Home / ইতিহাস ও ঐতিহ্য / ইস্টার্ন রিফাইনারির ৫০ বছর

ইস্টার্ন রিফাইনারির ৫০ বছর

যমুনা নিউজ বিডি ঃ দেশের একমাত্র জ্বালানি তেল শোধনাগার ইস্টার্ন রিফাইনারি লিমিটেডের বাণিজ্যিক কার্যক্রমের ৫০ বছর পূর্ণ হচ্ছে আজ সোমবার। এই দীর্ঘ ৫০ বছর পর এ বছরই বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশনের অঙ্গপ্রতিষ্ঠানটি সমপ্রসারণের যে বড় দুটি প্রকল্প রয়েছে সেগুলোর অবকাঠামো নির্মাণকাজ শুরু হচ্ছে।

রবিবার প্রতিষ্ঠানটির সম্মেলন কক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আকতারুল হক। এ সময় জ্বালানি তেল শোধনাগারের চলমান প্রকল্পগুলোর অগ্রগতিও তুলে ধরেন তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, ১৯৬৮ সালের ৭ মে এই শোধনাগার প্রথম বাণিজ্যিকভাবে পণ্য উৎপাদন কার্যক্রম শুরু করে। উৎপাদন শুরুর আগে ১৯৬৭ সালের ২৮ ডিসেম্বর ১৫ কোটি ১৭ লাখ টাকা ব্যয়ে এই শোধানাগার স্থাপন করা হয়। শুরুতে ১৫ লাখ টন অশোধিত জ্বালানি তেল শোধন ক্ষমতার এই শোধনাগার সমপ্রসারণের মূল কাজ এ বছর শুরু হচ্ছে। ইআরএল-২ নামের এ প্রকল্পে ব্যয় হচ্ছে প্রায় ১৭ হাজার কোটি টাকা।

ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আকতারুল হক বলেন, ‘বার্ষিক ৩০ লাখ টন জ্বালানি তেল শোধনের নতুন প্রকল্পের নকশার কাজ চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে। আগামী জুনের মধ্যে নকশা চূড়ান্ত হলে মূল ভৌত কাজ শুরু হবে। ২০২১ সালের মধ্যে এই প্রকল্পের কাজ শেষ হবে। এ প্রকল্পে বাণিজ্যিক উৎপাদন শুরু হলে বছরে ৩০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার বা প্রায় আড়াই হাজার কোটি টাকা সাশ্রয় হবে।’

তিনি আরো বলেন, ‘নতুন প্রকল্পে ইউরো-৫ মান বা আন্তর্জাতিক মানের পরিবেশবান্ধব পেট্রোলিয়ামজাত পণ্য উৎপাদন হবে। বতর্মানে ইউরো ২ ও ইউরো ৩ মানের পেট্রোলিয়ামজাত পণ্য উৎপাদন হয়। বতর্মানে জ্বালানি তেলের চাহিদার ২৫ শতাংশ ইআরএল পরিশোাধন করে। বাকি তেল সরাসরি শোধিত আকারে আমদানি করা হয়। নতুন প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে চাহিদার ৭৫ শতাংশই পরিশোধন করে সরবরাহ করতে সক্ষম হবে প্রতিষ্ঠানটি।’

আকতারুল হক জানান, ইআরএল-২ প্রকল্পের কাজ বাস্তবায়নাধীন অবস্থায় পটুয়াখালীর পায়রা বন্দর এলাকায় আরেকটি রিফাইনারি ও পেট্রোকেমিক্যাল কমপ্লেক্স স্থাপনের সম্ভাব্যতার সমীক্ষা চলছে। ভবিষ্যতে সেখানেও শোধনাগার স্থাপন করা হবে। পাইপলাইনের মাধ্যমে সাগরে বড় জাহাজ থেকে অশোধিত জ্বালানি তেল খালাসের আরেকটি প্রকল্পের কাজ চলছে। ‘ইনস্টলেশন অব সিঙ্গেল পয়েন্ট মুরিং উইথ ডাবল পাইপলাইন’ নামের এ প্রকল্পে ব্যয় হচ্ছে সাড়ে পাঁচ হাজার কোটি টাকা।

সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে আজ সোমবার নগরের কাজির দেউড়ি এলাকায় ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সেন্টারে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে ইআরএল মহাব্যবস্থাপক খোন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান, মো. লোকমান, মো. রাশেদ কাউছার ও মো. আনোয়ার সাদাত উপস্থিত ছিলেন।

Check Also

মনুষ্য সৃষ্ট স্বর্গ ‘ইয়াস আইল্যান্ড’

যমুনা নিউজ বিডি ঃ চারদিকে ক্রিস্টালের মতো স্বচ্ছ টলটলে পানি। সেই সঙ্গে রয়েছে দেশের সবচেয়ে …

Powered by themekiller.com