July 12, 2024, 7:56 pm

নির্বাচনে যাচ্ছে ইসলামী ঐক্যজোট

যমুনা নিউজ বিডি: আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে মুফতি ফজলুল হক আমিনীর নেতৃত্বাধীন ইসলামী ঐক্যজোট। এই দলটি ২০০১ সালে বিএনপির নেতৃত্বাধীন চারদলীয় ঐক্যজোটের রাজনীতির সঙ্গে যুগপৎ আন্দোলন করেছে এবং ক্ষমতার সাধ নিয়েছিল।

সোমবার (২০ নভেম্বর) বিকালে জাতীয় প্রেস ক্লাবের জহুর হোসেন চৌধুরী হলে সংবাদ সম্মেলনে এমন সিদ্ধান্তের কথা জানায় দলটি।

সংবাদ সম্মেলনে ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান মাওলানা আবুল হাসানাত আমিনী বলেন, ইসলামী ঐক্যজোট দেশের স্বাধীনতায় বিশ্বাসী। তাই সব ধরনের হস্তক্ষেপ মুক্ত জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠান এদেশের সর্বস্তরের জনগণের প্রাণের দাবি। এর বাইরে গিয়ে কোনো নির্বাচন এ দেশের জনগণ মেনে নেবে না। সেজন্য হস্তক্ষেপ মুক্ত একটি সুষ্ঠু, অবাধ, নিরপেক্ষ ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন অনুষ্ঠান দেশের জনগণের প্রাণের দাবি।

একই অনুষ্ঠানে দলটির মহাসচিব মুফতি ফয়জুল্লাহ বলেন, ইসলামী ঐক্যজোট মুফতি ফজলুল হক আমিনীর চেতনা লালন করে সবসময় স্বাধীনভাবে দেশ ও ইসলামের স্বার্থে নিজস্ব সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে থাকে। কারও অন্ধ অনুসরণ ও লেজুড়বৃত্তিতে ইসলামী ঐক্যজোট বিশ্বাসী নয়। দেশ-জাতি, ইসলাম ও মুসলিম উম্মাহর স্বার্থে যা কল্যাণকর মনে করে ইসলামী ঐক্যজোট তাই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে।

কোনো সময় বিনা চ্যালেঞ্জে ফাঁকা ময়দানে গোল দেওয়ার সুযোগ কাউকেই দেয়নি দাবি করে তিনি আরও বলেন, আমরা সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে সংলাপে অংশ নিয়েছি। তারা প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন করার। তাই ইসলামী ঐক্যজোটের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন— ইসলামী ঐক্যজোটের যুগ্ম মহাসচিব আলতাফ হোসাইন, মাওলানা আবুল কাশেম, সাংগঠনিক সচিব মাওলানা ফারুক আহমেদসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা।

প্রসঙ্গত, বিএনপির নেতৃত্বাধীন চারদলীয় ঐক্যজোটের রাজনীতিতে ইসলামী ঐক্যজোট দীর্ঘদিন আন্দোলন করেছে এবং ক্ষমতার সাধ নিয়েছে। প্রতিষ্ঠাতা মুফতি ফজলুল হক আমিনীর মৃত্যুর পর মাওলানা আবদুল লতিফ নেজামী দায়িত্ব নেন। ২০২০ সালের ১১ মে ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান মাওলানা আবদুল লতিফ নেজামী ইফতারের পর মাগরিবের নামাজের অজু করতে গিয়ে আকস্মিক পড়ে গিয়ে জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। পরে পরিবারের সদস্যরা তাকে কাকরাইল ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালে নিয়ে গেলে রাত সাড়ে ৮টায় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এর পরই মুফতি ফজলুল হক আমিনীর ছেলে মাওলানা আবুল হাসানাত আমিনী ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান হন।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © jamunanewsbd.com
Design, Developed & Hosted BY ALL IT BD