Home / স্বাস্থ্যসেবা / একাধিক উপসর্গ দেখা দিলে কী করবেন?

একাধিক উপসর্গ দেখা দিলে কী করবেন?

যমুনা নিউজ বিডিঃ করোনাভাইরাসের এই সময়ে জ্বর, শুকনো কাশি অথবা শরীর ব্যথার উপসর্গ দেখা দিলে স্বাভাবিকভাবেই এখন অনেকে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। এ ছাড়া হাসপাতালে রোগীর প্রচণ্ড চাপ ও প্রত্যাশিত সেবা না পাওয়া হাসপাতালে যাবেন কিনা তা নিয়ে সংশয়ে আছেন।

তবে এখন প্রশ্ন হলো– আপনার শরীরে যদি করোনাভাইরাস সংক্রমণের একাধিক উপসর্গ দেখা দেয় তবে কী করবেন?

এ বিষয়ে তথ্য জানিয়েছেন ঢাকার বক্ষব্যাধি হাসপাতালের চিকিৎসক কাজী সাইফুদ্দিন বেন্নুর এবং সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের ভাইরোলজি বিভাগের প্রধান অধ্যাপক তাহমিনা শিরিন।
আসুন জেনে নিই কী করবেন?

১. করোনাভাইরাস সংক্রমণের প্রথম উপসর্গ হলো জ্বর ও শুকনো কাশি। এ ছাড়া শরীরের পেশিতে ব্যথা, গলাব্যথা, স্বাদ ও গন্ধের অনুভূতি না থাকা, শ্বাসকষ্ট, কখনও পেট খারাপ ও বমি বা বমি বমি ভাব থাকতে পারে। এসব উপসর্গ দেখা দিলে সেলফ আইসোলেশনে থাকতে হবে।

২. সম্ভব হলে আলাদা একটি ঘরে থাকুন। প্রাতঃকর্ম এবং অন্যান্য কাজের জন্য বাইরে বের হবেন না। খাবার, প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র ও ওষুধ ঘরের দরজার বাইরে রেখে যাবেন পরিবারের সদস্যরা। এ ব্যবস্থা করা সম্ভব না হলে অন্যদের থেকে অন্তত ছয়ফুট দূরত্বে থাকুন ও মাস্ক পরুন।

৩. জ্বরের সঙ্গে আরও এক বা একাধিক উপসর্গ দেখা গেলে নমুনা পরীক্ষা এবং চিকিৎসার ব্যবস্থা করতে হবে।

৪. নমুনা পরীক্ষা রিপোর্ট আসা পর্যন্ত বসে না থেকে প্রতিদিন নিয়ম করে ৪ থেকে ৫ বার গরম পানির গার্গল করুন। এ ছাড়া দিনে কয়েক বার গরম পানির ভাপ নিন।

৫. এ সময় রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে এমন খাবার খান। প্রতিদিন প্রোটিন জাতীয় খাবার বেশি করে খান। স্যুপ খেতে পারেন। ভিটামিন সি সমৃদ্ধ খাবার খান।

৬. শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা খেয়াল রাখুন। পালস অক্সিমিটার নামে ছোট একটি মেডিকেল যন্ত্র এ ক্ষেত্রে হাতের কাছে রাখতে পারেন।

৭. ডায়াবেটিস, হৃদরোগ ও অ্যাজমার মতো স্বাস্থ্য সমস্যা আছে এমন রোগীকে বিশেষ সতর্ক থাকতে হবে।

৮. এ সময় চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

তথ্যসূত্র: বিবিসি বাংলা

Check Also

কোভিড-১৯: পরোক্ষ ধূমপান থেকে কি আপনি সংক্রমিত হতে পারেন?

যমুনা নিউজ বিডিঃ বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এটি বিশ্বাস করার যথেষ্ট কারণ নেই যে পরোক্ষ ধূমপান থেকে …

error: Content is protected !!
%d bloggers like this:

Powered by themekiller.com