শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:২৬ অপরাহ্ন

মোহাম্মদপুরে একই পরিবারের শিশুসহ ৩ জন আগুনে দগ্ধ

যমুনা নিউজ বিডিঃ রাজধানীর মোহাম্মদপুর নবদয় হাউজিংয়ে আগুনে শিশুসহ একই পরিবারের ৩ জন দগ্ধ হয়েছে। তাদেরকে উদ্ধার করে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়েছে। শুক্রবার রাত পৌনে ৩টার দিকে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

দগ্ধরা হলেন-মো. সোহেল (৩৫), তার স্ত্রী লাবনি আক্তার হাওয়া (২৫) ও ২ বছরের ছেলে সন্তান মো. মোসালিন।

তাদেরকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া প্রতিবেশী ভাড়াটিয়া রুপা আক্তার বলেন, রাত ৩টার দিকে তাদের রুমের ভেতরে চিৎকার শুনতে পাই। পরে ঘুম থেকে উঠে তাদের রুমের সামনে গিয়ে দেখি রুমের ভেতর আগুন জ্বলছে, সোহেল ও লাবনী রুমের বাইরে, তাদের শরীরেও আগুন জ্বলছিলও। আর বাচ্চাটি রুমের ভেতরেই ছিল। তখন আমরা বাচ্চাটিকে রুমের ভেতর থেকে বাইরে বের করে তাদেরকে সঙ্গে সঙ্গে হাসপাতালে নিয়ে আসি।

তিনি আরো বলেন, সোহেল বেকার। আর তার স্ত্রী অন্যের বাসায় গৃহপরিচারিকার কাজ করে। তাদের আরেক বড় মেয়ে গ্রামের বাড়িতে থাকে। নবদয় হাউজিংয়ের সি ব্লকের ২ নম্বর টিনসেড বাড়িতে ভাড়া থাকতো তারা। গত ২ মাস আগেই তারা এই বাসায় ভাড়া উঠে। কীভাবে এই আগুন লেগেছে তা আমরা বলতে পারছি না। তবে মশার কয়েল থেকে এই আগুন লাগতে পারে।

ফায়ার সার্ভিস সদর দপ্তরের ডিউটি অফিসার মাহফুজ রিবেন বলেন, আমরা ২টা ৪৪ মিনিটে আগুনের সংবাদ পাই। এরপর আমাদের মোহাম্মাদপুর স্টেশনের ৩টি ইউনিট ঘটনাস্থলে যায়। কিন্তু তারা যাওয়ার আগেই আগুন নিভে গেছে। এরপর ওই বাসার একই পরিবারের ৩ জনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

তিনি জানান, প্রাথমিকভাবে জানা গেছে গ্যাস লাইন লিকেজ হওয়ায় রুমের ভেতর জমাট গ্যাস মশার কয়েলের সংস্পর্শে এসে এই আগুনের সূত্রপাত হয়। আগুনে তিনজন দগ্ধসহ গৃহস্থালি মালামালও পুড়ে গেছে।

বার্ন ইনস্টিটিউটের দায়িত্বরত চিকিৎসক জানান, সোহেলের শরীরে ৭৫ শতাংশ দগ্ধ, লাবনির ৩০ ও মোসালিন ৮০ শতাংশ দগ্ধ হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media


© All rights reserved ©  jamunanewsbd.com