Home / জাতীয় / কম খরচে সেরা ভ্রমণ: তালিকার সপ্তমে বাংলাদেশ

কম খরচে সেরা ভ্রমণ: তালিকার সপ্তমে বাংলাদেশ

যমুনা নিউজ বিডি: ভ্রমণ কার না ভালো লাগে! তবে যতটা অর্থ খরচ হলো তার তুলনায় ভ্রমণের স্থানটা পর্যটনবান্ধব, রোমাঞ্চকর ও সুখকর ছিল কিনা তা চিন্তার বিষয়। ২০১৯ সালের জন্যে এমনই কিছু পর্যটনবান্ধব স্থানের তালিকা করেছে লোনলিপ্লানেট ডট কম। সেখানে অপেক্ষাকৃত কম খরচ, কিন্তু দেখার মতো স্থানগুলো কথাই উঠে এসেছে। আর সেখানে বাংলাদেশ ৭তম স্থান দখল করে নিয়েছে। বহু হিসাব-নিকাশের মাধ্যমে তালিকাটা প্রস্তুত হয়েছে।

বিশ্বের সর্ববৃহৎ ভ্রমণ বিষয়ক গাইড বুক প্রকাশক লোনলি প্লানেট। সাধারণত কম খরচে ভালো কোনো গন্তব্যের খোঁজে থাকা ব্যাকপ্যাকার্সদের কথা চিন্তা করেই গাইড বুকগুলো লেখা হয়ে থাকে। সেখানে বিশ্বের ৮তম ঘনবসতিপূর্ণ দেশ হিসেবে বাংলাদেশের কথা লেখা হয়েছে। তবে তুলনামূলক কম খরচে মনের মতো রোমাঞ্চ মিলবে এখানে, তাও বলা হয়েছে। এশিয়ার দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকত, বিচিত্র ও রোমাঞ্চকর শহর এবং সুন্দরবনের ম্যানগ্রোভ ও রয়েল বেঙ্গল টাইগারের কথাও উঠে এসেছে।

মিতব্যয়ী ভ্রমণকারীদের কাছে বাংলাদেশর সব সময়ই আকর্ষণীয় স্থানৱ। ইউনেস্কোর ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ সাইট পর্যটকদের আবিষ্কারের অপেক্ষায় রয়েছে, বলা হয় সেখানে। প্রতিবেদনে বাগেরহাটকে ঐতিহাসিক শহর এবং উন্মুক্ত জাদুঘর বলা হয়েছে। আরো আছে পাহাড়পুরের বৌদ্ধবিহার এবং গঙ্গা ও ব্রহ্মপুত্রের মিলনস্থলের কথা।

প্রতিবেদনে আরো বলা হয়, বাংলাদেশের যেকোনো স্থানে সহজে ঘোরাফেরার সুযোগ আর কোনো প্রতিবেশী দেশে নেই বললেই চলে।

এ তালিকার শীর্ষ স্থানটি দখল করেছে মিশরের দক্ষিণের নীল ভ্যালি। তার পরই রয়েছে পোল্যান্ডের লডজ। আরো আছে আমেরিকার গ্রেট স্মোকি মাউন্টেন্স ন্যাশনাল পার্ক। তালিকার চতুর্থ এবং পঞ্চম স্থান দখল করেছে যথাক্রমে মালদ্বীপ এবং আর্জেন্টিনা।

Check Also

দেশের মানুষ নির্বাচনমুখী হয়ে উঠেছে : নাসিম

যমুনা নিউজ বিডি: স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আহ্বানে সাড়া …

Powered by themekiller.com