Home / সারাদেশ / বগুড়া / বিএনপির আপোষহীন নেত্রী এখন প্যারোলে মুক্তির পথ খুঁজছে -মজিবর রহমান মজনু

বিএনপির আপোষহীন নেত্রী এখন প্যারোলে মুক্তির পথ খুঁজছে -মজিবর রহমান মজনু

স্টাফ রিপোর্টারঃ বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জননেতা মজিবর রহমান মজনু বলেছেন, মুজিব নগর সরকারই বাংলাদেশের প্রথম সরকার। যদিও একে অস্থায়ী সরকার অথবা মুক্তিযুদ্ধকালীন সরকার হিসেবে অভিহিত করা হয়। বাংলাদেশের সংবিধানের মূল কাঠামো সৃষ্টির উৎপত্তিস্থল হলো মুজিব নগর সরকার। যা বাংলাদেশকে একটি স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে প্রতিষ্ঠা করতে সক্ষম হয়েছে। বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে জাতীয় চার নেতার অবদান এক্ষেত্রে অনস্বীকার্য। অথচ বিএনপির কিছু কুলাঙ্গার জেনারেল জিয়াউর রহমানকে প্রথম রাষ্ট্রপতি হিসেবে ইতিহাস বিকৃতির অপচেষ্টা করে। যা দেশ ও জাতির জন্য অপমানকর। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের জন্য অবমাননাকর। তারা সবসময় মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধ্বংস করার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। তারা বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে আপোষহীন নেত্রী দাবি করে। অথচ সেই আপোষহীন নেত্রী এখন প্যারোলে মুক্তির পথ খুঁজছে। দুর্নীতির মামলায় অভিযুক্ত হওয়ার পরও তারা তার মুক্তি দাবি করে। গণতন্ত্র-গণতন্ত্র বলে দিনরাত চিৎকার করে। অথচ তারাই বন্দুকের নল দিয়ে ক্ষমতায় এসেছিল। এরাই রাজাকারদের বাংলাদেশে প্রতিষ্ঠিত করেছিল। এসব অপশক্তিই বাংলাদেশকে অকার্যকর রাষ্ট্রে পরিণত করেছিল। বাংলাদেশের ভালো তাদের সহ্য হয় না। বাংলাদেশের উন্নয়নে তাদের মন ভরে না। তারা চায় যে কোন মূল্যে রাষ্ট্র ক্ষমতা। যা আর ভবিষ্যতে সফল নাও হতে পারে। গতকাল বুধবার সকাল ৮টায় বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে দলীয় কার্যালয়ের সামনে মুজিব নগর দিবসের তাৎপর্য তুলে ধরে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথাগুলি বলেন। সভায় সভাপতিত্ব করেন বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ডা. মকবুল হোসেন। এছাড়াও বক্তব্য রাখেন এড. তোফাজ্জাল হোসেন দুলু, এড. আব্দুল মতিন, এড. মকবুল হোসেন মুকুল, এড. আমানুল্লাহ, রাগেবুল আহসান রিপু, টি.জামান নিকেতা, আসাদুর রহমান দুলু, শাহরিয়ার আরিফ ওপেল, এড. জাকির হোসেন নবাব, সুলতান মাহমুদ খান রনি, শেরিন আনোয়ার জর্জিস, এড. শফিকুল আলম আক্কাস, কামরুন্নাহার পুতুল, সাগর কুমার রায়, এস.এম রুহুল মোমিন তারিক, এ.বি.এম জহুরুল হক বুলবুল, মাশরাফী হিরো, আলরাজী জুয়েল, তপন চক্রবর্তী, এড. মন্তেজার রহমান মন্টু, শাহাদৎ হোসেন শাহীন, অধ্যক্ষ খাদিজা খাতুন শেফালী, আলমগীর বাদশা, আব্দুস সালাম, শুভাশীষ পোদ্দার লিটন, আমিনুল ইসলাম ডাবলু, মঞ্জুরুল হক মঞ্জু, আসলাম হোসেন, নাসিমুল বারী নাসিম প্রমুখ। এর আগে সকাল সাড়ে ৭টায় জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন ও সকাল পৌনে ৮টায় বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়।

Check Also

কুলাউড়ায় বিদ্যালয়ের উন্নয়ন কাজে অনিয়মের অভিযোগ

যমুনা নিউজ বিডি: কুলাউড়া উপজেলার কাদিপুর ইউনিয়নের মহতোছিন আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের উন্নয়ন কাজে ব্যাপক অনিয়মের …

Powered by themekiller.com