মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১, ০৫:২২ পূর্বাহ্ন

বগুড়া ধুনট- গোসাইবাড়ী রাস্তাটির বেহাল দশা ভোগান্তি চরমে

মোঃ হেলাল উদ্দিন সরকার ধুনট বগুড়াঃ বগুড়া জেলা ধুনট উপজেলার গোসাইবাড়ী ইউনিয়নের সাতমাথা এলাকার সপ্ত মুখী রাস্তা চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পরেছে, চারিদিক খানাখন্দরে ভরা – একটু বৃষ্টিতেই জমে যায় হাটু পরিমান পানিতে। পানিজমা হয়ে গর্ত ও জলাবদ্ধতা এমন সৃষ্টি হয় যেনো মরণফাঁদে পরিনত হয়। এঅবস্থা বেশ বছরের পর বছর হয়ে আসছে। দেখার বা এঅবস্থা থেকে পরিত্রান দিতে যেনো কেউ নেই। রাস্তার এই বেহাল অবস্থায় ঘটছে একের পর এক দুর্ঘটনা। বিশেষ করে এতে দুর্ভোগের বেশী শিকার হচ্ছে সিএনজি-অটোরিকশা, ভ্যান, স্কুল কলেজগামী ছাত্রছাত্রী সহ ছোট বড় পরিবহন চালক ও চলাচলকারি যাত্রীরা।
সরোজমিনে গিয়ে দেখা যায়, গোসাইবাড়ী ইউনিয়নের সাতমাথা হইতে চুনিয়াপাড়া গ্রামের শেষ পর্যন্ত সড়কে একাধিক স্থানে বৃষ্টির পানিতে জলাবদ্ধতায় সড়কে হাটু পানি ও কাদায় পরিনত হয়েছে, এতে চরম দুর্ভোগের শিকার হচ্ছে চলাচলকারি ব্যাটারী চালিত অটোরিকশা ও সিএনজি চালক ও এলাকাবাসী। এ রাস্তা টি দিয়ে চলাচল করে প্রায় পাঁচটি ইউনিয়নের প্রায় লক্ষাধীক মানুষ। রাস্তাটি দিয়ে সিএনজি ,অটোরিক্সা ও ভ্যান ছাড়াও যাএীবাহী দূরপাল্লার যানবাহন চলাচল করে।বর্ষায় রাস্তার গর্তে পানি জমে ও হাটু কাদায় পরিনত হলে এসব যানবাহন চলাচল করতে পারে না। দ্রুত রাস্তাটি মেরামত করনের দাবি জানিয়েছেন এলাকাবাসী। রাস্তায় জলা বদ্ধতায় হাঁটু পানি ও কাঁদায় পরিনত হয়ে আসা-যাওয়া সিএনজি ,অটোরিক্সা সহ বিভিন্ন ধরনের ছোট পরিবহন ও চলাচলকারী নারী-পুরুষ যাত্রীদের পরিধেয় পোষাক নষ্ট হচ্ছে ।কখনো অটোরিকশা উল্টিয়ে ঘটছে ছোট বড় দুর্ঘটনা। প্রতিনিয়ত ক্ষতির শিকার হচ্ছে অটো চালকরা। রাস্তায় জলাবদ্ধতা ও হাটুকাদায় পরিনত হওয়ায় গাড়ি নষ্ট হচ্ছে দ্রুত সময়ে। অটোরিকশা চালকসহ এলাকাবাসীর দাবি দ্রুত সময়ে রাস্তার এই হাটু কাঁদা ও খানা-খন্দ রাস্তাটি মেরামতের। অটোভ্যান চালক মোঃ উজ্জল মিয়া বলেন, রাস্তার এ বেহাল দশার কারণে এখন অনেকেই এ পথে চলাচলের সময়ে আতংকের মধ্যে থাকেন। এ বিষয়ে সরকারের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেন তিনি। এছাড়াও রাস্তাটি দিয়ে সরকারি বেসরকারি মিলে প্রায় পাঁচ থেকে ৬ টি প্রাথমিক বিদ্যালয় সহ দুই থেকে তিনটি হাইস্কুল ও মাদ্রাসা ও কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থীরা যাতায়াত করে। কিন্তু বর্ষা মৌসুমে রাস্তাটিতে হাটুকাদা ও জলাবদ্ধতা সৃষ্টির কারনে গাড়ি না চলাচল করায়, সময় মত স্কুলে যেতে পারে না শিক্ষার্থীরা। দীর্ঘ সময় পার হলেও গ্রামীণ এই অবহেলিত মরণফাঁদ রাস্তাটির দিকে খেয়াল নেই সংশ্লিষ্ট কারোরই।
গোসাইবাড়ী এলাকার বাসিন্দা মোঃহেলাল মিয়া জানান,বর্ষামৌসুমে আমাদের এই রাস্তা হাটু কাদায় পরিনত হয় রাস্তা টি দিয়ে স্কুল পড়ুয়া ছাএ ছাএী সহ চার পাঁচটি ইউনিয়নের মানুষ যাতায়াত করেন রাস্তা টি মেরামত করা অতি জরুরি বলে মনে করি। রাস্তা টি দ্রুত মেরামত না করায় চার থেকে পাঁচটি ইউনিয়নের কৃষক – রা কৃষিপণ্য হাট বাজারে নিতে পারছেন না। তাই এই অবহেলিত গ্রামের বসবাসকারী মানুষের কথা চিন্তা করে রাস্তা টি দ্রুত মেরামত এর দাবি জানায় সকলে। শুধু তাই নয় ধুনট গোসাইবাড়ী রাস্তার কার্পেটিং এর অবস্থা আরোও করুণ। বছর যেতে না যেতে রাস্তার কার্পেটিং উঠে যাচ্ছে। ধুনটের সদর পাড়া জামাল ( হোটেল জামাল) এর বাড়ির সামনের অবস্থা দেখলে এর সত্যতা মেলে।

Please Share This Post in Your Social Media


© All rights reserved ©  jamunanewsbd.com