সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:০৭ পূর্বাহ্ন

বাঙালি জাতিকে স্বাধীনতা অর্জনের চূড়ান্ত আত্মত্যাগে দীক্ষিত করে তুলেছিলেন বঙ্গবন্ধু:মজনু

বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মজিবর রহমান মজনু বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তার সব অনুভূতি, ত্যাগ, সংগ্রাম, বীরত্বপূর্ণ নেতৃত্ব, অদম্য স্পৃহা, দৃঢ় প্রত্যয়, বাঙালি জাতির প্রতি গভীর ভালোবাসা, মমত্ববোধ, রাজনৈতিক দূরদর্শিতা ও আদর্শের দ্বারা সমগ্র বাঙালি জাতিকে উজ্জীবিত করে স্বাধীনতা অর্জনের চূড়ান্ত আত্মত্যাগে দীক্ষিত করে তুলেছিলেন।

বঙ্গবন্ধুকে দৈহিকভাবে হত্যা করা হলেও তার মৃত্যু নেই। তিনি চিরঞ্জীব। একটি জাতিরাষ্ট্রের স্বপ্নদ্রষ্টা এবং স্থপতি তিনিই। যতদিন এ রাষ্ট্র থাকবে, ততদিন অমর তিনি।

জাতীয় শোক দিবস, ১৭ আগস্ট সিরিজ বোমা হামলা ও ২১ আগস্টে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার উদ্দেশ্যে গ্রেনেড হামলায় নিহতদের স্মরনে বগুড়া জেলা তাঁতী লীগের উদ্যোগে গতকাল বুধবার বিকেলে দলীয় কার্যালয়ে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, ১৯৭৫ সালের এই দিনে মানবতার শত্রæ প্রতিক্রিয়াশীল ঘাতকচক্রের হাতে বাঙালি জাতির মুক্তি আন্দোলনের মহানায়ক, বিশ্বের লাঞ্ছিত-বঞ্চিত-নিপীড়িত মানুষের মহান নেতা, বাংলা ও বাঙালির হাজার বছরের আরাধ্য পুরুষ, বাঙালির নিরন্তন প্রেরণার চিরন্তন উৎস, স্বাধীন বাংলাদেশ রাষ্ট্রের স্থপতি, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যা করা হয়।

সেদিন ইতিহাসের নিষ্ঠুরতম এই হত্যাকাÐে বঙ্গবন্ধুর সহধর্মিণী, মহিয়সী নারী বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিবসহ হত্যা করা হয়েছে আরো অনেককে। মানব সভ্যতার ইতিহাসে ঘৃণ্য ও নৃশংসতম হত্যাকাÐের কালিমালিপ্ত বেদনাবিধূঁর ছিল সেদিন।

মজনু বলেন, বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে গঠিত সরকার বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারীদের বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়ে নিয়মতান্ত্রিক বিচারিক প্রক্রিয়ার মাধ্যমে ২০১০ সালে ঘাতকদের ফাঁসির রায় কার্যকর করার মধ্য দিয়ে বাঙালি জাতিকে কলঙ্কমুক্ত করে। বঙ্গবন্ধু বলেছিলেন, বাংলার মাটিতে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার হবেই। বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা সকল ষড়যন্ত্রকে উপেক্ষা করে নানা প্রতিক‚লতার মুখোমুখি হয়েও ঘৃণ্য যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের প্রক্রিয়া শুরু করেন।

বাঙালি জাতির অস্থিমজ্জায় মিশে আছেন বাঙালির অবিসংবাদিত নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।

জেলা তাঁতী লীগের সভাপতি নুরুজ্জামান সোহেলের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক রাশেকুজ্জামান রাজনের সঞ্চালনায় এতে প্রধান বক্তা ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রাগেবুল আহসান রিপু, বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আছাদুর রহমান দুলু, দপ্তর সম্পাদক আল রাজি জুয়েল।

এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক ডালিয়া নাসরিন রিক্তা, জেলা তাঁতী লীগের সহ-সভাপতি নাজমুল হক সজীব, সাব্বির হোসেন সবুজ, আল আমিন সরকার, শামীম হোসেন, মহিদুল ইসলাম, ওবায়দুর রহমান রাব্বি, আপেল মল্লিক, ইব্রাহীম সেলিম, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি গোলাম হোসেন, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতা রাশেদুল আলম শাওন, জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি আরিফুল আলম শাওন, জেলা তাঁতী লীগ নেতা মামুনুর রশিদ মামুন, লুৎফর রহমান, রিপন, আলামিন হোসেন সুমন, মাহমুদুল হাসান রনি, শহর স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা মোতাহার হোসেন মিজু, তাঁতী লীগ নেতা শাহিন ফকির, বাবু কবিরাজ, ফেরদাউস, আলামিন, তারেক, আহসান, সুমন, মুক্তার, ছাত্রলীগ নেতা সঞ্জয়, সজীব সাহা, আসিফ শেখ প্রমুখ।

শেষে শোকাবহ আগস্টে বঙ্গবন্ধুসহ যারা শহীদ হয়েছেন তাদের স্মরণে বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।-খবর বিজ্ঞপ্তী

Please Share This Post in Your Social Media


© All rights reserved ©  jamunanewsbd.com