Home / সারাদেশ / বগুড়া / টেকসই উন্নয়নে উত্তরাঞ্চলে বিশেষ বাজেট বরাদ্দ দাবি সুপ্র’র

টেকসই উন্নয়নে উত্তরাঞ্চলে বিশেষ বাজেট বরাদ্দ দাবি সুপ্র’র

বুধবার সকালে বগুড়ায় সুশাসনের জন্য প্রচারাভিযান(সুপ্র)’র উদ্যোগে অন্তর্ভূক্তিমূলক ও টেকসই উন্নয়নে প্রয়োজন,সর্বস্তরে সুশাসন শীর্ষক প্রাকবাজেট আলোচনা সভা সমাজসংগঠক মোস্তাফিজার রহমান ফিজুর সভাপতিত্বে বগুড়া পৌরসভার সম্মেলনকক্ষে অনুষ্ঠিত হয়।সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বগুড়া পৌরসভার মেয়র এড.এ কে এম মাহবুবর রহমান ও মূখ্য আলোচক হিসেবে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের সহযোগি অধ্যাপক কাজী জুলফিকার আলী অংশগ্রহন করেন।।সুপ্র্র সম্পাদক কে জী এম ফারুকের সঞ্চালনায় এতে অন্যান্যের মধ্যে অংশগ্রহন করেন,উপ-পরিচালক,কৃষিসম্প্রসারণ বিভাগ প্রতুল চন্দ্র সরকার,জেলা শিক্ষা অফিসার গোপাল চন্দ্র সরকার,সিভিল সার্জন অফিসের মেডিক্যাল অফিসার ডা.মাহমুদ আদনান,উপজেলা শিক্ষা অফিসার আব্দুল জব্বার,কাস্টমস,এক্সসাইজ ও ভ্যাট’র রাজস্ব কর্মকর্তা মতলেবুর রহমান,বাংলাদেশ গ্রাম থিয়েটার’র সাধারন সম্পাদক তৌফিক হ্সাান ময়না,বাপা’র সহ-সভাপতি অধ্যাপক আব্দুল মান্নান,ফামপজ’র সভাপতি গোলাম আজম টিকুল,নিরাপদ সড়ক চাই’র সভাপতি মোস্তাফিজার রহমান,সাংষ্কৃতিক কর্মি নিভারাণী সরকার,টিএমএসএস মহিলা মার্কেট’র এমডি ববিতা রাণী বর্মণ,মুক্তিযোদ্ধা ও লেখক নাজমুল হক খান,গণতান্ত্রিক বাজেট আন্দোলনের সম্পাদক শেখ মো. আবু হাসানাত সহিদ,হার্ড’র জাহিদুল হাবীব রোজ,আলোর পথে’র রফিকুল ইসলাম,সিডিএলএস’র আব্দুল খালেক,জাতীয় আদিবাসি পরিষদের জেলা সমন্বয়ক বিমল রবিদাস, গণতান্ত্রিক বাজেট আন্দোলনের সাধারন সম্পাদক শেখ মো. আবু হাসানাত সাহিদ,পেভ’র জিএম পারভেজ ড্যারিন,জনউদ্যোগ’র সমন্বয়ক শুক্লা রাণী ঘোষ প্রমূখ।সভায় ফোকাস সোসাইটি’নির্বাহী পরিচালক মনিরুল ইসলাম মিলন আলোচনাপত্র উপস্থাপন করেন। সভায় টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিত করতে আঞ্চলিক বৈষম্য দূরীকরণে বাজেটে উত্তরাঞ্চলের কৃষি ও শিল্প খাতে বিশেষ বরাদ্দ দেয়ার জোর দাবি জানানো হয়।

আলোচকগণ কৃষি ভর্তুকি বাড়ানোসহ তৃণমূল কৃষি,পরিবেশ গবেষণাকে শক্তিশালীকরণ এবং আধুনিক কৃষি সরঞ্জামাদি ক্রয়ের জন্য বাজেট বরাদ্দের দাবি করেন।আলোচকগণ বলেন,দূর্নীতি উন্নয়নের পথে বড় বাধা,তাই কালোটাকা সাদা করার সুযোগ দেয়া উচিত নয়। সভায় ক্ষমতা বিকেন্দ্রিকৃত,শক্তিশালী স্থানীয় সরকার গঠন করে তৃণমূল পর্যায় থেকে স্থানীয় চাহিদার নিরিখে জেলা বাজেট প্রণয়নের দাবি জানানো হয়। অন্যথায় আমলাদের দ্বারা তৈরি বাজেটে স্থানীয় চাহিদা,আশা-আকাংখার প্রতিফলন ঘটেনা এবং সারা দেশের সুষম ও প্রকৃত উন্নয়ন হচ্ছে না।জলবায়ু পরিবর্তনজনিত পরিস্থিতি মোকাবিলায় স্থানীয়ভাবে বীজব্যাংক স্থাপনের উদ্যোগ গ্রহনের দাবি জানানো হয়।এছাড়া সরকারের প্রতি খাদ্যশস্য ও শাক-সব্জী,ফলমুলসহ পচনশীলদ্রব্য সংরক্ষণের জন্য প্রয়োজনীয় হিমাগার ও সংরক্ষণাগার স্থাপন বীজপ্রক্রিয়াজাতকরণ,বীজ সংরক্ষণসহ খাদ্য সার্বভৌমত্ব অর্জনে বিএডিসিকে শক্তিশালীকরার প্রস্তাব করা হয়।বগুড়া শহর ও অন্যান্য জায়গায় গৃহায়ন ও ইটের ভাটার নামে কৃষিজমি নষ্ট করে পরিবেশ বিপন্ন করা হলেও কর্র্তৃপক্ষ নীরব ভূমিকা পালন করছে,অবিলম্বে এগুলো বন্ধের উদ্যোগসহ মাটির স্বাস্থ্যরক্ষা,ভূগর্ভস্থ পানির অপচয় রোধে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে যাতায়াত ও পণ্যপরিবহনে রেলওয়ে ও বিআরটিসিকে দরিদ্র বান্ধব গণপরিবহণে পরিণত করার জন্য বাজেট বরাদ্দসহ রাষ্ট্রীয় ব্যবস্থাপনায় কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের দাবি জানানো হয়। সভায় বগুড়ায় কৃষি ও গ্যাস ভিত্তিক শিল্প স্থাপনসহ বিশেষায়িত অর্থনৈতিক অঞ্চল দ্রুত বাস্তবায়নের দাবি জানানো হয়। উত্তরাঞ্চলের কৃষির চাহিদানুযায়ী যমুনার তীরবর্তী বগুড়ার কোন জায়গায় একটি সার কারখানা স্থাপনের দাবি জানানো হয়।৬৯.৬০ ব.কি.মিটার আয়তন বিশিষ্ট প্রায় ১৪ লক্ষ জনসংখ্যা অধ্যূষিত বগুড়া শহরের নাগরিক সমস্যা সমাধানের জন্য বগুড়া পৌরসভাকে সিটি কর্পোরেশনে উন্নীত এবং বগুড়ায় কৃষিবিশ্ববিদ্যালয়,একটি সাধারন বিশ্ববিদ্যালয়,একটি উচ্চ বালক ও বালিকা বিদ্যালয় স্থাপন করে এই অঞ্চলের দরিদ্র জনগোষ্ঠীর শিক্ষার পথ প্রশস্ত করার প্রস্তাব করা হয়।বগুড়া থেকে সরাসরি সিরাজগঞ্জ পর্যন্ত রেলসংযোগ দ্রুত বাস্তবায়ন করে ঢাকার সাথে নিরাপদ,দ্রুত ও সাশ্রয়ী মূল্যে পণ্য ও যাত্রী চলাচলের ব্যবস্থা করার গুরুত্বারোপ করা হয়। বক্তাগণ বলেন,কর আদায় ও কর প্রদান গতিশীল,সহজ,হয়রানিমুক্ত,নির্ভয় ও দূর্নীতিমুক্ত করার জন্য কর কাঠামো সংষ্কার করা দরকার।দরিদ্র মানুষের ওপর করের বোঝা কমানোর জন্য নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের ওপর থেকে ভ্যাট প্রত্যাহার করতে হবে।প্রত্যক্ষ কর ও ন্যায্যহারে কর প্রদানের মাধ্যমে সমাজে ধনী-দরিদ্রের বৈষম্য কমতে পারে বলে সভায় বলা হয়।তাই প্রত্যক্ষ কর আদায়ের কাঠামো প্রতিষ্ঠার দাবি করা হয় এবং কর খেলাপিদের থেকে কর আদায়ের কার্যকর উদ্যোগ গ্রহণ করে বৈদেশিক নির্ভরতা পরিহার করার প্রস্তাব করা হয়। সভায় বলা হয়, সার্কভূক্ত দেশসমূহের শিক্ষা খাতে জিডিপি’র ৬% বরাদ্দের আঞ্চলিক প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন নিশ্চিতকরণসহ প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মিড ডে স্কুল মিল চালু,উপবৃত্তির অর্থের পরিমাণ বৃদ্ধিু,শিশুদের অপুষ্টি রোধের ব্যবস্থা করার জন্য বাজেটে বরাদ্দ দিতে হবে।সভায় বক্তাগণ আরো বলেন, স্বাস্থ্যক্ষেত্রে বিরাজমান জনবল সংকট নিরসনে শূণ্যপদে ও প্রয়োজনীয় সংখ্যক চিকিৎসক-চিকিৎসাকর্মি নিয়োগ ও কর্মস্থলে উপস্থিতি নিশ্চিতসহ স্বাস্থ্যখাতে দরিদ্র মানুষের অভিগম্যতা বাড়ানোর জন্য আন্তর্জাতিক মানদন্ড অনুযায়ী স্বাস্থ্যখাতে জিডিপি’র ৩% অর্থবরাদ্দ দিতে হবে।এছাড়া বগুড়ায় একটি নবজাতক হাসপাতাল,কিডনি হাসপাতাল,ট্রমা সেন্টার বা হাসপাতাল স্থাপনের প্রয়োজনীয়তার গুরত্ব আলোচনা করা হয়।সভায় সাংষ্কৃতিক খাতে বাজেট বৃদ্ধি ও বগুড়া পৌরসভার সাংষ্কৃতিক খাতে ব্যয় বরাদ্দ করে মেধা-মনন চর্চা ক্ষেত্র প্রসারের দাবি করা হয়।কাহালু’র বাংলাদেশ বেতারের সম্প্রচার কেন্দ্রটি পূর্ণাঙ্গ বেতার কেন্দ্র করার প্রস্তাব করা হয়।বগুড়া বিমান বন্দরটি যাত্রী ও পণ্য পরিবহণের ব্যবস্থার দাবি করা হয়্ গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার কাটাখালিতে করতোয়া নদীর উপর নির্মিত পরিবেশ বিরোধী বাঁধ পুরোপুরি অপসারণ,অবৈধ দখল ও দূষণমুক্ত করে নাব্যতা ফিরিয়ে আনা,সেচকাজে নদীর পানি ব্যবহারের ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য বাজেট বরাদ্দসহ প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করা হয়।
পেভ ও ফোকাস সোসাইটি’র সহযোগিতায় আয়োজিত সভায় অর্ধশতাধিক বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার প্রতিনিধি অংশগ্রহন করেন। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

Check Also

নন্দীগ্রামে বিভিন্ন পুজা মন্ডপ পরির্দশন করেছেন পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি দুলাল চন্দ্র মহন্ত

যমুনা নিউজ বিডি:   বগুড়ার নন্দীগ্রামে শারদীয় দূর্গা পূজা মন্ডপ পরির্দশ করেছেন বাংলাদেশ পুজা উদযাপন …

Powered by themekiller.com