রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ০৪:৪৩ অপরাহ্ন

ঢাকা ছাড়লেন শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী

যমুনা নিউজ বিডিঃ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষ্যে শেখ হাসিনার আমন্ত্রণে দুই দিনের সফর শেষে ঢাকা ছাড়লেন শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দ্রা রাজাপাকসে। আজ শনিবার (২০ মার্চ) সন্ধ্যায় হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে একটি বিশেষ ফ্লাইটে তিনি ঢাকা ছাড়েন।

এর আগে, সকাল পৌনে এগারোটার দিকে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে উপস্থিত হন শ্রীলঙ্কান প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজপাকসে। এ সময় তাঁকে অভ্যর্থনা জানান বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এরপর দুই সরকার প্রধানের রুদ্ধদ্বার বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। পরে সংক্ষিপ্ত দ্বিপাক্ষিক আলোচনা শেষে ৬টি সমঝোতা স্মারক সই করে দুই দেশ। যেগুলোর একটি নতুন আর বাকি ৫টি স্মারক নবায়ন করেছে দুই দেশ।

নতুন সই হওয়া স্মারকের আওতায়, যুব উন্নয়ন কার্যক্রমকে শক্তিশালী করতে একযোগে কাজ করবে বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কা এছাড়া বাংলাদেশের নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীদের শ্রীলঙ্কায় প্রশিক্ষণ ও বাংলাদেশ ইনস্টিটিউশন অব ইন্টারন্যাশনাল অ্যান্ড স্ট্র্যাটেজিক স্টাডিস এবং শ্রীলঙ্কার লক্ষণ কাদিরগামার ইনস্টিটিউট অব ইন্টারন্যাশনাল রিলেশন্স অ্যান্ড স্ট্র্যাটেজিক স্টাডিস এর মধ্যে সমঝোতা স্মারকের নবায়ন করা হয়।

বৈঠকের আগে সকালে রাজধানীর ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন মাহিন্দ্রা রাজাপাকসে। এরপর বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর পরিদর্শন করেন শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী। সবশেষে তিনি পরিদর্শন বইতে স্বাক্ষর করেন। এ সময় বেশ কয়েকজন সফরসঙ্গীও তার সাথে ছিলেন।

বাংলাদেশে পৌঁছানোর পরপরই শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে সাভার জাতীয় স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করেন রাজাপাকসে। এরপর দর্শনার্থী বইতে স্বাক্ষর করেন এবং সেখানে একটি গাছের চারা রোপণ করেন। পরে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন বিকেল ৩টায় হোটেল সোনারগাঁওয়ের প্রেসিডেন্সিয়াল স্যুইটে মহিন্দা রাজাপাকসের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন। পরে বিকেল সাড়ে ৪টায় জাতীয় প্যারেড গ্রাউন্ডে আয়োজিত ১০ দিনব্যাপী রাষ্ট্রীয় অনুষ্ঠানে যোগ দেন। সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার ইন্টারকন্টিনেন্টালের গ্র্যান্ড হল রুমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আয়োজিত একটি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এবং নৈশভোজে যোগ দেন।

শুক্রবার (১৯ মার্চ) সকাল পৌনে ১০টার দিকে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছায় তাকে বহনকারি শ্রীলঙ্কান এয়ারলাইন্সের একটি বিশেষ ফ্লাইট। বিমানবন্দরে তাকে স্বাগত জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এসময় মন্ত্রিপরিষদের বেশ কয়েকজন সদস্য ও সরকারের উর্ধতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বাগত জানানোর পর শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রীকে দেয়া হয় গার্ড অব অনার।

Please Share This Post in Your Social Media


© All rights reserved ©  jamunanewsbd.com