মঙ্গলবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২২, ০৮:২৮ অপরাহ্ন

দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে লকডাউন ভেঙ্গে সড়ক অবরোধ

যমুনা নিউজ বিডিঃ দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে জমির বিরোধকে কেন্দ্র করে পৌর কাউন্সিলরের সাথে সংঘর্ষের জের ধরে আসামীদের (প্রতিপক্ষ) গ্রেফতারের দাবীতে লকডাউন ভেঙ্গে বিক্ষোভ মিছিল ও সড়ক অবোরোধ করেছে ক্ষমতাশীন দল আওয়ামীলীগের নেতা-কর্মিরা।

আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১১ টায় দলিয় কার্য্যলয় থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়ে স্থানীয় নিমতলা মোড়ে এসে দিনাজপুর-গবিন্ধগঞ্জ-ঢাকা মহাসড়ক অবরোধ করে। এসময় অবোরোধকারীরা পৌর কাউন্সিলরে সাথে সংঘর্ষকারীদের গ্রেফতারের পাশিাপাশি ফুলবাড়ী থানার ওসির বদলির স্লোগান দিতে দেখা যায়।

অবরোধ চলাকালে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক বেতদিঘী ইউপি চেয়ারম্যান উপাধক্ষ্য আব্দুল কুদ্দুস শাহ, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নীরু সামসুন্নাহার, মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার লিয়াকত আলী, সাকে ডিপুটি কমান্ডার এছার উদ্দিন পৌর আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সাত্তারসহ যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেত-কর্মিরা। বেলা সাড়ে ১২টায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ফুলবাড়ী সার্কেল) আসাদুজ্জামান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার রিয়াজ উদ্দিন ও উপজেলা চেয়ারম্যান আতাউর রহমান মিল্টন ঘটনাস্থলে গিয়ে আসামীদের গ্রেফতারের প্রতিশ্রুিত দেয়ায় অবরোধ প্রত্যাহার করে।

জানা গেছে পৌর এলাকার পশ্চিম গৌরীপাড়া গ্রামের মৃত মোবারক হোসেন শাহর ছেলে আজিজার রহমান শাহর সাথে একই এলাকার মৃত মোজাম্মেল হোসেন শাহর ছেলে সাবেক ব্যাংক কর্মকর্ত গেলাম মেস্তফার জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল, এই বিােধের জেরধরে বুধবার সকাল ১১ টায় পৌর শহরের পার্বতীপুর বাস স্ট্যান্ডে আজিজার রহমানের পক্ষে থাকা ৪নং ওয়াডের কাউন্সিলর ও পৌর আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক মামুনুর রশিদ চৌধুরীর সাথে, গোলাম মোস্তফার পক্ষে থাকা একই ওয়াডের পৌর নির্বাচনে মামুনুর রশিদ চৌধুরীর প্রতিদন্দি প্রার্থী মোফাজ্জল হোসেনের ছেলে শাহেদ ইসলামের বাঁক-বিতন্ডা শুরু হয়, এসময় উভায় পক্ষের লোকজন জড়ো হলে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় উভায় পক্ষের ৬জন আহত হয়। এদের মধ্যে, গোলাম মোস্তফা, মোফাজ্জলের ছেলে আসলাম, ও তালেবের ছেলে মমিনুলের অবস্থা গুরুতর, এদের মধ্যে গোলাম মোস্তফাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ ও আসলাম এবং মমিনুলকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

উজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সুত্রে জানা গেছে, আহতরা সকাল সাড়ে ১১ টা থেকে ১২টার মধ্যে িিচকিৎসা নিতে আসে, এসময় তাদের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাদেরকে উন্নত চিকিৎসার জন্য দিনাজপুর ও রয়পুর মেডিকেল কলেজ প্রেরন করা হয়েছে এরপর বিকাল সাড়ে ৪ টায় পৌর কাউন্সিলর মামুনুর রশিদ চৌধুরীসহ ৪জন উপজেলা স্বাস্থ্য তমপ্লেক্সে এসে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।

এদিকে এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে আজিজার রহমান শাহ বাদি হয়ে বুধবার রাতে গোলাম মোস্তফা, শাহেদ ইসলামসহ ১০জনকে আসামী করে ফুলবাড়ী থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। কিন্তু বুধবার রাতেই গোলাম মোস্তফাসহ আসামীদেরকে গ্রেফতার না করায়, বৃহস্পতিবার সকালে পৌর কাউন্সিলর মামুনুর রশিদ চৌধুরী আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগের নেতা-কর্মিদের সাথে নিয়ে বিক্ষোভ মিছিল ও মহাসড়ক অবরোধ করেন।

এদিকে সরকারের ঘোষিত লকডাউন অমান্য করে সরকার দলিয় নেতা-কর্মিদের বিক্ষোভ মিছিল ও সড়ক অবোরোধ করায়, সাধারন মানুষের মাঝে নানা প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।

সরকার ঘোষিত লকডাউন অমান্য করার বিষয়ে কথা বলার জন্য পৌর কাউন্সিলর মামুনুর রশিদ চৌধুরীকে বার বার ফোন দেয়া হলেও তিনি ফোন ধরেননি।

এই বিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার রিয়াজ উদ্দিনের নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন, আন্দোলনকারীদের সর্তক্য করা হয়েছে, এর পরে তারা লকডাউন ভঙ্গ করলে আইননানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Please Share This Post in Your Social Media


© All rights reserved ©  jamunanewsbd.com