বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ০৬:২৯ পূর্বাহ্ন

News Headline :
মিলনের সুস্থতা কামনা করে বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের বিবৃতি বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি দাবীতে বগুড়ার কাগইলে মশাল মিছিল বুড়িচংয়ে এক ইউনিভার্সিটির ছাত্রের গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা  সকল নেতাকর্মীর দলীয় সিদ্ধান্ত মেনে চলা উচিত- মজিবর রহমান মজনু বগুড়া আ. হক কলেজের শিক্ষক পরিষদের নির্বাচনে জয়ী হলেন যারা নন্দীগ্রামে এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা উপলক্ষে প্রস্তুতিমূলক সভা বগুড়া জেলা মোটর মালিক গ্রুপের ৭শ’ সদস্যর মাঝে আর্থিক অনুদান প্রদান বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ সভাপতি রফিক ভূঁইয়ার স্মরণ সভা প্রথম স্থান অর্জন গম ও ভুট্টা গবেষণা ইনস্টিটিউটের কাল থেকে পলিথিনমুক্ত হচ্ছে চট্টগ্রামের তিন কাঁচাবাজার

আফগানিস্তানে মসজিদে হামলায় নিহত বেড়ে ৪৭, আইএসের দায় স্বীকার

যমুনা নিউজ বিডিঃ আফগানিস্তানের দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর কান্দাহারে একটি শিয়া মসজিদে বোমা হামলার ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৪৭ জনে দাঁড়িয়েছে। আহত হয়েছেন আরো অন্তত ৭০ জন।

শুক্রবারের (১৫ অক্টোবর) এ হামলার দায় স্বীকার করেছে জঙ্গিগোষ্ঠী আইএসের আফগান শাখা (আইএস-কে)। খবর আল জাজিরার।

শুক্রবার কান্দাহারের বিবি ফাতিমা মসজিদে একাধিক বিস্ফোরণ ঘটে। এটি ওই এলাকায় শিয়া মুসলিমদের সবচেয়ে বড় মসজিদ। তালেবানের সংস্কৃতি ও তথ্য বিভাগের কান্দাহার শাখার প্রধান হাফিজ সায়িদ হতাহতদের সংখ্যা নিশ্চিত করেছেন। আফগান স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র কারি সায়িদ খোসতি টুইটারে বলেছেন, কান্দাহারে শিয়াদের একটি মসজিদে বিস্ফোরণ ঘটেছে জেনে আমরা খুবই দুঃখিত। সেখানে আমাদের বেশ কয়েকজন স্বদেশী শহীদ ও আহত হয়েছেন। তিনি আরো বলেন, তালেবানের বিশেষ বাহিনী ওই এলাকায় পৌঁছেছে। দুষ্কৃতদের অবশ্যই বিচারের আওতায় আনা হবে। হামলার কয়েক ঘণ্টা পরেই এর দায় স্বীকার করে বিবৃতি দিয়েছে আইএসের খোরাসান শাখা (আইএস-কে)। তারা জানিয়েছে, আইএসের আত্মঘাতী হামলাকারীরা এ ঘটনা ঘটিয়েছে। বিবৃতিতে বলা হয়েছে, প্রথমজন মসজিদের বারান্দায় আর দ্বিতীয়জন তার বিস্ফোরক ভেস্ট মসজিদের ভেতরে বিস্ফোরণ ঘটায়। মাত্র এক সপ্তাহ আগে আফগানিস্তানের উত্তরাঞ্চলীয় শহর কুন্দুজের একটি মসজিদেও একই ধরনের হামলা চালিয়েছিল আইএস-কে। এতেও প্রায় অর্ধশত নিহত ও শতাধিক আহত হন। শুক্রবারের হামলার এক প্রত্যক্ষদর্শী বার্তা সংস্থা এএফপি’কে জানিয়েছেন, তিনি তিনটি বিস্ফোরণের শব্দ শুনেছেন। একটি মসজিদের মূল দরজায়, একটি দক্ষিণ অংশে ও তৃতীয়টি অজুখানার দিকে।

মুর্তজা নামে এক আরেক প্রত্যক্ষদর্শী অবশ্য বলেছেন, চারজন আত্মঘাতী হামলাকারী এ ঘটনায় অংশ নিয়েছিল। দুজন মসজিদের গেটে বিস্ফোরণ ঘটায়। এরপর বাকি দুজন দৌঁড়ে ভেতরে গিয়ে মুসল্লিদের ভিড়ের মধ্যে বিস্ফোরণ ঘটায়। ওই প্রত্যক্ষদর্শী বার্তা সংস্থা এপি’কে জানিয়েছেন, জুমার নামাজে মসজিদটিতে সাধারণত ৫০০ জনের মতো মুসল্লি হাজির থাকেন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ছবিতে মসজিদের ভেতর অনেক লোককে আপাতদৃষ্টিতে মৃত অথবা রক্তাক্ত শরীরে পড়ে থাকতে দেখা যায়। হাসপাতাল সূত্রগুলো আল জাজিরাকে জানিয়েছে, বিস্ফোরণে বহু মানুষ আহত হয়েছেন। আহতদের অবস্থা দেখে আশঙ্কা করা হচ্ছে, মৃতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে।

Please Share This Post in Your Social Media


© All rights reserved ©  jamunanewsbd.com