ছয়জনই আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। খবরে বলা হচ্ছে, আটক সবাই ব্লুটুথ কমিউনিকেশন হ্যান্ড ডিভাইস ব্যবহার ও বিক্রিসহ জালিয়াতি প্রক্রিয়ার সঙ্গে জড়িত। গত সোমবার রাতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সেখানে …

Read More »

রোহিঙ্গা প্রশ্নে চাপে মিয়ানমার

রোহিঙ্গা সংকটের কারণে সৃষ্ট প্রবল আন্তর্জাতিক চাপের মুখে মিয়ানমারের সরকার নিজেদের অনেকটাই গুটিয়ে নিয়েছিল। কিন্তু সেই পরিস্থিতি পাল্টে দিয়েছে আসেম (এশিয়া-ইউরোপ মিটিং)-এর পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠক। মিয়ানমারের রাজধানী নেপিডোতে অনুষ্ঠিত দুই দিনের এই বৈঠকে এশিয়া ও ইউরোপের বিভিন্ন দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা অংশ নেন। পরিস্থিতিগত কারণে সেখানে রোহিঙ্গা সংকট অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হয়ে ওঠে। এশিয়া-ইউরোপের ১৫টি দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের সঙ্গে মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সেলর অং সান …

Read More »

শুল্কহ্রাসের প্রভাব নেই দামে

মাস কয়েক আগে চালের বড় সংকট দেখা দিয়েছিল। চালের দাম সাধারণের নাগালের বাইরে চলে গিয়েছিল। বন্যায় ফসলহানি ও মজুদস্বল্পতা এ সংকটের বড় কারণ। তবে ধান-চালের আড়তদারদের ভূমিকাও কম ছিল না। পরিস্থিতি সামলাতে সরকার চালের দামে লাগাম পরানোর ব্যবস্থা নেয়। চালের আমদানি শুল্ক দুই ধাপে ২৮ থেকে ২ শতাংশে নামানো হয়। এর ফলে রেকর্ড পরিমাণ চাল আমদানি হয়েছে। এখনো হচ্ছে। কিন্তু …

Read More »

রোহিঙ্গা সংকটের স্থায়ী সমাধান হোক

মিয়ানমার সেনাবাহিনী রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর ওপর যে বর্বর নির্যাতন চালিয়ে যাচ্ছে, সারা বিশ্ব তাকে চূড়ান্ত অমানবিক ঘটনা হিসেবেই দেখছে। জাতিসংঘ একে ‘জাতি নিধনের’ অপচেষ্টা হিসেবে উল্লেখ করেছে। অনেক বিশ্বনেতা সরাসরি একে গণহত্যা হিসেবে উল্লেখ করেছেন। তাই তাঁরা নির্যাতিত জনগোষ্ঠীর পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন। গতকাল রবিবার বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের অবস্থা স্বচক্ষে দেখতে কক্সবাজারে গিয়েছিলেন জাপান, জার্মানি ও সুইডেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এবং ইউরোপীয় ইউনিয়নের …

Read More »

শিক্ষার্থী ঝরে পড়ছে

শিক্ষাক্ষেত্রে আমাদের যেমন কিছু সাফল্য আছে, তেমনি ব্যর্থতাও অনেক। প্রাথমিক পর্যায়ে শতভাগ শিশু বিদ্যালয়ে এলেও ২০ শতাংশের বেশি শিক্ষার্থী প্রাথমিক শিক্ষা সমাপ্ত করতে পারে না। এরপর যারা মাধ্যমিক পর্যায়ে যায়, তাদেরও ৪০ শতাংশের বেশি শিক্ষা সমাপনের আগেই ঝরে যায়। অর্থাৎ এসএসসি পাস করার আগেই ঝরে যায় অর্ধেকেরও বেশি। সরকারি হিসাবেই এমন তথ্য পাওয়া গেছে। এটি দেশের সামগ্রিক শিক্ষাব্যবস্থার দুর্বলতাই তুলে …

Read More »

রোহিঙ্গা সংকটের সমাধান দ্রুততর হোক

রোহিঙ্গার বাংলাদেশে পালিয়ে আসা এবং মানবেতর জীবনযাপন আজ সারা দুনিয়ার মানবিক অনুভূতিকে নাড়া দিয়েছে। তারই প্রমাণ পাওয়া গেছে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের সামাজিক, মানবিক ও সংস্কৃতিবিষয়ক ফোরাম থার্ড কমিটিতে, বৃহস্পতিবার রাতে অনুষ্ঠিত ভোটাভুটিতে। সেখানে বিপুল ভোটে ১৬ দফা আহ্বানসংবলিত একটি প্রস্তাব গৃহীত হয়েছে। তাতে মিয়ানমারকে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে পরিচালিত সব ধরনের নির্যাতন-সহিংসতা অবিলম্বে বন্ধ করতে এবং বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের দ্রুত ফিরিয়ে …

Read More »

শিশু নির্যাতন থেমে নেই

একের পর এক শিশু নির্যাতনের ঘটনা ঘটেই চলেছে। কোনোভাবেই প্রতিরোধ করা যাচ্ছে না। সমাজকে নাড়িয়ে দেওয়া শিশু নির্যাতনের ঘটনায় আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী দ্রুত ব্যবস্থা নিয়ে অভিযুক্তদের আইনের হাতে সোপর্দ করেছে। কয়েকটি ঘটনায় শাস্তিও হয়েছে। কিন্তু তার পরও থেমে নেই শিশু নির্যাতনের ঘটনা। শুধু শারীরিক নির্যাতন নয়, যৌন নির্যাতনেরও শিকার হচ্ছে শিশুরা। লক্ষ্মীপুরে এক শিশুকে অপবাদ দিয়ে গাছের সঙ্গে বেঁধে মারধর …

Read More »

সব পক্ষের আন্তরিকতা দরকার

দশম জাতীয় সংসদের প্রথম অধিবেশন বসেছিল ২০১৪ সালের ২৯ জানুয়ারি। সংবিধান অনুযায়ী মেয়াদ শেষ হওয়ার পূর্ববর্তী ৯০ দিনের মধ্যে পরবর্তী সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠানের বাধ্যবাধকতা রয়েছে। তাই একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ২০১৯ সালের ২৯ জানুয়ারির মধ্যে করতে হবে। নির্বাচন কমিশনের হাতে বছরখানেক সময় আছে। রাজনৈতিক দলগুলো, বিশেষ করে বড় দলগুলো নির্বাচনী প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে। সম্ভাব্য প্রার্থীরা তৎপরতা শুরু করেছেন নিজ …

Read More »

বোর্ডের কাজে স্বচ্ছতা দরকার

জোট সরকারের সময় প্রাথমিক ও মাধ্যমিক শিক্ষায় নৈরাজ্যকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছিল। ফল প্রকাশে বিলম্ব, বছরের অর্ধেক সময় পার হয়ে যাওয়ার পরও পাঠ্য বই না পাওয়া, পাঠ ও পরীক্ষা পদ্ধতি সম্পর্কে দিকনির্দেশনা না থাকা প্রভৃতি কারণে ওই পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল। ২০০৯ সালে মহাজোট সরকার ক্ষমতায় গিয়ে এ দশার অবসান ঘটানোর উদ্যোগ নেয়। তাতে ফলও পাওয়া গেছে। শিক্ষার মান নিয়ে প্রশ্ন থাকার …

Read More »

Powered by themekiller.com