Home / সারাদেশ / ঢাকা বিভাগ / গোপালগঞ্জে সেতুর অভাবে দূর্ভোগে ২০ গ্রামের মানুষ

গোপালগঞ্জে সেতুর অভাবে দূর্ভোগে ২০ গ্রামের মানুষ

যমুনা নিউজ বিডিঃ  গোপালগঞ্জে একটি সেতুর অভাবে চরম দূর্ভোগে পড়েছে ২০ গ্রামের কয়েক লাখ মানুষ। যদিও লোহার একটি সেতু থাকলেও ১০ বছর ধরে জরাজীর্ণ থাকায় পারাপারে সময় প্রতিনিয়ত দূর্ঘটনার শিকার হচ্ছেন স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থী, রোগীসহ যাতায়াতকারীরা। সেই সাথে কৃষি পণ্য আনা নেয়ার দূর্ভোগের শিকার হচ্ছেন কৃষকেরা। দ্রুত একটি নতুন সেতু নির্মানের দাবী জানিয়েছে এলাকাবাসী।

শুক্রবার সরেজমিনে গিয়ে জানা গেছে, গোপালগঞ্জ সদর ও কাশিয়ানী উপজেলার গ্রামবাসীদের যাতায়েতের সুবিধার জন্য প্রায় ৩০ বছর আগে সংযোগ স্থল সদর উপজেলার জদুপুর খালের উপর নির্মান করা হয় একটি লোহার সেতু। কিন্তু কালেরক্রামে ১০ বছর আগে সেতুটি সম্পূর্ণভাবে চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়ে। ঝুঁকিপূর্ণ হওয়ায় সেতুটি উপর বাঁশ দিয়ে সদর উপজেলার কলপুর, বৌলতলী, জদুপুর, দেবাসুর ও কাশিযানী উপজেলার পুইশুর, সিংগাসহ ২০টি গ্রামের লক্ষাধিক মানুষ যাতায়েত করছে।

এ ব্রিজের দুই পাশে ৪টি প্রাইমারী ও ২টি হাই স্কুল, ৩টি মাদ্রাসা এবং ১টি কলেজ রয়েছে। সেতুটি জরাজীর্ণ হয়ে পড়ায় পার হতে গিয়ে প্রতিনিয়ত দূর্ঘটনার শিকার হচ্ছে শিশু, শিক্ষার্থী ও সাধারন মানুষ। এসব গ্রামের জন সাধারনকে বিকল্প পথে গোপালগঞ্জ জেলা শহর ও কাশিয়ানী উপজেলা সদরে যাতায়েত করতে হয়। এতে একদিকে যেমন সময় নষ্ট হবার পাশাপাশি খরচ বাড়ছে অন্য দিকে গর্ভবতী এবং রোগীদের হাসপাতালে আনা নেয়ায় সমস্যা হচ্ছে।