Home / লাইফস্টাইল / লেবুর র‌সে কি করোনা দূর হয়!

লেবুর র‌সে কি করোনা দূর হয়!

যমুনা নিউজ বিডিঃ  লেবুর অনেক গুন। গরম পানিতে লেবু থেকে শুরু করে ত্বকের পরিচর্যা সবেতেই কাজে লাগে লেবু। লেবুতে প্রচুর ভিটামিন সি, ফাইবারসহ বিভিন্ন উপকারী উপাদান রয়েছে। এ ছাড়া রয়েছে ভিটামিন-বি, ফলিক এসিড, ম্যাগনেসিয়াম, ক্যালসিয়াম, পটাসিয়াম ও ফসফরাস। হৃৎপিন্ড সুস্থ রাখতে, ওজন কমাতে, হজমের জন্য লেবু খুবই উপকারী। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে অনেক রোগ দূর করতেও এর জুড়ি নেই।

টাটকা লেবুর খোসাতেও থাকে পুষ্টি। প্রচণ্ড গরমে ১ গ্লাস ঠাণ্ডা লেবুর শরবত দেহের জন্য অত্যন্ত উপকারী। এছাড়া নিমিষেই তা স্বস্তি এনে দেয়। লেবু ভিটামিন সি সমৃদ্ধ ফল। এই ভিটামিন দেহে সঞ্চিত অবস্থায় থাকে না, সেজন্য শিশু-বৃদ্ধ সবাইকে প্রতিদিনই ভিটামিন সি জাতীয় খাবার খাওয়া দরকার। জ্বর, সর্দি, কাশি ও ঠাণ্ডাজনিত সমস্যায় লেবু অত্যন্ত কার্যকর।

দেশে যে ধরনের লেবু পাওয়া যায় তার মধ্যে পাতিলেবু, বাতাবিলেবু, কাগজিলেবু উল্লেখযোগ্য। লেবুতে ভিটামিন-সি ছাড়াও রয়েছে ফ্ল্যাভনয়েডস ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। বিভিন্ন দেশে সালাদ, জুস, রান্না, রুপচর্চা এবং চিকিৎসাসহ নানা কাজে লেবু ব্যবহার হয়। এছাড়া ত্বকের রং ফেরাতে লেবু সবসময়ই ব্যবহার করা হয়। লেবুর সঙ্গে মধু মিশিয়ে চামড়ায় লাগান। এটি স্বাভাবিক ব্লিচের কাজ করবে ও ত্বক আরও উজ্জ্বল হবে।

সকালে ঘুম থেকে ওঠা থেকে শুরু করে রাতে ঘুমাতে যাওয়া লেবু আমাদের উপকার করতে পারে। ছোটোখাটো শরীর খারাপ থেকে শুরু করে সুস্থ থাকার সব গুণই রয়েছে লেবুর মধ্যে। সাইট্রাস ফল হিসেবে লেবুর এমন অনেক গুণের কথাই জানি আমরা। ম্যাজিকের মতো উপকার করে এক টুকরো লেবু। লেবু ব্যাকটেরিয়া ও ভাইরাস সৃষ্ঠ রোগ দূর করে এবং দেহে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।

রাতে ঘুমানোর আগে কয়েক টুকরো লেবু কেটে সেগুলোতে একটু লবণ ছিটিয়ে আপনার বিছানার পাশে বা জানালার পাশে রেখে দিন। এই পদ্ধতি এক ধরনের থেরাপির কাজ করবে। অনেক আগে থেকেই শক্তিশালী অ্যারোমা থেরাপি হিসেবে মনোযোগ বাড়াতে, স্ট্রেস লেভেল কমাতে লেবু ব্যবহৃত হয়। শ্বাস-প্রশ্বাস প্রক্রিয়া ভালো রাখতেও লেবু সাহায্য করে। তাই বিছানার পাশে বা ঘরে লেবু কেটে রাখলে তা এয়ার ফ্রেশনারের চাইতেও অনেক গুণে ভালো কাজ করবে। কারণ কেমিক্যাল সমৃদ্ধ এয়ার ফ্রেশনার আপনার মাথা ব্যথার কারণ হতে পারে। অন্যদিকে লেবুর গন্ধ আপনাকে প্রকৃতিগতভাবেই সতেজ রাখবে।

লেবুর টুকরো বিছানার পাশে রাখবেন যেসব কারণে। এটি ফুসফুসের জন্য উপকারী। সর্দির কারণে নাক বন্ধ হয়ে ঘুমের ব্যাঘাত ঘটলে, লেবুর গন্ধ ঐ সমস্যা দূর করে করবে। এছাড়াও তা সংক্রমণ দূরে সাহায্য করে।

স্ট্রেস কমাতে সাহায্য করে। রাতে ঘুমানোর আগে আপনার বিছানার পাশে লেবুর টুকরো রাখার আরেকটি বিশেষ উপকার হলো লেবুর গন্ধ স্ট্রেস দূর করতে পারে। আপনার মানসিক চাপ কমিয়ে আপনাকে ফুরফুরে রাখতে পারে লেবুর গন্ধ। এর ফলে শরীর ও মন সতেজ হয়, ফলে রাতের ঘুমটাও ভালো হয়।

লেবু পোকামাকড় দূর করে। ঝাঁঝালো গন্ধের কারণে লেবু খুব সুফলদায়ক। প্রাকৃতিক রিপিলেন্ট হিসেবে এটি মশাসহ অন্যান্য পোকামাকড় দূর করে। তাই লেবুর টুকরো বিছানার কাছে রেখে অনেকটা নির্বিঘ্নে ঘুমাতে পারবেনআপনি।

উচ্চ রক্তচাপ কমায় লেবু। গবেষণায় দেখা গেছে, লেবুর গন্ধ রক্তনালীগুলো সতেজ রেখে উচ্চ রক্তচাপ কমাতে সহায়তা করে।

এনার্জি বাড়ায় লেবু। রাতে শোয়ার ঘরে লেবুর টুকরো রাখলে সকালে ঘুম থেকে উঠে দারুণ সতেজ ও ফুরফুরে লাগে। লেবুর ঘ্রাণ মস্তিষ্কে সেরোটোনিন উৎপাদন হ্রাস করে, এতে রাতে ঘুম যেমন ভালো হয়, তেমনি মুডও ভালো থাকে।

রাতে বিছানার পাশে বা ঘরে রাখা লেবুর টুকরোগুলো সকালে সরিয়ে ফেলতে ভুলবেন না। কারণ ২৪ ঘণ্টা পরই লেবুর সেই কার্যকারিতা আর থাকে না। সেক্ষেত্রে ঐ লেবুর টুকরোগুলো মাইক্রোওয়েভ পরিষ্কার করতে অথবা ফেটে যাওয়া পায়ের গোড়ালি পরিষ্কার করতে ব্যবহার করতে পারেন।

Check Also

খাওয়ার পর যেসব কাজ করা উচিত নয়

যমুনা নিউজ বিডিঃ আমরা যা খাই, তার প্রভাব পড়ে আমাদের শরীরে। সঠিক নিয়ম মেনে সঠিক …

error: Content is protected !!
%d bloggers like this:

Powered by themekiller.com