বৃহস্পতিবার, ২১ অক্টোবর ২০২১, ০৪:২৩ পূর্বাহ্ন

২৫শে মার্চের গণহত্যার জন্য আ. লীগের ব্যর্থতা দায়ী ছিল: বিএনপি

যমুনা নিউজ বিডিঃ ৭ই মার্চ বঙ্গবন্ধুর ভাষণে স্বাধীনতার ঘোষণা আসলে ২৫শে মার্চ রাতের গণহত্যা হতো না বলে দাবি করছে বিএনপি। প্রতিরোধের কোন নির্দেশনা বা প্রস্তুতি জাতির সামনে না থাকায় সেই কালো রাতে অকাতরে জীবন বিসর্জন দেয়া ছাড়া আর কোন উপায়ই ছিল না নিরীহ নিরস্ত্র বাঙালির সামনে বলে মন্তব্য করেছেন দলটির নেতারা। ২৫শে মার্চের গণহত্যা স্মরণে প্রথমবারের মতো বিএনপি যে অনুষ্ঠান করতে যাচ্ছে সেখানে এ কথাগুলোই তুলে ধরতে চায় দলটি। মুক্তিযুদ্ধকে নিজেদের অর্জনের খাতায় তুলতে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষ্যে প্রথমবারের মতো দিবসভিত্তিক কর্মসূচি পালন করছে বিএনপি।

১৯৭১ সালের ২৫শে মার্চের মধ্যরাত। ট্যাঙ্ক আর ভারি অস্ত্রের ঝনঝনানিতে রাতের নিস্তব্ধতা ভেঙ্গে কেঁপে ওঠে পুরো রাজধানী। ঘুমন্ত-নিরস্ত্র-নিরীহ বাঙালির ওপর ইতিহাসের নৃশংসতম গণহত্যায় মেতে ওঠে পাকিস্তানি বাহিনী। বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু বলেন, ‘২৫শে মার্চে যে আক্রমন হয়েছে সেটা সে সময়ের নেতৃত্বের ব্যর্থতার জন্যই হয়েছে। জাতি সে সময় প্রস্তুত ছিলনা, প্রস্তুত থাকলে তো যুদ্ধই হতো।’ স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষ্যে মার্চজুড়ে এবার নানা কর্মসূচি পালন করছে দলটি। যার মধ্যে এমন দুটি দিন রয়েছে যে দিনে বিএনপি এর আগে কখনোই কোন কর্মসূচি পালন করেনি। এবার ৭ই মার্চ বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ভাষণের দিনটি স্মরণের পর ২৫শে মার্চকেও স্মরণ করতে যাচ্ছে কাল রাত্রির আলোচনা দিয়ে। বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা ও সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন কমিটির সদস্য সচিব আব্দুস সালাম বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধের যে সঠিক ইতিহাস সেটাকে তারা বিকৃত করে উপস্থাপন করছে। যেখানে যার যতটুকু অবদান রয়েছে তা আমরা তুলে ধরতে চাই। আশাকরি এ বিষয়ে সবাই একমত হবে।’ ভিন্নধর্মী এসব আয়োজন মধ্য দিয়ে ইতিবাচক রাজনীতির যে বার্তা দেয়া হচ্ছে তা তৃণমূলেও বেশ সাড়া ফেলেছে। গাজীপুর জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক ইব্রাহিম খলিল বলেন, ‘শুধুমাত্র দিক নির্দেশনা না থাকার কারণেই ২৫শে মার্চের সেই নির্মম হত্যাযজ্ঞকে প্রতিরোধ করা সম্ভব হয়নি।’ বিএনপির সহ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক আশরাফ উদ্দিন বকুল বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে আমরা ছোট করে দেখতে চাইনা। কিন্তু শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানকে মিথ্যাচার করে ছোট করবেন এটাতো ঠিক না।’ কর্মসূচিতে বাধা দেয়ার অভিযোগও আনেন নেতারা। বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু আরো বলেন, ‘মার্চ মাসের প্রতিটি দিনই কিন্তু ইতিহাস। সেই ইতিহাসের মালিকানা বাংলাদেশের সবারই রয়েছে। আমরা কর্মসূচি পালন করতে চাচ্ছি কিন্তু পুলিশের হুইসেলে যদি সেটা বন্ধ হয়ে যায় তাহলে দেশে গণতন্ত্র আছে বলে তো মনে হবেনা।

Please Share This Post in Your Social Media


© All rights reserved ©  jamunanewsbd.com