মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১, ০৯:২৪ অপরাহ্ন

জাতিসংঘের পিস কিপিংয়ে আমরা এক নম্বরে : সেনাপ্রধান

যমুনা নিউজ বিডিঃ বাংলাদেশ সেনাবাহিনী জাতিসংঘের পিস কিপিং মিশনে সারা বিশ্বের মধ্যে এক নম্বরে বলে জানিয়েছেন সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ।

সেনাবাহিনীর প্রধান হিসেবে তাঁর ওপর অর্পিত দায়িত্ব সম্মান ও তৃপ্তির সঙ্গে সঠিকভাবে পালন করতে পেরেছেন বলে জানান জেনারেল আজিজ।

আজ বুধবার বিকেলে চট্টগ্রাম সেনানিবাস ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্ট সেন্টারে বিদায়ী কমান্ড্যান্ট হিসেবে সেনাপ্রধান আজিজ আহমেদকে দেওয়া বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন সেনাপ্রধান।

এর আগে মনোজ্ঞ কুচকাওয়াজের মাধ্যমে পূর্ণ সামরিক রীতিতে বিদায় সংবর্ধনা দেওয়া হয়।

বিগত তিন বছরে বাংলাদেশ এ সময়ের মধ্যে সেনাবাহিনীকে একটি সমৃদ্ধ প্রতিষ্ঠান হিসেবে পরিচালনার পাশাপাশি নানা উদ্যেগের কথা তুলে ধরেন সেনাবাহিনীর প্রধান আজিজ আহমেদ।

সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ তাঁর গৃহিত পদক্ষেপ তুলে ধরে বলেন, ‘ফোর্সেস গোল ২০৩০-এর আলোকে একটি আধুনিক যুগোপযোগী সেনাবাহিনী গড়ে তোলার লক্ষে ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্ট অব আর্টিলারিতে সংযোজিত হয়েছে অত্যাধুনিক অস্ত্র, গোলাবারুদসহ নানা সরঞ্জাম।’

রেজিমেন্ট অব আর্টিলারির আধুনিকায়ন প্রসঙ্গে সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ বলেন, ‘এরই মধ্যে এই রেজিমেন্টে যুক্ত হয়েছে নবগঠিত তিনটি আর্টিলারি ব্রিগেড এবং একটি এয়ার ডিফেন্স ব্রিগেডসহ ১৪টি আর্টিলারি ইউনিট। ফায়ার সক্ষমতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে রেজিমেন্ট অব আটিলারিকে অত্যাধুনিক সমরাস্ত্রে সুসজ্জিত করা হয়েছে। আধুনিকায়নের পাশাপাশি যুগোপযোগী প্রশিক্ষণ সুবিধা নিশ্চিতকল্পে নির্মাণ ও সংস্কার করা হচ্ছে ফিল্ড ফায়ারিং রেঞ্জ এবং ক্রয় করা হচ্ছে অত্যাধুনিক সিমুলেটর। এছাড়াও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর অনন্য উপহার হিসেবে আর্টিলারি সেন্টার ও স্কুলে আন্তর্জাতিক মানের প্রশিক্ষণ সুবিধাসম্পন্ন ‘মুজিব ব্যাটারি কমপ্লেক্স’ এর নির্মাণ কাজ চলতি বছরেই সম্পন্ন হবে।’

‘মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণকারী তিনটি আর্টিলারি রেজিমেন্ট ইউনিফর্মে শার্টের কলারে লাল পাইপিং পরিধান করছে এবং স্বাধীনতার পর প্রথমবারের মতো ২৬টি আর্টিলারি ইউনিট রেজিমেন্টাল কালার ও চারটি ইউনিট ন্যাশনাল স্ট্যান্ডার্ড অর্জন করেছে।’-যোগ করেন সেনাপ্রধান

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর রেজিমেন্ট অব আর্টিলারি এবং ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্ট তাদের নিজ নিজ উন্নতি ও অগ্রগতির ধারা অব্যাহত রাখবে বলে প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন সেনাপ্রধান। কর্নেল কমান্ড্যান্ট হিসেবে দায়িত্ব পালনকালে তাঁকে সর্বাত্মক সহযোগিতা করায় সংশ্লিষ্ট সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।

পরিশেষে, দেশপ্রেম এবং মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে দেশের সেবায় সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকারে প্রস্তুত থাকতে তিনি রেজিমেন্ট অব আর্টিলারি এবং ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্টের সব সদস্যকে উপদেশ দেন।

অনুষ্ঠানে রেজিমেন্ট অব আর্টিলারি এবং ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্টের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তাসহ অন্যান্য সামরিক কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ ২০১৮ সালের ৪ এপ্রিল রেজিমেন্ট অব আর্টিলারি এবং একই বছর ১০ সেপ্টেম্বরে ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্টের কর্নেল কমান্ড্যান্ট হিসেবে দায়িত্বভার গ্রহণ করেছিলেন

Please Share This Post in Your Social Media


© All rights reserved ©  jamunanewsbd.com