বৃহস্পতিবার, ২৮ অক্টোবর ২০২১, ০৯:৫৪ পূর্বাহ্ন

News Headline :
বাঙালির পিতার নাম শেখ মুজিবুর’ গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন কুয়েতের বিপক্ষে হারল বাংলাদেশ নন্দীগ্রামে এসএসসি, দাখিল ও সমমান পরীক্ষার প্রস্তুতিমূলক সভা অনুষ্ঠিত ইংলিশদের সামনে পাত্তাই পেল না বাংলাদেশ সৌদি খেজুর ও ভিয়েতনামের নারিকেল চাষে মিলবে ব্যাংক ঋণ সিরাজগঞ্জে যুবদলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী কে কেন্দ্র করে বিএনপি-আ’লীগ ও পুলিশের ত্রিমুখী সংঘর্ষ, আহত ২০ জাতীয় ইঁদুর নিধন অভিযান উপলক্ষে ব্রাহ্মণপাড়ায় র‍্যালী ও আলোচনা সভা বগুড়ার ধুনটে সরকারি চাল বোঝাই ট্রাক জব্দ বগুড়ায় জমজম ড্রিংকিং ওয়াটারকে জরিমানা ১ লাখ টাকা নওগাঁর সাপাহার উপজেলা আইন শৃংঙ্খলা কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত

বগুড়ায় সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরামের সমাবেশ

ষ্টাফ রিপোর্টারঃ গৃহস্থালি কাজের আর্থিক মূল্য নির্ধারণ করে জিডিপিতে অন্তর্ভূক্ত, নারী নির্যাতন বন্ধসহ আরও কয়েকটি দাবিতে বগুড়ায় মানববন্ধন সমাবেশ করেছে সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরাম। সংগঠনটির অন্য দাবিগুলো হলো, নারীদের সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করা, বাল্য বিবাহ রোধ করা, করোনাকালে কর্মহীন হয়ে পড়া নারীদের রাষ্ট্রীয় উদ্যোগে পুনর্বাসন করার জন্য বাজেটে বিশেষ বরাদ্দ রাখা।

মঙ্গলবার বেলা ১২ টার দিকে শহরের সাতমাথা এলাকায় এ কর্মসূচি পালন করা হয়। মানবন্ধন সমাবেশ শেষে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে অর্থমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি পেশ করা হয়।

এ কর্মসূচির সভাপতিত্ব করেন সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরামের জেলা কমিটির আহ্বায়ক দিলরুবা নূরী। বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দলের(বাসদ) জেলা কমিটির আহ্বায়ক আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট সাইফুল ইসলাম পল্টু, সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরাম জেলা কমিটির নেতা রাধা রানী বর্মন, রেনু বালা, আকলিমা বেগম, তাহমিনা আক্তার অ্যানিসহ আরো অনেকে।

অনুষ্ঠিত সমাবেশ সঞ্চালনা করেন সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরামের সংগঠক নিয়তি সরকার নিতু।

বক্তব্যে দিলরুবা নূরী বলেন, ‘আগামী ৩ জুন সংসদে ২০২১-২২ অর্থবছরের বাজেট উপস্থাপন করা হবে । বাজেটের মাধ্যমে শুধু অর্থনৈতিক পরিকল্পনা নয় সরকারের রাজনৈতিক দৃষ্টিভঙ্গীও প্রতিফলিত হয়। নারীর শ্রমের স্বীকৃতি ও সামাজিক মর্যাদা প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে বাজেট নিশ্চয় বিশেষ ভূমিকা রাখবে। করোনা মহামারীর মধ্যে গত ১৪ মাসে আমাদের বেশকিছু অভিজ্ঞতা হয়েছে। আগামী অর্থ বছরও হয়তো আমাদের করোনাকে সাথে নিয়েই কাটাতে হবে। বাজেট সেসব বিবেচনাকে মাথায় রেখেই প্রণীত হবে বলে আমরা প্রত্যাশা করছি।’

তিনি বলেন, ‘গত বছরে নারীর প্রতি সহিংসতা ভীষণ রকম বেড়ে গেছে। স্বামীর দ্বারা নির্যাতনের শিকার হওয়ার ক্ষেত্রে বাংলাদেশ বিশ্বের মধ্যে চতুর্থ স্থানে অবস্থান করছে। এ সময়কালে বাল্য বিবাহ খুব বেড়ে গেছে। বাল্য বিবাহের দিক দিয়েও বাংলাদেশ বিশ্বে চতুর্থ স্থানে রয়েছে। এ থেকে বুঝা যায়, নারীর জীবনে পারিবারিক নির্যাতন এবং সামাজিক নিরাপত্তাহীনতা চরম আকার নিয়েছে। গৃহশ্রমিক, বেসরকারি স্কুলের শিক্ষিকাসহ বিভিন্ন অনানুষ্ঠানিক কর্মক্ষেত্র থেকে ছাটাই বা কর্মহীন হয়ে পড়েছেন নারীরা। এই সকল সংকট উত্তরণে নগদ সহায়তাসহ বিশেষ বরাদ্দ প্রয়োজন। সাথে সাথে গৃহস্থালী কাজের আর্থিক মূল্য জিডিপিতে অন্তর্ভূক্ত করে নারীর শ্রমের মূল্যায়ন করতে হবে।’

সাইফুল ইসলাম পল্টু বলেন, ‘গৃহস্থালী কাজের মাধ্যমে নারীরা পরিবারে অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। গৃহে সবার জন্য খাবার তৈরি, পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা নিশ্চিত করা, শিশুদের দেখা-শোনা করা, বৃদ্ধদের সেবা করা, শিশুদের পাঠদান, বিদ্যালয়ে আনা-নেয়াসহ গৃহ ব্যবস্থাপনার যাবতীয় কাজ নারীরা করে থাকেন। যে সকল পরিবার কৃষিকাজের সাথে যুক্ত সেখানে নারীরা উল্লেখিত কাজের বাইরে কৃষিকাজ করেন, হাঁস-মুরগী, গরু-ছাগল দেখা-শোনা করেন। এমনকি যারা ঘরের বাইরে বিভিন্ন পেশায় নিয়োজিত আছেন তারাও গৃহের অধিকাংশ কাজ করে থাকেন।’

তিনি বলেন, ‘গৃহে নারীরা প্রতিদিন গড়ে ১৬ ঘণ্টায় প্রায় ৪৫ ধরনের কাজ করে থাকেন। সিপিডির (সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগ) ‘জাতীয় অর্থনীতিতে নারীদের অবদান নিরূপণ: বাংলাদেশ প্রেক্ষিত’ শীর্ষক গবেষণায় দেখা যায়, নারীদের গৃহস্থালী কাজের আর্থিক মূল্য ১১লাখ কোটি টাকারও উপরে। এর রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি নিশ্চিত করে নারীর মর্যাদা দেয়া জরুরী।’

রাধা রানী বর্মন বলেন, ‘দীর্ঘদিন ধরে দাবি জানানোর পরও নারীর গৃহস্থালির কাজের আর্থিক মূল্য হিসাব করার জন্য রাষ্ট্রীয় কোন উদ্যোগ পরিলক্ষিত হয়নি। গৃহিণী নারীদের বা গৃহস্থালির কাজের অবদানের মূল্যায়ন না হওয়ায় নারীরা তার প্রাপ্য সম্মান থেকে বঞ্চিত হন এবং অসহায় বোধ করেন। নির্যাতন-বৈষম্যের শিকার হন। আমরা মনে করি, নারীর শ্রমের প্রতি সমাজের দৃষ্টিভঙ্গী ও নারীদের সামাজিক অবস্থা পরিবর্তনে রাষ্ট্র বড় ভূমিকা পালন করতে পারে।’

Please Share This Post in Your Social Media


© All rights reserved ©  jamunanewsbd.com