সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:০৭ পূর্বাহ্ন

মাংসের টক-ঝাল-মিষ্টি আচার

যমুনা নিউজ বিডিঃ আচার খেতে পছন্দ করেন না এমন মানুষ খুব কমই আছে। খিচুড়ি কিংবা পোলাও এর সঙ্গে আচার বেশ ভালো মানিয়ে যায়। এছাড়া কেউ কেউ এমনিতেই আচার খেতে ভালোবাসেন। আম, জলপাই, চালতা, বরই, তেঁতুল ইত্যাদি আরো কত কিছু দিয়েই তৈরি করা হয় সুস্বাদু আচার। তবে কখনো কি মাংসের আচার খেয়েছেন?

খুবই সুস্বাদু এই আচার মুহূর্তেই আপনার জিভে জল এনে দেবে। কোরবানি ঈদের পর এখন সবার ঘরেই কমবেশি মাংস আছে। চাইলে এ সময় মাংসের টক-ঝাল-মিষ্টি আচার বানিয়ে রেখে দিতে পারেন বছরজুড়ে। এজন্য ব্যবহার করতে পারেন গরু, খাসি বা মুরগির মাংস। খুব সহজেই তৈরি করে নিতে পারবেন মজাদার এই আচার। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক কোনো রকম ঝামেলা ছাড়াই কীভাবে তৈরি করবেন মাংসের টক-ঝাল-মিষ্টি আচার-

উপকরণ: হাড় ছাড়া মাংস ১ কেজি (গরু, খাসি বা মুরগি), আদা বাটা ২৫ গ্রাম, রসুন বাটা ২৫ গ্রাম, সরিষার তেল ১ লিটার, শুকনা মরিচের গুঁড়া ১০০ গ্রাম, লবণ ১ টেবিল চামচ, ভেজে নেওয়া মেথি গুঁড়া ১ চা চামচ, লেবু ১০টি, রসুনের কোয়া থেঁতলে নেয়া ১০টি ও চিনি স্বাদমতো।

প্রণালী: প্রথমে মাংস ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে নিন। দেখবেন যেন একটুও পানি না থাকে। এবার এক ইঞ্চি কিউব করে মাংস কেটে নিন। এরপর মাংসে আদা-রসুন বাটা ও লবণ দিয়ে মাখিয়ে একটা চিনা মাটির পাত্রে ঢেকে রাখুন আধা ঘণ্টা। এরপর মাংস ভালো করে ভেজে নিতে হবে। বেশি কড়া করে ভাজবেন না। ভাজা হয়ে গেলে ঠাণ্ডা করে নিতে হবে।

এবার অন্য একটি পাত্রে লেবু থেকে রস চিপে বের করে রাখুন। আচার তৈরি করার অন্তত তিন ঘণ্টা আগে লেবুর রস বের করে রাখবেন। লেবুর রস রোদে রেখে গরম করবেন, যাতে এর মধ্যে অতিরিক্ত পানি চলে যায়। তবে চুলায় বসাবেন না। এবার লেবুর রসের মধ্যে রসুন থেঁতলে দিন। সেইসঙ্গে মেথি, মরিচের গুঁড়া ও চিনি মিশিয়ে নিন। যদি আচার মিষ্টি করতে না চান, তাহলে চিনি এড়িয়ে যাবেন। এরপর দিয়ে দিন ভেজে নেয়া মাংস। তবে মাংসের গা থেকে তেল সবটুকু ছেঁকে তবেই লেবুর রসে দেবেন।

এবার মাংস ভাজা তেলটুকু আচারের মিশিয়ে দিতে পারেন। সব কিছু ভালো করে মিশে গেলে কাচের একটি পাত্রে ঢেলে রাখুন। দেখবেন যে বাড়তি তেল মাংসের উপরে দিয়েছেন সেটা যেন উপরে ভেসে থাকে। মুখবন্ধ কাচের পাত্রে দীর্ঘদিন মাংসের আচার রেখে খেতে পারবেন।

Please Share This Post in Your Social Media


© All rights reserved ©  jamunanewsbd.com