শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:৪৮ পূর্বাহ্ন

বুড়িচংয়ে ভূমি দস্যু আমজাদ ডিলারকে ১ লাখ টাকা জরিমানা

 বুড়িচং (কুমিল্লা) প্রতিনিধিঃ  কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার বাকশীমুল ইউনিয়নে বিভিন্ন ফসলি জমি থেকে অবৈধভাবে ড্রেজার দিয়ে মাটি ও বালু উত্তোলন দায়ে  আজ্ঞাপুর গ্রামের ভূমিদস্যু আমজাদ ডিলারকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ৫০ হাজার টাকা করে দুই বারে এক লাখ টাকা  জরিমানা করে উপজেলার নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সহকারী কমিশনার (ভূমি) শারমিন আক্তার।
রোববার সকালে প্রতিনিধিকে বিষয়টি নিশ্চিত করে বাকশীমূল ইউনিয়নের ভূমি অফিস।
জানা যায়,দির্ঘদিন দিন ড্রেজার মেশিন দিয়ে মাটি ও বালু উত্তোলনের অভিযোগে ৭ আগষ্ট শনিবার বিকেলে উপজেলার নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সহকারী কমিশনার (ভূমি) শারমিন আক্তারের নেতৃত্বে তদন্ত সাপেক্ষে সরেজমিনে এসে
 তাকে আটক করে এবং ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে আমজাদ ডিলারকে ৫০ হাজার টাকা  জরিমানা করা হয়।
সহকারী কমিশনার ( ভূমি) অফিসের নাজির  এম জাহিদ হাসান জানান গত দুই পূর্বে একই অভিযোগে আমজাদ হোসেন ডিলারকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।
 স্থানীয় সূত্রে জানা যায়,আমজাদ ডিলার এর ছোবলে বাকশীমুল ইউনিয়ন আজ্ঞাপুর, কালিকাপুর ও রাজাপুরেরসহ বিভিন্ন এলাকার ফসলি জমি থেকে দীর্ঘদিন ধরে ফসলি জমি থেকে মাটি ও বালু উত্তোলন করে বিক্রি করে আসছিলো যার কারণে উক্ত জমির আশেপাশে জমিগুলো  ব্যাপক ক্ষয় ক্ষতি হচ্ছে। জমি আর জমি নেই। জমির নিচ থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে সকল বালু মাটি। সাধারণ কৃষকে ভয় ভীতি দেখিয়ে পুরো কৃষি জমি নষ্ট করে ফেলেছে।কয়েক দফায় এ নিয়ে এলাকার কৃষকগণ প্রশাসনের সহায়তায় চেয়ে আসছে।
একাধিক অভিযোগ থাকায় এর আগেও আরো একবার তাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করার পরেও তিনি মাটি কাটা বন্ধ করেনি।
 এসব জরিমানা আমজাদ ডিলারের কাছে মোটেই কোনো বিষয় না বলে স্থানীয়রা জানান। আবার শুরু করে দেয় এবং (ভেকু) দিয়ে ফসলি জমির মাটি কাটা,ডিপ টিউবওয়েলের মতো বর্ডিং করে মাটির নিচ থেকে বালি তোলা শুরু করে দেয়।
এ বিষয়ে আমজাদ ডিলার এর সাথে যোগাযোগ করলে তিনি জরিমানা বিষয়ে কথা বলতে নারাজ। তবে এক পর্যায়ে স্বীকার করেন যে তাকে পূর্বের ন্যায় ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।
এছাড়া বুড়িচং উপজেলার মোকাম ইউনিয়ন এর কোরপাই, আবিদপুর,শিকারপুর গ্রামের মৃত মফিজ মিয়ার ছেলে খোরশেদ আলম, ভারেল্লা দক্ষিণ ইউনিয়ন পরিষদ এর পশ্চিম পাশে অহিদুর রহমান , পীর যাত্রাপুর ইউনিয়ন এর উত্তর শ্যামপুর গ্রামের আরও এক কথিত ভূমি দস্যু মনির হোসেন মনু তার ছেলে সুমন মিয়া দীর্ঘ কয়েক বছর ধরে প্রশাসনকে তোয়াক্কা না করে মাসের পর মাস অবৈধ ভাবে ফসলি জমি থেকে মাটি ও বালু উত্তোলন করে আসছে। এলাকার কৃষক ও সাধারণ মানুষ তার হুমকি ধুমকি এবং মিথ্যা মামলার দিয়ে ফাসানোর ভয়ে প্রতিবাদ করছে না।মনির হোসেন মনু তার ছেলে সুমন মিয়া একটি সংঘবদ্ধ চক্র মিলে  উত্তর শ্যামপুর – দক্ষিণ শ্যামপুর, সাদকপুর, জগতপুর, চন্ডিপুর, মালাপাড়া, মনোহরপুর, বৃষ্টি পুর, জিরুইন, টাকুই, আছাদনগর সহ বিভিন্ন গ্রামে এভাবে দেদারসে মাটিকাটা বালু উত্তোলন অব্যহৃত রেখেছে।
এ বিষয়ে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) সারমিন আক্তার বলেন আমজাদ ডিলার কে অবৈধ ভাবে ডেজার মেশিন দিয়ে মাটি কাটার অপরাধে  জরিমানা করা হয়েছে ৫০ হাজার টাকা। এছাড়া দক্ষিণ শ্যামপুর গ্রামের মনির হোসেন মনু ও তার ছেলে সুমন মিয়া সহ পুরো উপজেলায় যারা এ ধরনের অবৈধ কাজের সঙ্গে জড়িত রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে আইন গত ব্যবস্থা নেয়া হবে

Please Share This Post in Your Social Media


© All rights reserved ©  jamunanewsbd.com