Home / খেলাধুলা / বিশ্রাম নিতে রাজি হননি মেসি

বিশ্রাম নিতে রাজি হননি মেসি

যমুনা নিউজ বিডিঃ  দুই মৌসুম পর হাতছাড়া হয়েছে লা লিগা শিরোপা, জেতা সম্ভব হয়নি স্প্যানিশ কোপা দেল রে’র ট্রফিও। এখনও পর্যন্ত ২০১৯-২০ মৌসুমটি ট্রফিলেসই রয়েছে স্পেনের অন্যতম সেরা ক্লাব বার্সেলোনার। তবে লিওনেল মেসি, লুইস সুয়ারেজদের সুযোগ রয়েছে বিবর্ণ মৌসুমটিকে উৎসবের রঙে রাঙিয়ে নেয়ার। ইউরোপিয়ান ক্লাব ফুটবলের শ্রেষ্ঠত্বের আসর উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ শিরোপা জেতার সুযোগ এখনও রয়ে গেছে মেসিদের সামনে। নাপোলির বিপক্ষে শেষ ষোলোর দ্বিতীয় লেগের ম্যাচে ৩-১ গোলে জয়ের পর ফুরফুরে মেজাজেই রয়েছে বার্সা। তবে কোয়ার্টারে তাদের প্রতিপক্ষ শক্তিশালী জার্মান ক্লাব বায়ার্ন মিউনিখ।

এই কয়েক মৌসুম আগেই চ্যাম্পিয়নস লিগে দুই লেগ মিলে বার্সেলোনাকে ৭ গোল দিয়েছিল বায়ার্ন। এবার করোনার কারণে কোয়ার্টার থেকে বাকি রাউন্ডগুলো হবে এক লেগেই। এই এক ম্যাচের নকআউট জিততে প্রস্তুতির ঘাটতি রাখতে চান না বার্সা অধিনায়ক মেসি। নাপোলির বিপক্ষে জেতার পর সোমবার একদিনের ছুটি দেয়া হয়েছিল বার্সেলোনার সকল খেলোয়াড়দের। কিন্তু সেই বিশ্রাম নিতে রাজি হননি মেসি। বরং নিজের ফিটনেস ও স্বাস্থ্যের অবস্থা জানতে ঠিকই হাজির হয়েছিলেন ক্লাবের ট্রেনিং গ্রাউন্ড হুয়ান গাম্পার কমপ্লেক্সে। যেখানে সময় কাটিয়েছেন ক্লাব ডাক্তারদের সঙ্গে। শনিবার রাতে শেষ ষোলোর ম্যাচটিতে দর্শনীয় এক গোল করেছিলেন মেসি। এরপর করেন আরও একটি, বাতিল হয়ে যায় অফসাইডে। এর খানিক পরেই কালিদু কৌলিবালির ট্যাকলে গোড়ালিতে আঘাত পান মেসি। সেটির অবস্থা পরীক্ষা করতেই সোমবার হুয়ান গাম্পার কমপ্লেক্সে যান মেসি। মেডিক্যাল স্টাফদের সঙ্গে প্রায় দেড় ঘণ্টার মতো সময় কাটিয়েছেন বার্সা অধিনায়ক। ক্লাব সূত্র থেকে জানা গেছে পায়ের ইনজুরিটি গুরুতর কিছু নয়। তবু সতর্কতামূলকভাবে চেকআপ করা হয়েছে মেসির। আগামী শুক্রবার রাতে বায়ার্ন মিউনিখের বিপক্ষে কোয়ার্টার ফাইনালের লড়াইয়ে নামবে বার্সেলোনা। সে ম্যাচের জন্য মঙ্গলবার থেকে শুরু হবে দলের অনুশীলন। বৃহস্পতিবার সকালে ম্যাচের ভেন্যু লিসবনের উদ্দেশে যাত্রা শুরু করবে স্প্যানিশ ক্লাবটি।

Check Also

সুপার ওভারে জয় ব্যাঙ্গালুরুর

যমুনা নিউজ বিডিঃ চলতি আইপিএলের দ্বিতীয় সুপার ওভার। যেখানে বাজিমাত করে দিল বিরাট কোহলির রয়েল …

error: Content is protected !!
%d bloggers like this:

Powered by themekiller.com