Breaking News
Home / অর্থনীতি / গরু কেনার মত অর্থ সম্পদ না থাকায় ঘানি টানছেন মরিয়ম-লোকমান দম্পত্তি

গরু কেনার মত অর্থ সম্পদ না থাকায় ঘানি টানছেন মরিয়ম-লোকমান দম্পত্তি

তারিকুল আলম, সিরাজগঞ্জঃ নতুন নতুন প্রযুক্তি আর আধুনিকতায় অনেক কিছুই বিলপ্তি পথে। কয়েকদশক আগে কমবেশি সব এলাকাতেই গরু দিয়ে টানা হতো তেলের ঘানি। তেল সংগ্রহের সনাতন এই পেশা  বিলুপ্তির পথে। তার পরও পৈত্রিক পেশা আঁকড়ে ধরে আছেন কেউ কেউ। বিয়ের ১ মাস পরে থেকেই মোছা. মরিয়ম বেগম (৪৫) তার স্বামী লোকমান হোসেন (৫৫) কে নিয়ে ৩০ বছর ধরে এ ঘানি টানছেন।  দুটি ঘানি থেকে যে টাকা পান তা দিয়েই টেনেটুনে তিন ছেলে আর এক মেয়েকে নিয়ে সংসার চলে তাদের । তবে দুইটি ঘানি টানতে দুটি গরুর প্রয়োজন হলেও একটি ঘানি টানার জন্য  গরু কেনার টাকা নেই তাদের। মরিয়ম ও স্বামী লোকমান হোসেন সিরাজগঞ্জের সদর উপজেলার শিয়ালকোল ইউনিয়নের বিলধলী গ্রামের বাসিন্দা।

ঘানিটানা সংগ্রামী নারী মোছা. মরিয়ম বেগম (৪৫) জানান, বিয়ের পর থেকেই দেখে আসছি আমার শ্বশুর ও স্বামী এই ঘানি টেনেই সংসার চালাচ্ছেন। আমার বিয়ের হাতের মেহেদীর রং না উঠতেই আমাকে এই ঘানির কাজে লাগিয়ে দেন শ্বশুর বাড়ির লোকজন।  প্রথম অবস্থায় খুব খারাপ লাগতো মাথা ঘুরতো।  কিছুক্ষণ বিশ্রাম নিতাম আবার ঘানি টানতাম।  এই ঘানি টানছি প্রায় ৩০ বছর ধরে।  ঘানি টানার কারণে আমার কিডনির সমস্যা হয়েছে। ডাক্তার ভাড়ি কাজ করতে নিষেধ করেছে।  তারপরেও বাধ্য হয়ে ঘানি টানছি। ঘানি টেনে যে টাকা পায় তা দিয়েই টেনেটুনে সংসার চালাচ্ছি।  আর ঘানি যদি না টানি তাহলে সংসার চলবে না।  এদিকে নিজের ঔষধ  ও স্বামীর ঔষধও কিনতে পারবো না।

সরকারিভাবে যদি আমাকে আর্থিকভাবে সাহায্য সহযোগিতা করতেন অথবা  দুটি বলদ বা বড় গরু কিনে দিতেন তাহলে খুব উপকার হতো।

মরিয়মের স্বামী লোকমান হোসেন প্রামাণিক (৫৫) বলেন, অনেক কষ্টে আছি।  নিজে অসুস্থ আবার আমার স্ত্রীও অসুস্থ। আমাদের দুটি ঘানি আছে একটি ঘানি গরু  দিয়ে টানি অন্যটি আমি আমার স্ত্রী ও ছেলেকে দিয়ে টানাই। ঘানি টেনে সরিষা থেকে যে তেল বের হয় তা বিক্রয় করে যেটা আয় হয় তা দিয়ে নিজের ঔষধ স্ত্রীর ঔষধ কিনি আর টেনেটুনে সংসার চালাই। ঘানি না টানলে খাওবো কি?  ঘানি টানার জন্য ভালোমানের বলদ গরু কেনার প্রয়োজন কিন্তু টাকার অভাবে তা পারছি না। আমাদের সরকারের সাহায্য সহযোগিতা চাই৷

তিনি আরও বলেন, এই পেশা আমার বাপ দাদার আমলের। বাবা বলেছে হালাল খাওয়ার জন্য এই পেশায় থাকতে।  কোন দিন হারাম খাবি না যার জন্য এই পেশায় এখনো আছি।

Check Also

বগুড়ায় শাশুড়ির শতকোটি টাকা আত্মসাৎ মামলায় আ.লীগ নেতা রানা স্ত্রীসহ কারাগারে

ষ্টাফ রিপোর্টারঃ বগুড়ায় শাশুড়ির শতকোটি টাকা আত্মসাতের মামলায় নন্দীগ্রাম উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক …

error: Content is protected !!
%d bloggers like this:

Powered by themekiller.com