মঙ্গলবার, ২৭ Jul ২০২১, ০৩:৩৯ অপরাহ্ন

পরিবহন বন্ধ: রাস্তায় রিকশা-সিএনজির দাপট

ষ্টাফ রিপোর্টারঃ করোনার বিস্তার রোধে দেশে এক সপ্তাহের কঠোর বিধিনিষেধ শুরু হয়েছে। অফিস ও শিল্পকারখানা খোলা রেখে গণপরিবহন বন্ধ রাখায় বিপাকে পড়েছে মানুষ। রিকশা এবং সিএনজিচালিত অটোরিকশাই একমাত্র ভরসা। সোমবার সকালে বগুড়া শহরের বিভিন্ন সড়কের মোড় এবং বাস স্টপেজে অফিসগামী মানুষকে যানবাহনের জন্য অপেক্ষা করতে দেখা যায়।

বাস না থাকলেও সড়কে ছিল প্রাইভেটকার, সিএনজি, রিকশার দাপট। এছাড়া সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের নিজস্ব গাড়িও চলতে দেখা গেছে।  অধিকাংশ দোকানপাট ছিল বন্ধ। তবে খাবার হোটেল খুলতে দেখা গেছে। বিধিনিষেধ উপেক্ষা করে অনেককে হোটেলে বসে খেতেও দেখা গেছে। সকাল ৮টা থেকে বসেছে নিত্যপ্রয়োজনীয় ও কাঁচাপণ্যের বাজার। করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ের উচ্চমাত্রার সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে ‘লকডাউন’ বিষয়টি উল্লেখ না করে সাত দিনের কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করে নির্দেশনা দিয়েছে সরকার। আজ সোমবার সকাল ৬টা থেকে ১১ এপ্রিল রাত ১২টা পর্যন্ত চলাচল ও কাজে এসব বিধিনিষেধ মেনে চলতে হবে। স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়, জনপ্রশাসন ও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের একাধিক সূত্র বলছে, পরিস্থিতি বুঝে ‘লকডাউনের’ সময় বাড়ানো হবে। আর এটাকে লকডাউন বলা হয়নি যেন আতঙ্ক না ছড়িয়ে পড়ে। সরকার কৌশলগত কারণে এক সপ্তাহের বিধিনিষেধ আরোপ করেছে।

Please Share This Post in Your Social Media


© All rights reserved ©  jamunanewsbd.com