বুধবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২২, ০৭:৪৫ অপরাহ্ন

ষড়যন্ত্র মোকাবেলায় নেতাকর্মীদের প্রস্তুত থাকতে হবে- মজনু

ষ্টাফ রিপোর্টারঃ   বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মজিবর রহমান মজনু বলেছেন, শোককে শক্তিতে রুপান্তরিত করে সকল ষড়যন্ত্র মোকাবেলায় স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতৃকর্মীদের প্রস্তুত থাকতে হবে।

মঙ্গলবার বেলা ১১টায় দলীয় কার্যালয়ে জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ আয়োজিত ১৫ আগষ্ট, ১৭ আগষ্ট ও ২১ আগষ্টের হামলাগুলো একই সূত্রে গাঁথা শীর্ষক সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভায় তিনি একথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট ভোর রাতে রাজধানী ঢাকায় সংঘটিত হয়েছিল ইতিহাসের এক কলঙ্কিত অধ্যায়। এদিন স্বাধীন বাংলাদেশের স্বপ্নদ্রষ্টা বঙ্গবন্ধু  ও তাঁর পরিবারকে হত্যা করেছিল ক্ষমতালোভী নরপিশাচ কুচক্রী মহল।

মজনু বলেন, বাঙালির মহান নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান চিরঞ্জীব, তার চেতনা অবিনশ্বর। মুজিব আদর্শে শানিত বাংলার আকাশ-বাতাস, জল-সমতল। প্রজন্ম থেকে প্রজন্মের কাছে শেখ মুজিবুর রহমানের অবিনাশী চেতনা ও আদর্শ চির প্রবহমান থাকবে। জাতির পিতা চেয়েছিলেন ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত বৈষম্যহীন সমাজ প্রতিষ্ঠা করতে। বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশের জনগণের মুক্তির যে স্বপ্ন দেখেছিলেন, তার সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে ক্ষুধা ও দারিদ্র্যকে জয় করে বিশ্বসভায় একটি উন্নয়নশীল, মর্যাদাবান জাতি হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে বাংলাদেশ। সারা বিশ্বে বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের রোল মডেল। বাঙালি জাতি কৃতজ্ঞচিত্তে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ‘মুজিববর্ষ’ পালন করছে।

তিনি আরো বলেন, দেশে উগ্রবাদী, মৌলবাদী, বিপদগামী সন্ত্রাসীরা ক্ষান্ত হয়নি। ২০০৫ সালে ১৭ আগষ্ট সারা বাংলাদেশে ৬৩ জেলায় একযোগে সিরিজ বোমা হামলা করে সন্ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করতে চেয়েছিল। পরবর্তীতে দেশরত্ন বিশ্ব মানবতার মা শেখ হাসিনা সরকার ক্ষমতায় এসে বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার কার্যক্রমের কাজ সম্পন্ন করেন।

সংগঠনের জেলা শাখার সভাপতি ভিপি সাজেদুর রহমান সাহীনের সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক মো. জুলফিকার রহমান শান্তর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রাগেবুল আহসান রিপু, প্রধান আলোচক ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি ম. আব্দুর রাজ্জাক, বিশেষ অতিথি ছিলেন স্বেচ্ছাসেবক লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মো. মেহেদী হাসান রবিন।

আরো উপস্থিত ছিলেন জেলা শাখার সহ-সভাপতি এ.কে.এম এনামুল বারী টুটুল, প্রভাষক মনিরুজ্জামান মনির, মামুনুর রশিদ মামুন, গোলাম হোসেন, কোয়েল ইসলাম, মো. আলী সিদ্দীক, শাহীন আলম, নাইমুর রজ্জাক তিতাস, মহিদুল ইসলাম, নাজমুল কাদির শিপন, নুরুল আমিন শিশির, বনি ছদর খুররম, নুরুন্নবী সরকার, সুলতান মন্ডল সজল, মশিউর রহমান মামুন, আব্দুল্লাহ আল নোমান, সিরাজুল ইসলাম রতন, এনামুল হক, রাদ সিদ্দীকী রনি, খালেকুন্নাহার পলি, রশ্নি স্বর্ণা, রাগিবুল ইসলাম রাজু, এ্যাডভোকেট ফাহিম, মামুনুর রশিদ মামুন, সুলতান মাহমুদ প্রিন্স, গোলাম মুক্তাদির লেমন, আব্দুল ওয়াদুদ পাপ্পু, মিনহাজ, প্রভাষক রাজু, প্রভাষক মামুন, রাশেদ ইসলাম, সোহানুল ইসলাম সোহান, বিজয় শেখ, মো. রয়েল, জিম, শিবলু, সুজন খলিফা, শহর স্বেচ্ছাসেবক লীগ দক্ষিণ শাখার সাবেক সভাপতি নাসিমুল বারী নাসিম, উত্তর শাখার সাবেক সভাপতি মশিউর রহমান মন্টি, লিটন শেখ প্রমুখ।

সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভা শেষে দোয়া মাহফিলে বঙ্গবন্ধুসহ তাঁর পরিবারের এবং আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের মৃত্যুবরণকারী সকল নেতাকর্মীর রুহের মাগফেরাত কামনা করা হয়। একই সঙ্গে দেশ ও জাতির কল্যাণ কামনা করে বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।

Please Share This Post in Your Social Media


© All rights reserved ©  jamunanewsbd.com