সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩:৫৩ অপরাহ্ন

বরিশাল বিভাগে একদিনে প্রাণ গেল আরও ১৪ জনের

বরিশাল প্রতিনিধিঃ বরিশাল বিভাগে গত ২৪ ঘণ্টায় ছয় হাসপাতালে ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে উপসর্গ নিয়ে ছয়জন এবং করোনায় আটজন মারা গেছেন। এ সময়ে আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে ৩২২ জন। আরটিপিসিআর ল্যাবে শনাক্তের হার ৫৬ দশমিক ২১ শতাংশ।  আজ শনিবার (৩১ জুলাই) বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদফতরের পরিচালক ও শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালকের কার্যালয় থেকে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদফতরের পরিচালক ডা. বাসুদেব কুমার দাস জানান, জেলাভিত্তিক করোনা সংক্রমণ তথ্যে দেখা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি শনাক্ত হয়েছে বরিশাল জেলায় ১১৯ জন। এ পর্যন্ত এই জেলায় আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন ১৩ হাজার ৮৮০ জন। সুস্থ হয়েছেন ৭ হাজার ৫৮৪ জন। ২৪ ঘণ্টায় দুজনের মৃত্যু নিয়ে মোট মারা গেছে ১৫৬ জন।   পটুয়াখালী জেলায় নতুন শনাক্ত হয়েছে ২৮ জন। এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৪ হাজার ২৮০ জন। ২৪ ঘণ্টায় একজনের মৃত্যু নিয়ে মোট মারা গেছেন ৮১ জন। সুস্থ হয়েছেন ২ হাজার ৬৪৫ জন। ভোলা জেলায় নতুন ১৫৯ জন শনাক্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্ত হলেন ৩ হাজার ৮১৭ জন। ২৪ ঘণ্টায় দুজনের মৃত্যু নিয়ে মোট মারা গেছেন ৩৩ জন। সুস্থ হয়েছেন ২ হাজার ৪০৬ জন। পিরোজপুরে নতুন ৯ জন শনাক্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৪ হাজার ৩২৭ জন। ২৪ ঘণ্টায় কারো মৃত্যু না হলেও মোট মারা গেছেন ৭২ জন। সুস্থ হয়েছেন ২ হাজার ৬৪৯ জন। বরগুনায় নতুন একজন শনাক্ত নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্ত  হয়েছেন ২ হাজার ৮৫৭ জন। ২৪ ঘণ্টায় কারো মৃত্যু না হলেও মোট মারা গেছেন ৬৬ জন। সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৬৮৫ জন। ঝালকাঠি জেলায় নতুন ৬ জন শনাক্ত নিয়ে মোট আক্রান্ত  হয়েছেন ৩ হাজার ৯৮৩ জন। ২৪ ঘণ্টায় তিনজনের মৃত্যু নিয়ে মোট মারা গেছেন ৬১ জন। সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৯৯০ জন। মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে ছয়জন উপসর্গ নিয়ে এবং দুজন করোনা রোগী শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতারের করোনা ইউনিটে মৃত্যুবরণ করেন। এ ছাড়া ভোলা জেলা সদর হাসপাতালে দুজন, রাজাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে দুজন, বাউফল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে একজন, ভান্ডারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে একজন মারা গেছেন। শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালকের তথ্য সংরক্ষক জাকারিয়া খান স্বপন জানান, বিগত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালের আইসোলেশনে ৩৩ জন ভর্তি হন। এর মধ্যে উপসর্গ নিয়ে ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে। হাসপাতালে ৩৪০ জন চিকিৎসাধীন রোগী আছেন। যার মধ্যে ১৪৩ জনের করোনা পজিটিভ, ১৯৭ জন আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। ২৪ ঘণ্টায় ২০২ জনের নমুনা আরটি পিসিআর ল্যাবে পরীক্ষা করানো হয়েছে। এর মধ্যে ১১৩ জন পজিটিভ ও ৭২ জন করোনা নেগেটিভ শনাক্ত হয়েছেন।

Please Share This Post in Your Social Media


© All rights reserved ©  jamunanewsbd.com