Home / অপরাধ-আদালত / পুলিশ হেফাজতে মৃত্যুর ঘটনায় আজ প্রথম রায়

পুলিশ হেফাজতে মৃত্যুর ঘটনায় আজ প্রথম রায়

যমুনা নিউজ বিডিঃ পুলিশ হেফাজতে মৃত্যুর ঘটনায় আজ (বুধবার) প্রথম রায় দেবেন আদালত। ২০১৩ সালের ‘নির্যাতন ও হেফাজতে মৃত্যু নিবারণ আইন’ বেশ কয়েক বছর ধরেই বাতিল চাওয়া হচ্ছিল পুলিশের পক্ষ থেকে। আইনটি পাস হওয়ার সাত বছর পর এ আইনে প্রথম রায় হতে যাচ্ছে আজ।
রাজধানীর পল্লবী থানা হেফাজতে ইশতিয়াক হোসেন জনি নামে এক যুবককে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় পুলিশের তিন কর্মকর্তাসহ এ মামলার আসামি পাঁচজন। তারা হলেন- পল্লবী থানার তৎকালীন উপ-পরিদর্শক (এসআই) জাহিদুর রহমান জাহিদ, সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) রাশেদুল, এএসআই কামরুজ্জামান মিন্টু এবং পুলিশের সোর্স সুমন ও রাশেদ। আসামিদের মধ্যে এসআই জাহিদ ও সুমন কারাগারে থাকলেও বাকিরা জামিনে আছেন।
আদালত সূত্রে জানা গেছে, রাষ্ট্র ও আসামিপক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে গত ২৪ আগস্ট ঢাকার মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশ রায়ের এ দিন ধার্য করেন। তার আগে গত ৯ ফেব্রুয়ারি এ মামলার আসামিরা আত্মপক্ষ সমর্থন করে বক্তব্য রাখেন। এরপর গত ১৯ ফেব্রুয়ারি থেকে এ মামলার যক্তিতর্ক উপস্থাপন শুরু হয়। করোনা পরিস্থিতির কারণে বেশকিছু দিন যুক্তিতর্ক বন্ধ ছিল। আগস্ট মাসে নিয়মিত আদালতের কার্যক্রম আবার শুরু হলে গত ২৪ আগস্ট এ মামলার যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষ হয়। ঢাকার মহানগর দায়রা জজ আদালতের অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর তাপস কুমার পাল বলেন, আমরা রাষ্ট্রপক্ষে এ আসামিদের বিরুদ্ধে যাবতীয় সাক্ষ্যপ্রমাণ উপস্থাপন করেছি। আশা করছি, আসামিদের সর্বোচ্চ শাস্তি হবে।
অপরদিকে এ মামলার আসামিপক্ষে আইনজীবী ফারুক আহাম্মদ বলেন, আসামিরা রাষ্ট্রীয় দায়িত্বপালন করছিলেন। জনি হৃদরোগে মারা গেছেন বলে ময়নাতদন্ত প্রতিবেদনে এসেছে। এখানে নির্যাতনের ঘটনা ঘটেনি। আমরা আশা করছি, আসামিরা এ মামলায় খালাস পাবেন।

 

Check Also

জাহালমকে ১৫ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে নির্দেশ

যমুনা নিউজ বিডিঃ নিরপরাধ পাটকল শ্রমিক জাহালমকে আসামি করে ঋণ জালিয়াতির ২৬ মামলায় জড়ানোয় তাকে …

error: Content is protected !!
%d bloggers like this:

Powered by themekiller.com