বৃহস্পতিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ০৬:২৮ অপরাহ্ন

News Headline :
সাপাহারে বেগম রোকেয়া দিবসে জয়িতাদের সম্বর্ধনা নন্দীগ্রামে ইউপি নির্বাচনে প্রতিদ্ব›দ্বী প্রার্থীদের সাথে জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনের মতবিনিময় সভা রাজশাহীর ছাত্রলীগ নেতা শাহিন হত্যায় ৯ জনের ফাঁসি, ২২ জনের যাবজ্জীবন পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ এর কুমিল্লা এলাকা পরিচালক নির্বাচিত হলেন সাংবাদিক সৈয়দ আহাম্মদ লাভলু দুর্নীতিবাজদের সামাজিকভাবে বয়কট করতে হবে : রাষ্ট্রপতি বগুড়ার ধুনটে ইউপি সদস্য মুক্তা তার নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি রাখলেন বগুড়ায় মুজিব মঞ্চ পরিষ্কার করল ছাত্রলীগ কর্মীরা হাইকোর্টে এমপি হারুনের ৫ বছরের সাজা বহাল ‘বেগম রোকেয়া পদক’ পেলেন যারা অবহেলায় নষ্ট হচ্ছে চলনবিল জাদুঘরের দুর্লভ নিদর্শন

সারাদেশে ১৪ দিন শাটডাউনের সুপারিশ

যমুনা নিউজ বিডিঃ করোনাভাইরাসের সংক্রমণরোধে সারাদেশে ১৪ দিন সম্পূর্ণ শাটডাউনের সুপারিশ করেছে জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটি। করোনা ভাইরাসের অতি সংক্রমণশীল ডেলটা ধরণ ঠেকাতে এই সুপারিশ দেয়া হয়। আজ বৃহস্পতিবার (২৪ জুন) কোভিড-১৯ সংক্রান্ত জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটির ৩৮ তম সভায় এই সুপারিশ করা হয়।

এদিকে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন জানান,  জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটির এই সুপারিশ পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। প্রয়োজনে সম্পূর্ণ শাটডাউনের এই সুপারিশ বাস্তবায়ন করবে সরকার।

দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বাড়তে থাকায় সারাদেশে সরকার ঘোষিত বিধিনিষেধ চলছে। চলতি বছর করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ায় গত ৫ এপ্রিল থেকে লকডাউন ঘোষণা করা হয়। ১৩ এপ্রিল পর্যন্ত ঢিলেঢালা লকডাউন হলেও সংক্রমণ আরও বেড়ে যাওয়ায় ১৪ এপ্রিল থেকে ‘কঠোর লকডাউন‘ ঘোষণা দেয় সরকার। পরে সিটি করপোরেশন এলাকায় গণপরিবহন চলাচলের অনুমতি দেওয়া হয়। তবে দূরপাল্লার বাস, লঞ্চ এবং ট্রেন চলাচল রোজার ঈদ পর্যন্ত বন্ধ ছিল। পরে ২৪ মে থেকে গণপরিবহন চলার অনুমতি দেওয়া হয়। একই সঙ্গে হোটেল-রেস্তোরাঁগুলো আসন সংখ্যার অর্ধেক বসিয়ে খোলা রাখার অনুমতি দেওয়া হয়।

তবে করোনার সংক্রমণ বাড়তে থাকায় সারাদেশে বিধিনিষেধ কয়েক দফা বাড়ানো হয়। সর্বশেষ গত ১৬ জুন বিধিনিষেধ এক মাস বাড়িয়েছে সরকার, যা ১৫ জুলাই পর্যন্ত চলবে। এ বিধিনিষেধে কিছু পরিবর্তন আনা হয়।
এখন থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সব সরকারি, আধা সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত ও বেসরকারি অফিস খোলা থাকবে। এত দিন শুধু জরুরি সেবা–সংশ্লিষ্ট অফিসগুলো খোলা রাখতে বলা হয়েছিল। তবে প্রায় সব অফিসই চলছিল।

বর্তমানে দেশের সীমান্তবর্তী ও আশপাশের জেলাগুলোতে করোনার ডেলটা ধরন ছড়িয়ে পড়েছে। এসব জেলায় জেলা প্রশাসকেরা  স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে মিলে কারিগরি কমিটির সঙ্গে আলোচনা করে সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে লকডাউনসহ কার্যকর ব্যবস্থা নেবেন।

তবে সীমান্তবর্তী ও আশপাশের জেলাগুলোতে করোনার ডেলটা ধরন ছড়িয়ে পড়ায় সংক্রমণ ঠেকাতে সারাদেশে সর্বাত্মকভাবে ১৪ দিনের কঠোর শাটডাউনের সুপারিশ করল কোভিড-১৯ সংক্রান্ত জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটি। ইতোমধ্যে দেশের পঞ্চাশের অধিক জেলায় ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টের সংক্রমণ ধরা পড়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media


© All rights reserved ©  jamunanewsbd.com