Home / সারাদেশ / পদ্মা গিলছে দখলদাররা

পদ্মা গিলছে দখলদাররা

যমুনা নিউজ বিডি:  কোথাও খুঁটি পুঁতে, কোথাও বাঁশ গেড়ে, আবার কোথাও পাকা ভবন করে দখল করা হয়েছে পদ্মা নদীর তীর। দখলদাররা তীর ছেড়ে নদীর বুকও দখল করতে শুরু করেছে। রাজশাহী নগরী ঘেঁষে পদ্মা দখলের এ চিত্র নতুন নয়। অন্তত এক যুগ ধরেই চলছে। কিন্তু নতুন হলো এখন দখলের মাত্রা আরো বেড়েছে। তীর ছেড়ে নদীর মূল অংশেও দখলদারদের থাবা পড়েছে।

আর দখলদারদের তালিকায় যোগ হয়েছে রাজশাহী সিটি করপোরেশনের নাম। সরকারি দলের স্থানীয় নেতাকর্মীরা তো আছেই।

রাজশাহী পানি উন্নয়ন বোর্ডের ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী প্রকৌশলী সুমন হোসেন  বলেন, ‘পদ্মা যেভাবে দখল হচ্ছে, তাতে মনে হয় কেউ কেউ এটিকে গিলে খাচ্ছে। আমরা দখল রোধে নানা উদ্যোগ নিয়েও সফল হতে পারছি না।’ তিনি বলেন, ‘সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোই যখন এ কাজে লিপ্ত হয়, তখন আমাদের আর কিছু করার থাকে না। তবু আমরা চেষ্টা করছি পদ্মার তীর বা পদ্মাকে দখলমুক্ত রাখার জন্য।’

রাজশাহীর সচেতন মহল চাইছে, পদ্মাতীর থেকে শুরু করে নদীর বুকে যেসব অবৈধ স্থাপনা গড়ে তোলা হয়েছে, দ্রুত সেগুলো উচ্ছেদ করা হোক। তা না হলে পদ্মার দশা বুড়িগঙ্গার মতো হতে বেশি দিন লাগবে না। এরপর হয়তো প্রশাসনের নজরে আসবে। কিন্তু ততক্ষণে অনেক দেরি হয়ে যাবে।

রাজশাহী সংগ্রাম পরিষদের সাধারণ সম্পাদক জামাত খান বলেন, ‘আমরা একসময় আন্দোলন করেছি পদ্মায় পানি ধরে রাখা নিয়ে। এখন হয়তো আন্দোলনে নামতে হবে দখলদারদের হাত থেকে পদ্মা রক্ষার দাবিতে। এমনিতেই পদ্মায় পানি থাকে না, এর ওপর দিনের পর দিন দখলের কারণে পদ্মা এখন মৃতপ্রায়।’

সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, নগরের বুলনপুর থেকে শুরু করে একেবারে শ্যামপুর পর্যন্ত প্রায় ১০ কিলোমিটারজুড়ে পদ্মাতীর দখল করে নানা ধরনের অবৈধ স্থাপনা গড়ে উঠেছে। সম্প্রতি যেসব স্থাপনা হয়েছে তার বেশির ভাগ ফাস্ট ফুডের দোকান বা রেস্টুরেন্ট। ‘কফি বার’, ‘সীমান্ত নোঙ্গর’, ‘সীমান্ত অবকাশ’ ইত্যাদি নামে খোলা হয়েছে ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান।

Check Also

বগুড়ায় শিক্ষক কর্মচারী ঐক্যজোটের মানব বন্ধন

ষ্টাফ রিপোর্টারঃ শিক্ষক কর্মচারী ঐক্যজোট বগুড়া জেলা শাখার আয়োজনে মঙ্গলবার শহরের সাতমাথায় মানব বন্ধন কর্মসূচী …

Powered by themekiller.com