Home / আন্তর্জাতিক / খাসোগি হত্যায় সৌদি যুবরাজকে রক্ষা করেন ট্রাম্প!

খাসোগি হত্যায় সৌদি যুবরাজকে রক্ষা করেন ট্রাম্প!

যমুনা নিউজ বিডিঃ সৌদি সরকারের কট্টর সমালোচক কলামিস্ট জামাল খাসোগি হত্যার ঘটনায় দেশটির প্রিন্স মুহাম্মদ বিন সালমানকে রক্ষা করেছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। অনুসন্ধানী সাংবাদিক বব উডওয়ার্ডের প্রকাশিতব্য নতুন বইয়ে এই তথ্য জানানো হয়েছে। খবর আল জাজিরার।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প অহংকার করে বইটির লেখক উডওয়ার্ডকে এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, ‘২০১৮ সালের অক্টোবরে খাসোগি হত্যার পরের ফলাফল থেকে আমিই (ট্রাম্প) মোহাম্মদ বিন সালমানকে রক্ষা করেছি।’

‘আমিই তাকে রক্ষা করেছি, কারণ আমি চাইলেই তাকে (সৌদি যুবরাজ) একা ফেলে কংগ্রেস ত্যাগ করতে পারতাম। আমি তাদেরকে (কংগ্রেসকে) থামিয়েছি। কারণ আমি বিশ্বাস করি না যে বিন সালমান খাসোগিকে হত্যা করেছেন।’ যদিও মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থাগুলো বলছে সালমানই এই হত্যার নির্দেশ দিয়েছেন।

প্রকাশিতব্য এই বইয়ের বরাত দিয়ে মার্কিন সংবাদ মাধ্যম বিজনেস ইনসাইডার বৃহস্পতিবার একটি সংবাদ প্রকাশ করেছে। যেখানে এসব তথ্য ফাঁস করা হয়।

২০১৮ সালের ২ অক্টোবর তুরস্কের ইস্তাম্বুলে অবস্থিত সৌদি কনস্যুলেটের ভেতর সৌদি যুবরাজের কট্টর সমালোচক জামাল খাসোগিকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়। তার মরদেহ বা দেহাবশেষের চিহ্ন পর্যন্ত খুঁজে পাওয়া যায়নি। এ ঘটনায় আন্তর্জাতিক বিশ্বের ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়ে সৌদি সরকার।

ট্রাম্প উডওয়ার্ডকে আরও বলেন, ‘খাসোগির হত্যার পর যখন যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেসে সবাই বিক্ষুব্ধ, তখন আমিই হত্যার এই বিষয়টি ধামাচাপা দেয়ার জন্য আট বিলিয়ন মার্কিন ডলারের মিসাইল ও অত্যাধুনিক অস্ত্র সৌদি আরব এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতের কাছে বিক্রি করি।’

‘ওই অস্ত্র বিক্রি ঠেকাতে কংগ্রেস তিনটি প্রস্তাব পাস করলেও সেগুলোতে ভেটো ক্ষমতা প্রয়োগ করি আমি নিজে’, যোগ করেন ট্রাম্প। রেজ নামে উডওয়ার্ডের এই বইটি চলতি মাসের ১৫ তারিখে প্রকাশিত হবে।

এই বইটির জন্য মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সর্বমোট ১৮টি সাক্ষাৎকার নিয়েছেন বব উডওয়ার্ড। তাকে করা ট্রাম্পের কিছু বক্তব্যের অডিও রেকর্ড বুধবার প্রকাশ হয়ে পড়ে। এর জেরে করোনাভাইরাস মহামারি মোকাবিলায় ট্রাম্প প্রশাসনের ভূমিকা নিয়ে দেশটিতে নতুন রাজনৈতিক বিতর্ক শুরু হয়েছে।

বব উডওয়ার্ড তার বইতে লিখেছেন, সুইজারল্যান্ডের দাভোসে ওয়ার্ল্ড ইকোনোমিক ফোরামে যোগ দিয়ে ফিরে আসার কয়েক দিনের মধ্যে ২০১৯ সালের ২২ জানুয়ারি তাকে ডেকে পাঠান ট্রাম্প। ওই সময়ের আলোচনায় খাশোগির নৃশংস হত্যাকাণ্ড নিয়ে প্রেসিডেন্টকে চাপ দেন উডওয়ার্ড।

গেল সোমবার (৭ সেপ্টেম্বর) রাজধানী রিয়াদের অপরাধ আদালত জামাল খাসোগি হত্যাকাণ্ডের চূড়ান্ত রায় ঘোষণা করে। রায়ে পাঁচজনকে সর্বোচ্চ ২০, একজনকে ১০ এবং বাকি দুজনকে সাত বছরের কারাদণ্ডের আদেশ দেয় আদালত। তবে দণ্ডপ্রাপ্ত আট সৌদি নাগরিকের নাম প্রকাশ করা হয়নি।

Check Also

নোবেল শান্তি পুরষ্কারের জন্য মনোনীত হলেন পুতিন

যমুনা নিউজ বিডিঃ ২০২১ সালের নোবেল শান্তি পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। …

error: Content is protected !!
%d bloggers like this:

Powered by themekiller.com