Home / সারাদেশ / রাজশাহী বিভাগ / ঈদে চলনবিলে হাজার হাজার দর্শনার্থীদের ঢল

ঈদে চলনবিলে হাজার হাজার দর্শনার্থীদের ঢল

সিংড়া প্রতিনিধি : মহামারী করোনা ভাইরাসকে উপেক্ষা করে সামাজিক দুরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধির তোয়াক্কা না করেই দর্শনাথীদের পদচারনায় মুখরিত চলবিলের অঞ্চল। একদিকে করোনা ভাইরাস অপরদিকে বন্যার পানি নিমজ্জিত পথ-ঘাটসহ বিভিন্ন এলাকা। তার মাঝেও একটু মনের প্রশান্তিরর জন্য এবং বিনোদনের সাধ পেতে ছুটে চলেছেন চলনবিলের পাদদেশে ভ্রমন পিয়াসুদের পদচারণা।

বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ বিল চলনবিল, যা সিরাজগ্ঞ্জ ও পাবনা জেলায় অবস্হিত। বর্ষা মৌসুম ও ঈদকে কেন্দ্র করে চলনবিলে ভ্রমণ পিপাসুদের ঢল নেমেছে। ঈদুল আজহার ছুটিতে বিভিন্ন বয়সী নারী, পুরুষ, শিশু, আবাল, বৃদ্ধ, বনিতাসহ হাজার হাজার মানুষ প্রাকৃতিক সৌন্দর্য উপভোগের জন্য ছুটে আসেন এখানে। চলনবিলের মধ্যে দিয়ে হাটিকুমরুল-বনপাড়া মহাসড়কের সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলার ৮নং, ৯নং ও ১০নং ব্রীজ এলাকায় হাজার হাজার লোকের সমাগমে ফুটে উঠেছে বিলের বাড়তি সৌর্ন্দয্য।

বর্ষাকালে বিলের ভেতরের গ্রামগুলো দেখতে দ্বীপের মত মনে হয়। ডুবন্ত সড়কে হেঁটে বেড়ানোসহ বিলের পানিতে সাঁতার কাটা ও নৌকা ভ্রমণ করে সময় কাটান দর্শনার্থীরা। তারা কক্সবাজারের আমেজ উপভোগ করেন চলনবিলে।

বর্ষাকালে জলরাশির বুকে নৌকায় পাল তুলে ঘুরতে মন কার না চায়। তাইতো অবসর পেলেই মানুষ ছুটে আসে এখানে। বিশেষ করে শুক্রবার দর্শনার্থীদের আগমনে মুখরিত হয়ে উঠে। দূর-দূরান্ত থেকে মানুষ ছুটে আসে। নাটোর, বগুড়া, সিরাজগঞ্জ, পাবনা, রাজশাহী এমনকি রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে ভ্রমণ পিপাসুরা ছুটে আসছেন চলনবিলে।

বর্ষায় এ সড়ক দিয়ে যেমন মাইক্রো, বাইক, অটোসহ ছোট যানবাহন চলাচল করে তেমনি ডুবন্ত রাস্তার ওপর দিয়ে নৌকা চলে যা সত্যিই মনোমুগ্ধকর। তাছাড়া চলনবিল সিংড়ায় পর্যটকদের চাহিদা মেটাতে গড়ে উঠেছে চলনবিল পর্যটন পার্ক। শিশুদের জন্য বিভিন্ন রাইড রয়েছে। যেখান থেকে অপরূপ চলনবিলকে উপভোগ করা যায়।

Check Also

দেশের ১৭ অঞ্চলে ঝড়বৃষ্টি হতে পারে আজ

 যমুনা নিউজ বিডিঃ দেশের ১৭টি অঞ্চলে আজ ঝড়বৃষ্টি হতে পারে। সেসব অঞ্চলের নদীবন্দরকে এক নম্বর …

error: Content is protected !!
%d bloggers like this:

Powered by themekiller.com