Home / সারাদেশ / বগুড়া / বগুড়া সদর উপজেলার সার্বিক উন্নয়নের স্বার্থে নৌকা মার্কায় ভোট দিন -শফিক

বগুড়া সদর উপজেলার সার্বিক উন্নয়নের স্বার্থে নৌকা মার্কায় ভোট দিন -শফিক

স্টাফ রিপোর্টারঃ সন্ত্রাস, দূর্নীতি, মাদক, বাল্যবিবাহ সহ অপরাধ মুক্ত আধুনিক সমৃদ্ধ সদর উপজেলা গঠন করতে চান আবু সুফিয়ান সফিক। সরকারের উন্নয়ন কর্মসুচির সফল বাস্তবায়ন, সদর উপজেলার সার্বিক উন্নয়নের স্বার্থে দলমত নির্বিশেষে ঐক্যবদ্ধ হয়ে উন্নয়নের প্রতিক নৌকা মার্কায় ভোট দেয়ার জন্য সবার প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন তিনি। শনিবার বিকেলে বগুড়া প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেন আওয়ামী লীগ মনোনীত উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী ও সদর উপজেলা আ’লীগের সভাপতি আবু সুফিয়ান সফিক। লিখিত বক্তব্য পাঠকালে তিনি বলেন, ১৮ মার্চ উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ আমাকে সদর উপজেলার চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দেয়ার পর থেকেই দলের সর্বস্তরের নেতাকর্মী, আইনজীবি, চিকিৎসক সমাজ, পরিবহন মালিক শ্রমিক সহ পেশাজীবি, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দদের সাথে নিয়ে মাঠে প্রচারনা চালিয়েছি। সদর উজেলার সর্বস্তরের মানুষের অকুন্ঠ সমর্থন আমাকে কৃতজ্ঞতার বন্ধনে আবদ্ধ করেছে। উন্নয়নের প্রতিক, মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসীদের প্রতিক নৌকা মার্কার পক্ষে সদর উপজেলায় গনজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। জননেত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন এগিয়ে নিতে বগুড়া সদরবাসী ১৮ তারিখে নৌকা প্রতিকে ভোট প্রদান করে আমাকে বিজয়ী করবেন বলে তিনি প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন। তিনি বলেন, পর পর ২ বার শাখারিয়া ইউপির চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হয়েছিলাম। উন্নয়নের ছোঁয়ায় বদলে গেছে শাখারিয়া ইউনিয়ন। জনগনের কল্যাণ চিন্তা করে নিরলসভাবে কাজ করেছি বলেই ২০১৬ সালের নির্বাচনে আবারো বিজয়ী হয়েছি। ইউনিয়নের বিভিন্ন রাস্তার সংস্কার, নতুন রাস্তা নির্মান, রাস্তায় ইট বিছানোর কাজ, কালভার্ট নির্মান, পানি নিস্কাশনের জন্য ড্রেনেজ ব্যবস্থা নির্মান করেছি। দরিদ্র জনগোষ্টিকে স্বনির্ভর করতে বিভিন্ন কর্মসূচী বাস্তবায়ন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন, এলাকার সন্তানদের শিক্ষিত করে গড়ে তুলতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে উপস্থিতি নিশ্চিত করতে পদক্ষেপ নিয়েছি। ইউনিয়নবাসীকে কর প্রদানে উৎসাহিত করতে কর মেলা, ইউনিয়নের বাজেট জনসম্মুখে তুলে ধরতে উন্মুক্ত বাজেট ঘোষনা, জনগনের টাকা দিয়ে জনগনের কল্যাণ আর ইউনিয়ন পরিষদের সকল কর্মকান্ডে জবাবদিহিতা স্বচ্ছতা নিশ্চিত করা সহ বাল্য বিবাহ প্রতিরোধ, নারী ও শিশু নির্যাতনের বিরুদ্ধে বলিষ্ঠ ভূমিকার কারনে শাখারিয়া ইউনিয়নে শান্তির সু-বাতাস বইছে। ইনশাল্লাহ্ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিজয়ী হলে আধুনিক নাগরিক সুবিধা জনগনের দ্বারপ্রান্তে পৌছে দিব। সকল এলাকায় সম্মানিত ব্যক্তিবর্গের পরামর্শক্রমে উন্নয়ন কাজ সম্পন্ন করবো। জননেত্রী শেখ হাসিনার গ্রামকে শহরে পরিনত করার কর্মসুচির সফল বাস্তবায়ন হবে নৌকার বিজয়ের মধ্য দিয়ে। পাশাপাশি বগুড়ার সার্বিক উন্নয়নে পদক্ষেপ নেয়া হবে। বগুড়া পৌরসভাকে সিটি কর্পোরেশনে উন্নিতকরণ, বগুড়া-সিরাজগঞ্জ রেললাইন নির্মান কাজ দ্রুত সম্পন্ন করতে পদক্ষেপ, বগুড়া অর্থনৈতিক জোন বাস্তবায়ন, নির্মানাধীন ফোরলেন সড়ক দ্রুত বাস্তবায়ন, বগুড়া বিমানবন্দর পূর্নাঙ্গভাবে চালুকরনে পদক্ষেপ, ইউনিয়ন পর্যায়ের সকল রাস্তা পাকাকরণ, শহরের সকল ওয়ার্ডের রাস্তা সংস্কার সহ পাকাকরণ, বর্ধিত ওয়ার্ডে নাগরিক সুবিধা নিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহন করবো। শিক্ষার হার শতভাগ করার লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ, ইভটিজিং, নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধ, বাল্যবিবাহ বন্ধ করতে উদ্যোগ নেয়া হবে। মাদক প্রতিরোধ করা সহ তরুন সমাজকে খেলাধুলার প্রতি আগ্রহী করতে উদ্যোগ নেয়া হবে। উপজেলার সকল এলাকায় বিদ্যুতের ব্যবস্থা, সহ সৌর বিদ্যুতের আলোয় আলোকিত করা হবে। সরকারী বরাদ্দ সুষ্ঠ বন্টনসহ অধিক বরাদ্দ নিশ্চিত করে সদর উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলে উন্নয়নের সুফল পৌছে দিব ইনশাল্লাহ।
বগুড়া জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক, শাহ্ সুলতান কলেজ ছাত্র সংসদ (শাকসুর) সাবেক জিএস হিসেবে আবু সুফিয়ান সফিক বর্তমানে জনতা মহাবিদ্যালয়ের সভাপতি, সদর উপজেলা বিআরডিবি’র চেয়ারম্যান, আওয়ামীলীগ বগুড়া সদর উপজেলা শাখার সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন বলে উল্লেখ করে জানান, ক্ষমতাসীন দলের নেতা হলেও চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালনকালে তার দ্বারা কোন রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মী হয়রানীর শিকার হয়নি। তার প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী একটি রাজনৈতিক দলের নেতা হলেও দলীয় সিদ্বান্ত না মেনে প্রার্থী হওয়ায় বহিস্কৃত হয়েছেন। মুখে আদর্শের কথা বললেও নিজে দলীয় আদর্শ পায়ের নিচে ফেলে দলের সিদ্বান্তের বিরুদ্ধে প্রার্থী হয়েছেন। যে দল তাকে সমর্থন করেনি, জনগন কেন করবে ? তিনি নিশ্চিত পরাজয় জেনেই মিথ্যাচার করে ভোটারদের সমর্থন আদায়ের অপচেস্টা করছেন বলে সফিক অভিযোগ করেন। তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তির সরকারের নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। গ্রামকে শহর আর শহরকে আরো সমৃদ্ধ করতে সরকার উদ্যোগ নিয়েছেন। উন্নয়নের সুফল জনগনের দ্বারপ্রান্তে পৌছে দিতে স্থানীয় সরকারের প্রতিনিধি নির্বাচন প্রক্রিয়া চলছে। বর্তমান সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা উন্নয়নের সুফল তৃণমূল পর্যায়ের মানুষের দ্বোরগোড়ায় পৌছে দিতে চায়। আর এজন্য প্রয়োজন সরকারী দল মনোনীত নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি। বগুড়া সদর উপজেলাবাসীর উন্নয়নে সঠিক সিদ্বান্ত নেয়ার এখনই সময়। সরকারের দায়িত্বশীলদের কাছে সদরবাসীর সুখদুখের কথা পৌছাতে, সরকারী সুযোগ সুবিধা পেতে, সরকারের উন্নয়ন কর্মসুচি সফল করতে সরকারীদলের প্রার্থীর বিজয়ের বিকল্প নাই। তিনি সরকারের উন্নয়ন কর্মসুচির সফল বাস্তবায়ন, সদর উপজেলার সার্বিক উন্নয়নের স্বার্থে দলমত নির্বিশেষে ঐক্যবদ্ধ হয়ে উন্নয়নের প্রতিক নৌকা মার্কায় ভোট দেয়ার জন্য সদর উপজেলাবাসীর প্রতি অনুরোধ জানান। সংবাদ সম্মেলনে জেলা আ’লীগের প্রচার সম্পাদক সুলতান মাহমুদ খান রনি, সদর আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক মাফুজুল ইসলাম রাজ, পৌর আ’লীগের যুগ্ম আহবায়ক শাহাদত হোসেন শাহীন, শেখ শামীম, জেলা শ্রমিকলীগ সভাপতি আব্দুস সালাম সহ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Check Also

স্টাইলে চুল কাটলেই ৪০ হাজার টাকা অর্থদন্ড

যমুনা নিউজ বিডিঃ টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে হেয়ার স্টাইলে চুল কাটাসহ দাঁড়ি ও গোঁফ মডেলিংয়ের ওপর সরকারিভাবে …

Powered by themekiller.com