Breaking News
Home / সারাদেশ / বগুড়া / বগুড়া শেরপুরে বিশ্ব ভালবাসা দিবস উপলক্ষে ভালবাসার ছোয়ায় মেতে উঠেছে ফুলবাজার

বগুড়া শেরপুরে বিশ্ব ভালবাসা দিবস উপলক্ষে ভালবাসার ছোয়ায় মেতে উঠেছে ফুলবাজার

ঊর্মি আক্তার:ফাগুনের রং লেগেছে আজ সব বাঙালীদের মনে।ফুলে ফুলে রাঙা আর বাসন্তী মোহে মুগ্ধ আজ বাঙালী। চারিদিকে আজ উৎসবের আমেজ।
ফুলে ফুলে সাজিয়েছে চারদিক।
আজ ১৪ ফেব্রুয়ারী ঋতুরাজ বসন্তের দ্বিতীয় দিন। বিশ্ব ভালবাসা দিবস। ভালবাসা দিবসে আমরা ফুল দিয়ে প্রিয় মানুষ গুলোকে বরন করে নেই,,শুভেচ্ছা জানাই।
ভালবাসা ও ভাললাগার সঙ্গে ফুল নামক উপকরনটি অঙ্গাঅঙ্গী ভাবে জড়িত। ফুলকে ভালবাসেনা এমন লোক পৃথিবীতে নাই।সবাই ফুলকে ভালবাসে। ফুল ভালবাসার প্রতিক।“বিশ্ব ভালবাসা দিবস” বা “ভ্যালেন্টাইন ডে” সারাবিশ্বের কোটি কোটি প্রেমিক যুগল ও ভালবাসার মানুষদের জন্য একটি বিশেষ আকাঙ্খিত দিন। তবে বর্তমানে শুধু প্রেমিক যুগলদের জন্যই এ দিবসটি নয়, সব ধরনের ভালবাসার বহিপ্রকাশ করার দিবস এই দিন টি। ভালবাসা দিবস উপলক্ষে দিনটিকে রাঙাতে কতোই না আয়োজন। যার মূল অনুসঙ্গ রং-বেরঙের ফুল। তাই এই ভালবাসা দিবসকে কেন্দ্র করে কয়েকগুন বেড়ে যায় ফুলের চাহিদা। আজ ১৪ ফেব্রুয়ারী ভালবাসা দিবসকে সামনে রেখে গতকাল থেকেই বগুড়া জেলার শেরপুর উপজেলায় ব্যাসস্টান্ডের বিভিন্ন জায়গায় দেখা গেছে নিয়মিত ব্যবসায়ীদের পাশাপাশি অলিতে-গলিতে ফুলের পসরা সাজিয়ে বসেছে অনেকেই। গতকাল বিকেল থেকেই দেখা গেছে বিভিন্ন ফুলের দোকানে ভির লেগেই ছিল। সন্ধার পর থেকে ফুলের দোকান গুলোতে আরও উপচে পরা ভির লক্ষ করা গেছে। শেরপুরের বিভিন্ন জায়গা ঘুরে দেখা গেছে, ফুলের পসরা সাজিয়ে ফুল বিক্রি করছে বিভিন্ন অস্থায়ী ফুল বিক্রেতারা। এসব দোকানে মূলত গোলাপের চাহিদা থাকলেও গোলাপের পাশাপাশি বিক্রি হচ্ছে গাঁদা, রজনীগন্ধা, অর্কিট, বেলী, জিপ্সি যা প্রতি পিচ ১০ টাকা থেকে ৩০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। শেরপুর ব্যাসস্টান ফুল ব্যবসায়ী ,মিলন, বলেন, মূলত যশোরের গটখালী এলাকা থেকে ফুল আমদানী করে সারা বছর ব্যবসা করি।এবার প্রায় লক্ষ টাকার ফুল আমদানী করেছি।তিনি আরও বলেন, গতকাল যে পরিমান বিক্রি হয়েছে তার তুলনায় আজ ১৪ ফেব্রুয়ারী হিসেবে অনেকগুন বেশি বিক্রি হবে বলে আশা করছি।

Check Also

ঠাকুরগাঁওয়ে এমপিও ভুক্ত করার দাবিতে মানববন্ধন

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি: ঠাকুরগাঁওয়ে নন-এমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিও ভুক্ত করার দাবিতে মানব বন্ধন করেছে জেলার নন …

Powered by themekiller.com