Breaking News
Home / লাইফস্টাইল / শুধু খাওয়া নয়, ডিমের রয়েছে একাধিক কাজে ব্যবহার

শুধু খাওয়া নয়, ডিমের রয়েছে একাধিক কাজে ব্যবহার

যমুনা নিউজ বিডিঃ ডিমের প্রয়োজনীয়তা কমবেশি সব গৃহস্থ বাড়িতেই রয়েছে। ডিম সেদ্ধ থেকে ডিমের ঝোল সবই প্রিয় খাবার। তবে ডিম কেবল খাওয়া বা রূপচর্চাতেই কাজে লাগে এমন ভাবলে মস্ত ভুল করবেন। পুষ্টি মেটাতেও ডিমের চাহিদা তুঙ্গে। কম খরচে প্রোটিনের এমন সম্ভার আর কোনও খাবারে সে ভাবে নেই। কিন্তু খাওয়া ছাড়াও যে আরও নানা কাজে ডিমের ব্যবহার হতে পারে, সেটা কি জানেন?

১. ফেস ও হেয়ার মাস্ক: মুখের ত্বক আর চুল স্বাস্থ্যের আভায় ঝলমল করবে মাস্কের মাধ্যমে নিয়মিত ডিম ব্যবহার করতে পারলে৷ একটি ডিমের কুসুমের সঙ্গে খুব ভালো করে ফেটিয়ে নিন কয়েক চামচ মধু৷ মুখে লাগিয়ে ১০-১৫ মিনিট অপেক্ষা করে ধুয়ে ফেলুন৷ ডিমের কুসুমের লেসিথিন কাজ করে ময়েশ্চরাইজ়ার হিসেবে, মধুর অ্যান্টি ইনফ্ল্যামেটারি গুণ কমায় ত্বকের চুলকানি, জ্বালাভাব৷ অলিভ অয়েল আর ডিমের কুসুম একসঙ্গে মিশিয়ে মাথায় লাগালেও চুলের কন্ডিশনিং হয় ভালো৷ তবে রোজ নয়, মাঝে-সাঝে এই ট্রিটমেন্ট করবেন৷

২. রক্ত বন্ধ করতে: দুর্ঘটনাবশত কেটে গেলে দেখা যায় অনেক সময় রক্ত বন্ধ হতে চায় না। এ সময় ডিমকে কাজে লাগান। এমনিতে বাড়িতে ডিম মজুত থাকে প্রায় সকলেরই। সেদ্ধ ডিমের খোলা ও সাদা অংশের মাঝে যা পাতলা খোসা থাকে তা ছাড়িয়ে নিন। সেই খোসা ক্ষতস্থানে চেপে ধরে থাকলেই রক্ত বন্ধ হবে দ্রুত। এমনকি দ্রুত ক্ষতের দাগ মেলাতেও এটি বেশ কার্যকর।

৩. জুতো পরিষ্কারে: পুরনো চামড়ার জুতোর মধ্যে সাদা ঘোলাটে দাগ পড়ে যায়। ছত্রাকও জন্মাতে পারে। লকডাউনে জুতোর ব্যবহারই তো কমে এসেছে। ডিমের সাদা অংশ কাপড়ে নিয়ে ঘষে ঘষে পরিষ্কার করুন।

৪. ডি-অক্সিডাইজ়ার: রুপোর গয়না খুব তাড়াতাড়ি কালো হয়ে যায় বাতাসের অক্সিজেনের প্রভাবে৷ ডিমের কুসুমের গন্ধটাকে যদি তাড়ানোর ব্যবস্থা করা যায়, তা হলে কিন্তু তা ডি-অক্সিডাইজ়ার হিসেবে খুব ভালো কাজে দিতে পারে৷ কয়েকটা ডিম শক্ত করে সেদ্ধ করে খোসা ছাড়িয়ে কুসুমটুকু বের করে নিন৷ সেটা গুঁড়ো করে একটা পাত্রে রাখুন৷ কুসুমের উপর বিছিয়ে দিন পেপার টাওয়েল৷ তার উপর রুপোর গয়না রেখে পাত্রটা সিল করে দিন৷ এক-দেড়দিন পর গয়নাগুলো বের করে সুগন্ধি কোনও সাবান দিয়ে ধুয়ে ফেলুন৷

৫. আঠা হিসেবে: বাড়িতে আঠা ফুরিয়ে গিয়েছে? ময়দা, চিনি, ডিমের সাদা অংশ আর অল্প জল মিশিয়ে তৈরি করা যাবে আঠা। সেই আঠাই ব্যবহার করতে পারেন বিকল্প হিসেবে।

৬. প্রাথমিক ডাক্তারি: ধরুন কোনও পিকনিকে গিয়েছেন, আচমকাই খেলতে গিয়ে পড়ে গিয়েছে আপনার সন্তান৷ হাঁটু কেটে গিয়েছে, কিন্তু রক্ত বন্ধ করার উপযোগী কোনও ব্যান্ডেজ নেই হাতের কাছে৷ লাঞ্চ বক্স থেকে সেদ্ধ ডিম বের করে খোসা ছাড়িয়ে নিন৷ পুরো সেদ্ধ ডিমের সাদা আর খোসার মাঝে পাতলা সরের মতো একটা অংশ থাকে, সাবধানে সেটা তুলে লাগিয়ে দিন কাটার উপর৷ রক্ত তো বন্ধ হবেই, কাটার দাগটাও মিলিয়ে যাবে তাড়াতাড়ি৷ কোথাও ছড়ে গেলেও অল্প উষ্ণ সেদ্ধ ডিম ঘষতে পারেন জায়গাটার উপর, রক্ত জমবে না৷

৭. সার: ডিমের খোসা বা সেদ্ধ করে নেওয়ার পর যে জলটুকু পাত্রে পড়ে থাকে সেটা সার হিসেবে খুব ভালো কাজ করে৷ এগুলো ফেলে না দিয়ে বাগানে ব্যবহার করুন৷ ডিমের খোসা ক্যালশিয়াম জোগানোর পাশাপাশি পোকামাকড়কেও দূরে রাখবে আপনার গাছপালা থেকে৷

Check Also

ত্বকের উজ্জ্বলতা ফেরাবে সরিষার তেলের ফেসপ্যাক

যমুনা নিউজ বিডিঃ বাঙালির রান্নাঘরে সরিষার তেল থাকবে না এটা মানাই যায় না। প্রায় সব …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!
%d bloggers like this:

Powered by themekiller.com