রবিবার, ২০ Jun ২০২১, ০২:৪৭ পূর্বাহ্ন

বার্সা-অ্যাটলেটিকো’র ড্র, শিরোপা জেতার সুযোগ রিয়ালের

যমুনা নিউজ বিডিঃ বার্সেলোনা ও অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদের গোলশূন্য ড্রয়ে কার্যত লাভ হলো রিয়াল মাদ্রিদের। ৯০ মিনিটের খেলায় জয়ের জন্য যা যা করার প্রয়োজন ছিল তার সবই করেছে লিওনেল মেসিদের বার্সা ও অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ। কিন্তু লা লিগা জয়ের পথে এগিয়ে যেতে যা দরকার ছিল সেটাই পায়নি দুই দল। যোগ করা সময় মিলিয়ে ৯৬ মিনিটে বহু চেষ্টাতেও প্রতিপক্ষের জালে বল স্পর্শ করাতে পারেনি দুই দল।

লিগ টেবিলের এক ও তিন নম্বরের লড়াইটা হলো দারুণ জমজমাট। আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে উত্তেজনা ছড়াল পুরো ম্যাচে। কিন্তু মিলল না গোলের দেখা। বার্সেলোনা ও অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদের ড্রয়ে লা লিগার শিরোপা ভাগ্য চলে গেল রিয়াল মাদ্রিদের হাতে। শনিবার (৮ মে) ক্যাম্প নুয়ে স্থানীয় সময় দুপুরে শুরু হওয়া লা লিগার ম্যাচটি গোলশূন্য ড্র হয়েছে। সমীকরণটা অবশ্য সহজ রিয়াল মাদ্রিদের জন্য। বাকি ম্যাচগুলোতে জয় পেলেই তারা জিতবে লা লিগার শিরোপা।

ন্যু ক্যাম্পে ম্যাচের প্রথমার্ধে বার্সেলোনার পাসিং লেন ব্লক করে একপ্রকার কোনঠাসাই করে রেখেছিল সিমিওনের দল। তার ওপর ৩১ মিনিটে চোট পেয়ে সার্জিও বুসকেটসের বিদায়ে আরও বিপাকে পড়ে দলটি। তবে বিপরীতে অ্যাটলেটি ৫টি সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে পারেনি আদৌ। আর বার্সেলোনার হাইলাইট ছিল ৪১ মিনিটে মেসির সলো রানে ৫ জনকে ছিটকে করা শটটাই, যদিও অবলাকের কল্যাণে গোলটা পাওা হয়নি তাদের। ফলে গোলহীনভাবেই বিরতিতে যায় দুই দল।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই একটা পরিবর্তন নিয়ে মাঠে নামে বার্সা, অস্কার মিনগেসার জায়গায় নামেন রোনাল্ড আরাউহো। তবে তাতেও পরম আরাধ্য রক্ষণাত্মক স্থিতিটা মেলেনি বার্সার। ৪৮ মিনিটেই কারাসকো বল বাড়িয়ে দেন সুয়ারেজকে, তবে শটটা ঠিকঠাক লক্ষ্যে ছিল না তার।

ম্যাচের এ পর্যন্ত বার্সার আক্রমণ ছিল অস্পষ্ট, অ্যাটলেটিকোর জমাট রক্ষণের সামনে পরিষ্কার পরিকল্পনার অভাব ছিল চোখে পড়ার মতো।

প্রথম এক ঘণ্টায় দলিত বার্সেলোনা ম্যাচে ফেরে ৬২ মিনিটে, প্রতিপক্ষের পা যখন কিছুটা ক্লান্ত হয়ে এসেছে। জর্দি আলবার ক্রসটায় ইলাইশ মরিবা শট করেন, তবে স্যাভিচের কল্যাণে তা চলে যায় লক্ষ্যের একটু বাইরে দিয়ে। পরের মিনিটেই মেসির ডান পায়ের ক্রসে পিকের দারুণ এক হেডার ঠেকান অবলাক।

৬৬ মিনিটে আবারও দেখা মেলে মেসি-অবলাকের একটা ডুয়েলের। বক্সের কোনায় ফাউলের শিকার হয়ে পাওয়া ফ্রি কিকটা মেসি দারুণ গতিতেই নিয়েছিলেন, তবে অবলাকের দুর্দান্ত এক সেভ বিপদ হতে দেয়নি অ্যাটলেটিকোর।

প্রথমার্ধে প্রায় নিজের ছায়া হয়ে থাকা মেসিকে হঠাৎই ভয়ঙ্কর হয়ে উঠতে দেখে অ্যাটলেটিকো কোচ সিমিওনে মাঠে আনেন খানিকটা ফিজিক্যাল মিডফিল্ডার জেফ্রি কন্ডগবিয়াকে। তাতে কিছুটা হলেও থামানো যায় বার্সা অধিনায়ককে।

তাতে স্বাগতিকদের আক্রমণেও পড়ে খানিকটা থিতিয়ে। অচলাবস্থার সমাধান খুঁজতে বার্সার ভারপ্রাপ্ত হেড কোচ আলফ্রেড শ্রুডার উসমান দেম্বেলেকে আনেন পেদ্রির জায়গায় আর সার্জি রবার্তো আসেন সার্জিনিও ডেস্টের জায়গায়।

তবে কোচের প্রত্যাশা ঠিকঠাক মেটাতে ব্যর্থ হন দেম্বেলে। ৮৪ মিনিটে জর্দি আলবার ক্রসে প্রায় ফাঁকায় থাকার সুযোগটা যথার্থ হেডার দিয়ে নিতে ব্যর্থ হন তিনি, যেটা লক্ষ্যে থাকলে হয়তো গোলটা তখনই পেয়ে যায় বার্সা, যেটা হয়নি। এর মিনিট দুয়েক পর ‘মেসি জোনে’ পাওয়া সুযোগটাতেও ব্যর্থতাই ধরা দেয় মেসির লক্ষ্যভ্রষ্ট ফ্রি কিকে। ফলে অজস্র আক্রমণ প্রতি আক্রমণের ম্যাচটাও শেষ হয় গোলহীনভাবে।

এই ড্রয়ের পর অ্যাটলেটিকো ৭৭ পয়েন্ট নিয়ে আছে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে। বার্সেলোনা আপাতত দুইয়ে উঠে এসেছে ৭৫ পয়েন্ট নিয়ে। তবে আগামীকাল রোববার নিজেদের ম্যাচে সেভিয়াকে হারালেই বার্সেলোনা ও অ্যাটলেটিকোর বিপক্ষে হেড টু হেডে এগিয়ে থেকে শীর্ষে উঠে আসবে জিনেদিন জিদানের রিয়াল। তাই এই ড্রয়ে চূড়ান্ত লাভটা যে হয়েছে শিরোপাধারীদেরই তা বলাই বাহুল্য।

Please Share This Post in Your Social Media


© All rights reserved ©  jamunanewsbd.com