মঙ্গলবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ১২:২৪ অপরাহ্ন

নওগাঁয় লকডাউনের ৩য় দিনেও কঠোর অবস্থানে পুলিশ প্রশাসন

নওগাঁ প্রতিনিধিঃ নওগাঁর পত্নীতলায় লকডাউনের তৃতীয় দিন আজ শুক্রবারও কঠোর অবস্থানে ছিল পুলিশ প্রশাসন। এদিকে একজন করোনা রুগীর মৃত্যু হয়েছে। সকলকে সচেতন হয়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের। করোনাভাইরাস মহামারীর দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলায় শুরু হওয়া লকডাউনে কঠোর অবস্থানে রয়েছে পুলিশ প্রশাসন। পত্নীতলা থানার অফিসার ইনচার্জ সামসুল আলম শাহ এর নেতৃত্বে লকডাউনের তৃতীয় দিন শুক্রবারও জনগণকে লকডাউন মানাতে যথেষ্ট তৎপর ছিল আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। পথে পথে দেওয়া হয়েছে ব্যারিকেড। জরুরি কাজে কেউ বের হলেও পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হতে হয়েছে। প্রতিটি যানবাহনে চলে তল্লাশি।

মোড়ে মোড়ে পুলিশের ব্যাপক তৎপরতায় উপজেলা সদর নজিপুর বাসস্ট্যান্ড এলাকা সহ সব যায়গায় মানুষের উপস্থিতি ছিল খুব কম। শুধু মাত্র জরুরী প্রয়োজনীয় দোকানপাট ছাড়া অন্য কোন দোকানপাট খোলা ছিলনা। তবে এলাকার বিভিন্ন মসজিদ গুলোতে স্বাস্থ্য বিধি না মেনে মুসল্লিদের কিছুটা বেশি উপস্থিতি লক্ষ করা গেছে। এদিকে কাঁচা বাজারে লেবু, শসা সহ অন্যান্য সব্জির দাম বেড়েই চলেছে।

অপরদিকে উপজেলার মাটিন্দর ইউপির বামইল গ্রামের জাহাঙ্গীর আলমের স্ত্রী সেলি আক্তার (৫০) দীর্ঘদিন যাবত জটিল কিছু রোগে ভূগছিলেন। গত কয়েকদিন ধরে পাতলা পায়খানা ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে সাপাহার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনা পরীক্ষা করলে সেখানে তার রিপোর্ট করোনা পজেটিভ আসায় তাকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্তৃপক্ষ দ্রুত রাজশাহী নেয়ার পরামর্শ প্রদান করেন বলে সাপাহার স্বাস্থ্য ও পঃপঃ কর্মকর্তা ডাঃ রুহুল আমীন জানান। সেলি আক্তারের পরিবার দ্রুত তাকে বৃহস্পতিবার রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে রাতে সেখানে তার মৃত্যু হয়। উক্ত সেলি আক্তার করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যান। স্বাস্থ্য বিধি মেনে তার দাফন সম্পন্ন করা হবে বলে পতœীতলা উপজেলা স্বাস্থ্য ও প.প. কর্মকর্তা ডা. খালিদ সাইফুল্লাহ্ নিশ্চিত করেছেন।    এব্যাাপরে মাটিন্দর ইউপির চেয়ারম্যান রুবেল হোসেন জানান, অসুস্থ অবস্থায় বৃহস্পতিবার সেলি আক্তারকে রাজশাহী নিয়ে গেলে রাতে সেখানে তার মৃত্যু হয়। এর আগে গত ১৪এপ্রিল বুধবার উপজেলা সদর নজিপুর নতুন হাট জামে মসজিদের ঈমাম মোশারফ হোসেন কয়েকদিনের জ্বর, শর্দি, কাশিতে আক্রান্ত হয়ে মারা গেলে উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ তার পরিবারের লোকজনের করোনা পরীক্ষা করলে তাদের সবারই নেগেটিভ পাওয়া গেছে। তবে তাদের সকলকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার পরামর্শ প্রদান করেছে বলে উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ জানান।  

Please Share This Post in Your Social Media


© All rights reserved ©  jamunanewsbd.com