Breaking News
Home / অর্থনীতি / বন্ড নিয়ে দুশ্চিন্তায় কেন্দ্রীয় ব্যাংক

বন্ড নিয়ে দুশ্চিন্তায় কেন্দ্রীয় ব্যাংক

যমুনা নিউজ বিডিঃ সরকারি বন্ডের ‘সুদ আয়ের’ ওপর উৎসে কর আরোপের কারণে নেতিবাচক প্রভাব পড়বে বেসরকারি বিনিয়োগে। এতে আবারও বাড়বে ব্যাংক ঋণের সুদের হার। পাশাপাশি ঋণ গ্রহণের ক্ষেত্রে সরকারের ব্যাংকনির্ভরতা বেশি হবে। সার্বিকভাবে বেড়ে যাবে সরকারের ব্যয়ও। এছাড়া উৎসে কর কর্তনে দেশে বন্ড মার্কেট উন্নয়নে বড় অন্তরায় হিসেবে কাজ করবে। অনেক বিনিয়োগকারী বন্ড কিনতে নিরুৎসাহিত হবেন। এমন আশঙ্কার কথা তুলে ধরে অর্থ মন্ত্রণালয়কে চিঠি দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। ওই চিঠিতে সরকারি সিকিউরিটিজে (বন্ড) সুদ আয়ের ওপর উৎসে কর কর্তন প্রত্যাহারের অনুরোধ জানানো হয়েছে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে পাওয়া গেছে এসব তথ্য।

চিঠিতে আরও বলা হয়, এসব উদ্যোগের ফলে বাজারে বিনিয়োগকারী কমে গেলে সরকারি বন্ডের চাহিদাও উল্লেখ্যযোগ্যভাবে হ্রাস পেতে পারে। আর বন্ডের চাহিদা কমে গেলে সরকারের কাছে ব্যাংক ঋণের চাহিদা বাড়বে। এতে ঋণের সুদের হারও ফের উল্লেখ্যযোগ্য হারে বাড়তে পারে মর্মে প্রতীয়মান হয়। এতে সরকারের কস্ট অব ফান্ড ব্যাপক হারে বৃদ্ধি পাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

অর্থ মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, একসময় শুধু ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান সরকারি বন্ড ক্রয় করত। এজন্য ব্যাংক ঋণ দেয়ার ক্ষেত্রে বেসরকারি খাতের চেয়ে অগ্রাধিকার দেয়া হতো সরকারকে। এটি বিবেচনায় নিয়ে বন্ডের বাজার সম্প্রসারণের উদ্যোগ নেয় অর্থ মন্ত্রণালয় এবং বাংলাদেশ ব্যাংক। পরবর্তী সময়ে বীমা প্রতিষ্ঠান, ভবিষ্যতহবিল, মিউচ্যুয়াল ফান্ড, নন-ব্যাংক আর্থিক প্রতিষ্ঠান, কর্পোরেট প্রতিষ্ঠান, পেনশন তহবিলসহ নানা ব্যক্তি ও প্রাতিষ্ঠানিকে বন্ড কেনার জন্য অর্ন্তভুক্ত করা হয়। এছাড়া অনিবাসী বা বিদেশি ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান শুধু ট্রেজারি বন্ড কিনতে পারেন। ফলে বাজারে বিনিয়োগকারী বৃদ্ধির কারণে এর চাহিদাও বেড়ে যায়। চাহিদার কারণে সরকারের কস্ট অব ফান্ড উল্লেখযোগ্য হারে কমেছে। যেমন ৬ বছর আগে ২০ বছর মেয়াদি ট্রেজারি বন্ডের সুদ হার ছিল ১৫ দশমিক ৫০ শতাংশ। এখন সেটি ৯ শতাংশ। প্রসঙ্গত, বন্ড ইস্যু করে ঋণ নেয়া হয়। বন্ডের ক্রেতা হচ্ছেন ঋণদাতা। আর বন্ড ইস্যুকারী ঋণগ্রহীতা। শেয়ারের মতো বন্ডেরও প্রাইমারি ও সেকেন্ডারি মার্কেট আছে। সরকার যে বন্ড বাজারে ছাড়ে তাকে ট্রেজারি বন্ড বলে।

Check Also

খুচরা পর্যায়ে আলুর দাম ৩৫ টাকা নির্ধারণ

যমুনা নিউজ বিডিঃ খুচরা পর্যায়ে এককেজি আলুর দাম ৩৫ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। কৃষি বিপণন অধিদপ্তরের …

error: Content is protected !!
%d bloggers like this:

Powered by themekiller.com