বৃহস্পতিবার, ২৮ অক্টোবর ২০২১, ০২:২৯ পূর্বাহ্ন

News Headline :
বাঙালির পিতার নাম শেখ মুজিবুর’ গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন কুয়েতের বিপক্ষে হারল বাংলাদেশ নন্দীগ্রামে এসএসসি, দাখিল ও সমমান পরীক্ষার প্রস্তুতিমূলক সভা অনুষ্ঠিত ইংলিশদের সামনে পাত্তাই পেল না বাংলাদেশ সৌদি খেজুর ও ভিয়েতনামের নারিকেল চাষে মিলবে ব্যাংক ঋণ সিরাজগঞ্জে যুবদলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী কে কেন্দ্র করে বিএনপি-আ’লীগ ও পুলিশের ত্রিমুখী সংঘর্ষ, আহত ২০ জাতীয় ইঁদুর নিধন অভিযান উপলক্ষে ব্রাহ্মণপাড়ায় র‍্যালী ও আলোচনা সভা বগুড়ার ধুনটে সরকারি চাল বোঝাই ট্রাক জব্দ বগুড়ায় জমজম ড্রিংকিং ওয়াটারকে জরিমানা ১ লাখ টাকা নওগাঁর সাপাহার উপজেলা আইন শৃংঙ্খলা কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত

পরকীয়ার অপবাদে গৃহবধূকে গাছে বেঁধে নির্যাতন

পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম জানান, মহিলা পরিষদের নেতৃবৃন্দের কাছে বিষয়টি শুনেছি। গৃহবধূকে নির্যাতনের বিষয়টি নিয়ে মৌখিকভাবে অভিযোগ করেছেন। লিখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ময়মনসিংহ সদর উপজেলার চরাঞ্চলে এক গৃহবধূকে (৩০) পরকীয়ার অপবাদ দিয়ে গাছে বেঁধে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে প্রতিবেশী কয়েক যুবকের বিরুদ্ধে।

অমানবিক নির্যাতনের পর পুলিশের সাহায্য নিতে এবং চিকিৎসা নিতে দেওয়া হয়নি। ওই গৃহবধূকে তাই নির্যাতনের পর নজরবন্দি করে রাখা হয় বলে স্থানীয় সূত্র জানায়। পরে পালিয়ে গিয়ে নির্যাতিতা ওই নারী ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হন।

এ ব্যাপারে কোতোয়ালী মডেল থানার ওসি কামরুল ইসলাম জানান, ঘটনাটি শুনেছি। তবে এখনো কেউ অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ পেলে মামলা নিয়ে আসামিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ ঘটনায় অভিযুক্তদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবিতে ময়মনসিংহের পুলিশ সুপারের সাথে সাক্ষাত করেছেন জেলা মহিলা পরিষদ জেলা নেতৃবৃন্দ।

এদিকে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ওই নারী অভিযোগ করেন, বাড়ির জমি নিয়ে বিরোধকে কেন্দ্র প্রতিবেশি বখাটে রফিকুল, এনামুল ও মোতালেবসহ আরও কয়েকজন তাকে বেদম মারধর করেছে। ওরা কয়েকজন আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অপবাদ দিয়ে বারবার হয়রানি করছে, মারধর করছে। সর্বশেষ গাছের সাথে রশি দিয়ে বেঁধে নির্মমভাবে পিটিয়েছে।

তিনি আরও বলেন, আমার স্বামী সহজ-সরল গরীব মানুষ। সে ঢাকায় একটি গার্মেন্টসে চাকরি করে। বাড়ীতে স্বামী না থাকলে আমার ঘরে কোনো আত্মীয়-স্বজন এলেই প্রতিবেশি ওই বখাটেরা গালমন্দ করে। অবৈধ সম্পর্কের কথা তুলে অপবাদ দেয়। মাস দুয়েক আগে প্রতিবেশী এক যুবক তাদের বাড়িতে আসলে ওই নারীর বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পর্ক নিয়ে অপবাদ ছড়ায়। এ নিয়ে ওই নারীকে মারধর করা হয়। এক পর্যায়ে প্রাণ ভয়ে তিনি পাশের এলাকার এক আত্মীয়ের বাড়িতে আশ্রয় নেন। পরে তিনি ঢাকায় স্বামীর কাছে চলে যান।

এরপর গত ৮ জুন তার স্বামীকে নিয়ে বাড়িতে ফেরেন। তিনি তার উপর গ্রামের বখাটেদের হামলার আশংকায় কোতোয়ালী মডেল থানায় একটি জিডি করেন। কিন্তু বাড়িতে যাওয়ার পরই প্রতিবেশি বখাটেরা তাকে পরকীয়ার অপবাদ এনে গাছে বেঁধে নিমর্মভাবে পেটায়।

এ সময় তার স্বামী গ্রামের লোকজনকে নিয়ে বিষয়টি পুলিশকে অবহিত করতে চাইলে বখাটেরা কৌশলে মীমাংসার আশ্বাস দেয়। এরপর আবারো তার উপর অমানবিক নির্যাতন চালায় বখাটেরা। এসময় বিষয়টি পুলিশকে না জানাতে শাসিয়ে যায় এবং নজরবন্দি করে রাখে। চারদিন পর গত মঙ্গলবার ইফতারির সময় সুযোগ পেয়ে নির্যাতিতা ওই গ্রাম ছেড়ে পালিয়ে এক আত্মীয়ের বাসায় আশ্রয় নেয়।

বুধবার তাকে আহত অবস্থায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। প্রতিবেশী ইসমাইল হোসেন জানান, নির্যাতিত মহিলার পাশে দাঁড়ানোর জন্য এখন তাকেও নানাভাবে হুমকী দেয়া হচ্ছে।

মহিলা পরিষদের সভানেত্রী ফেরদ্দৌস আরা মাহমুদা হেলেন জানান, অমানবিক বিষয়টি পুলিশ সুপারকে জানানো হয়েছে। আমরা দোষীদের শাস্তি দাবি করছি।

Please Share This Post in Your Social Media


© All rights reserved ©  jamunanewsbd.com