মঙ্গলবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২২, ০৮:১৭ অপরাহ্ন

বগুড়ায় ছাত্রফ্রন্টের প্রতীকী ক্লাস

ষ্টাফ রিপোর্টারঃ ‘অনলাইন নয়, রাজপথই হোক ক্লাস। বিশেষ ব্যবস্থায় টিকা দিয়ে অবিলম্বে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দাও।’ এই স্লোগানে রোববার (২২ আগস্ট) বেলা ১২টার দিকে বগুড়া শহরের সাতসাথায় ক্লাস কর্মসূচি পালন করেছে সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট জেলা শাখা।

কর্মসূচিতে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন ছাত্রফ্রন্ট জেলা কাউন্সিল প্রস্তুতির আহ্বায়ক নিয়তি সরকার নিতু। সঞ্চালনা করেন জেলা কাউন্সিল প্রস্তুতি কমিটির সদস্য সচিব সাইফুল ইসলাম সৌরভ।  প্রতিবাদী ক্লাস নেন বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল – বাসদ জেলা সদস্য সচিব সাইফুজ্জামান টুটুল।

প্রতিবাদী ক্লাসে নেতৃবৃন্দ বলেন, দেশের সব শিল্পকারখানা চলছে, ব্যবসা, দোকান, বাস, লঞ্চ  চলাচল করছে কিন্তু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রায় ২ বছর থেকে বন্ধ রয়েছে। শিক্ষা জীবন থেকে অসংখ্য শিক্ষার্থী ঝরে পড়ছে। শিক্ষার্থীদের মনোযোগ বইয়ের পাতায় নেই, কিশোর গ্যাং, পাবজি, ফ্রী ফায়ার গেইমে যুক্ত । অসংখ্য শিক্ষার্থী তাদের চাকরির বয়স হারিয়েছে। শিক্ষাজীবন হতাশাগ্রস্ত হয়ে পড়েছে। বাল্য বিবাহ বেড়েছে। ফলে ভবিষ্যত জাতি অন্ধকারময়।

বক্তারা জানান, নাম মাত্র আয়োজন ছাড়াই অনলাইনে ক্লাসের ঘোষণা দিলেও সেখানে  উপস্থিতির সংখ্যা খুব কম। শিক্ষকদের ক্লাস করানোর কোনো প্রশিক্ষণ ব্যবস্থা নেই। সেই সাথে অধিকাংশ শিক্ষার্থী মোবাইল ফোন, এমবি, নেটওয়ার্ক সমস্যায় অনলাইন ক্লাসের বাইরে অবস্থান করছে। স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় যখন বন্ধ, জীবন নির্বাহ যখন হুমকির মুখে তখনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে  বেতন ফি নেয়া বন্ধ হয়নি। এক্ষেত্রে  সরকারি আর্থিক কোনো প্রণোদনা চোখে পড়েনি। ফলে শিক্ষা জীবন ও শিক্ষার্থী পরিবার আজ  দুর্দিনে কাটছে।

নেতৃবৃন্দ বলেন, দক্ষিণ এশিয়ার সবগুলো দেশে নানা পদ্ধতিতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দিলেও মাত্র ১৪টি দেশের মধ্যে সবথেকে বেশি পিছিয়ে এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ আছে বাংলাদেশে।

এসব সমস্যার কথা উল্লেখ করে বক্তারা বিশেষ ব্যবস্থায় টিকা দিয়ে অবিলম্বে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার জোর দাবি জানান।

Please Share This Post in Your Social Media


© All rights reserved ©  jamunanewsbd.com