বুধবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ০৭:৩৬ পূর্বাহ্ন

নন্দীগ্রামে ঘরে ঘরে জ্বর-সর্দি

নন্দীগ্রাম (বগুড়া) প্রতিনিধি: বগুড়ার নন্দীগ্রামে হঠাৎ করেই সর্দি-জ্বরের প্রকোপ বেড়েছে। স্থানীয় ফার্মেসিগুলোতে শিশু ও বৃদ্ধ রোগীদের ভিড় দেখা গেলেও মিলছে না প্যারাসিটামল। ঘরেই চলছে সাধারণ চিকিৎসা। করোনাভাইরাস আতঙ্কে হাসপাতালে যেতে চান না গ্রামের মানুষ। জ্বর নিয়ে ভীতি থাকলেও করোনা পরীক্ষায় আগ্রহী নন তারা। উপজেলার প্রায় সবকটি গ্রামে সর্দি-কাশি-জ্বরে আক্রান্ত রোগী বেড়েছে বলে জানা গেছে। অনেকে বলছেন, টানা কয়েকদিনের বৃষ্টিতে ভিজে সর্দি-জ¦রে আক্রান্ত হয়েছেন। কিন্তু ফার্মেসিতে গিয়ে পাচ্ছেন না কোনো ধরণের প্যারাসিটামল। তবে এবিষয়ে নন্দীগ্রাম পৌর সদরের ফার্মেসি দোকানিরা কথা বলতে চান না। করোনা আক্রান্ত হওয়ার ভয়ে অনেকেই চিকিৎসকের কাছে না গিয়ে বাড়িতেই গোপনে চিকিৎসা নিচ্ছেন বলে জনশ্রুতিতে জানা গেছে। ঘরে থেকেই অনেকে সুস্থ হয়েছেন। কেউ কেউ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের বহির্বিভাগে বা স্থানীয় ক্লিনিকে গিয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন। ফলে প্যারাসিটামল জাতীয় ওষুধের চাহিদা বৃদ্ধি পেয়েছে। এদিকে সচেতনতা না থাকায় স্বাস্থ্যবিধি না মেনে অসুস্থ অবস্থায় অনেকে হাটবাজারে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। পল্লী চিকিৎসক রাসেল মাহমুদ বলেন, চার-পাঁচদিন ধরে গ্রামে গ্রামে সর্দি-জ্বরের রোগী বেড়েছে। করোনা পরীক্ষার কথা বললে তারা আগ্রহ দেখাচ্ছেন না।
গত এক সপ্তাহে উপজেলায় করোনা শনাক্তের হার বেড়ে যাওয়ায় দুশ্চিন্তায় রয়েছে স্থানীয় প্রশাসন। করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা দিতে মানুষের অনীহা থাকায় উপজেলায় করোনা রোগীর প্রকৃত সংখ্যা নির্ণয় করতে পারছে না উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ।
স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা গেছে, উপজেলায় এ পর্যন্ত ৬জন করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। জ্বর, ঠান্ডা ও গলাব্যথাসহ বিভিন্ন উপসর্গ নিয়ে গত এক সপ্তাহে বহির্বিভাগে ১৮০-২০০ জনের মতো রোগী চিকিৎসা নিচ্ছেন। জ্বরে আক্রান্ত হওয়ার পর বেশির ভাগ রোগীই মারাত্মক দুর্বল হয়ে পড়ছেন।
নন্দীগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. তোফাজ্জল হোসেন মন্ডল বলেন, জ¦র-সর্দি কিছুটা বেড়েছে। অনেকেই করোনার উপসর্গ নিয়ে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আসছেন। তাদের বারবার করোনা নমুনা পরীক্ষা করতে বলা হচ্ছে। জ্বর-সর্দিতে আক্রান্ত অনেকেই করোনা পরীক্ষায় আগ্রহ দেখাচ্ছেন না। যে কারণেই সর্দি-কাশি-জ্বর দেখা দিক না কেন, অবহেলা না করে সাবধানতা অবলম্বনের পরামর্শ দেয়া হচ্ছে।

Please Share This Post in Your Social Media


© All rights reserved ©  jamunanewsbd.com