Home / লাইফস্টাইল / রসুনের অনেক উপকারিতা জানেন কি?

রসুনের অনেক উপকারিতা জানেন কি?

যমুনা নিউজ বিডিঃ  রসুনের ঝাল ঝাল ভর্তা দিয়ে একথালা গরম ভাত নিমিষেই শেষ করে দিতে পারেন ভোজনরসিক বাঙালিরা। এছাড়াও মাংস ভূনা করবেন? রসুন প্রয়োজন। মাছ ভাজা, শুঁটকি ভুনা? তাতেও প্রয়োজন রসুন। রসুন এমন এক মশলা যার ঘ্রাণেই আপনার ক্ষুধার উদ্রেক হবে। কিন্তু মুখে গন্ধ হওয়ার ভয়ে কাঁচা রসুন এড়িয়ে চলেন অনেকেই। কিন্তু একটু কষ্ট করে খালি পেটে রসুন খেলে মেলে অনেক উপকারিতা ।
আর আপনার যদি কাঁচা রসুন খাওয়ার অভ্যাস থাকে তবে আপনি তুলনামূলকভাবে অন্যদের থেকে বেশি সুস্থ।‘ইউনিভার্সিটি অফ হেলথ এন্ড মেডিক্যাল সায়েন্স’এর গবেষণার থেকে জানা গিয়েছে রসুনের উপকারিতা সম্পর্কে।
কাঁচা রসুন রোজ খেলে ক্যান্সার হবার সম্ভাবনা অনেক কমে যায়। কোলন ক্যান্সার, স্তন ক্যান্সার, গলব্লাডার ক্যান্সার, নানা প্রকার ক্যান্সার হবার সম্ভাবনা কম থাকে। কাঁচা রসুনকে ক্যান্সার প্রতিরোধক বলা যেতে পারে।আমাদের শরীরের রক্ত পরিষ্কার রাখার কাজে সাহায্য করে রসুন। তাই মুখে বা ত্বকে নানা র্যাশ, চুলকানি প্রায়শই যদি ব্লাড ইমপিয়োরিটির কারণে হয়, তাহলে প্রতিদিন রসুন খেতে পারেন। রোজ দুইকোয়া রসুনই এর জন্য যথেষ্ট।
সকালে এই কাঁচা রসুনের সঙ্গে খেতে হবে প্রচুর পানি।নিয়মিত রসুন খেলে রক্তচাপ স্বাভাবিক থাকে। যাদের হাই প্রেসার আছে তারা প্রতিদিন এক কোয়া রসুন খেলে তাদের রক্তচাপ স্বাভাবিক মাত্রায় থাকে। হৃদপিণ্ডের ব্যথা-জনিত সমস্যা থাকলে কাঁচা রসুন খুবই উপকারি এর জন্য।
রসুন হৃদপিণ্ডের চলাচলের স্বাভাবিকতা বজায় রাখে।শরীরের টক্সিন বের করতেও সাহায্য করে রসুন। এক গ্লাস হালকা গরম পানিতে অর্ধেকটা লেবুর রস আর দু’কোয়া রসুন কুচি গুলে খেলে শরীর থেকে বেরিয়ে যায় ক্ষতিকর টক্সিন।চুলের সমস্যায় বর্তমানে অধিকাংশ মানুষ জর্জরিত। কম বয়সে চুল পরে যাচ্ছে।
তাছাড়া চুলের অন্য সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে রসুন ব্যবহার করতে পারেন। চুলের পরিমান অনুযায়ী কাঁচা রসুনবাটা চুলে ঘণ্টাখানেক লাগিয়ে রাখুন। ঠাণ্ডা জলে চুলে স্যম্প করে নিন। সপ্তাহে দুবার করলে শীঘ্রই ফলাফল পাওয়া যায়।ঠান্ডার সমস্যায় রসুন খুবই উপকারী। গার্লিক টি বানিয়ে খেতে পারেন। গরম পানিতে থেঁতো করা রসুন ফুটিয়ে নিয়ে, তারপর ছেঁকে পান করতে হবে। আবার প্রথম পাতে গরম ভাতের সঙ্গে ঘিয়ে ভাজা রসুন খেতে পারেন।
ঠান্ডা লাগা তো কমবেই, সাইনাসাইটিসের কষ্ট থেকেও রেহাই মিলবে।পুড়ে যাওয়া বা ফোসকা পরলে রসুন ঘরোয়া ওষুধের কাজ করে। রান্না করতে করতে অনেক সময় বেখেয়ালে হাত পুড়ে যায় বা তেল ছিটে ফোসকা পরে। এরকম হলে এবার থেকে রসুন ব্যবহার করতে পারেন।ব্রণ হলে ব্রণের মুখে রসুন কেটে খানিকক্ষণ ধরে রাখলে জ্বালা কমে। আবার ত্বকের কোলাজেন রক্ষা করতে সাহায্য করে ।
সুন নানাভাবে উপকার করে ঠিকই। কিন্তু অনেকের আবার রসুনে অ্যালার্জি থাকে। তাই যাদের অ্যালার্জি আছে তারা রসুন ব্যবহার করার আগে ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে নেবেন। বেশি রসুন খাওয়া ভালো না। শরীর গরম হয়ে যায়, মুকে গন্ধ ছড়ায়। রোজ ২ কোয়ার বেশি কাঁচা রসুন না খাওয়াই ভালো।

Check Also

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে সহায়ক নিম চা

যমুনা নিউজ বিডিঃ আন্তর্জাতিক ডায়াবেটিস ফেডারেশনের অনুসারে, গোটা বিশ্বে ৪৬ কোটি মানুষ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত। ধারণা …

error: Content is protected !!
%d bloggers like this:

Powered by themekiller.com