Breaking News
Home / সম্পাদকীয় / আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখুন

আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখুন

দেশে মাদকবিরোধী অভিযান চলছে। আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর দৃষ্টি এখন অনেকটাই মাদক কারবারিদের ঘিরে। এরই ফাঁকে দেশের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটতে শুরু করেছে। মাদক কারবারিদের অনেকই গা ঢাকা দিলেও নানা ধরনের অপরাধমূলক তৎপরতা বৃদ্ধি পেয়েছে। গতকালের কালের কণ্ঠে প্রকাশিত একাধিক খবরই প্রমাণ করছে, দেশের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটছে। প্রকাশিত খবরে দেখা যাচ্ছে, প্রতিপক্ষের হামলায় টেটাবিদ্ধ হয়েছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার শ্যামাগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান। নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে ষষ্ঠ শ্রেণির এক শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঝিনাইদহের হরিণাকুণ্ডুতে ছয় বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় গুলিবিদ্ধ হয়েছে জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহসম্পাদক। লক্ষ্মীপুরে আট কিশোরকে পিটিয়ে আহত করা হয়েছে। বরগুনায় নির্বাচনী বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের লোকজনকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করেছে প্রভাবশালী একটি চক্র। খুলনায় এক বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী শিশুকে শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। ঢাকার অদূরে কেরানীগঞ্জে দুই মাসের ব্যবধানে পুলিশের তিন সোর্স খুন হয়েছে।

প্রকাশিত খবরগুলো পর্যালোচনা করলে দেখা যায়, একেকটি ঘটনা একেক রকম। কোথাও ধর্ষণ করা হয়েছে, ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগও রয়েছে। প্রতিপক্ষের লোকজনের ওপর চড়াও হওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। কোথাও পূর্বশত্রুতার জের ধরে পিটিয়ে আহত করা হয়েছে। সব মিলিয়ে অপরাধের নানা মাত্রা পাওয়া যাচ্ছে। বর্তমান সময়ে সমাজে অসহিষ্ণুতা বেড়েছে। সমাজের কিছু মানুষ দিন দিন অপরাধপ্রবণ হয়ে উঠছে। রাজনৈতিক প্রভাবের কারণেও কেউ কেউ প্রতাপশালী হয়ে উঠতে চাইছে। কোনো কোনো ঘটনা পর্যালোচনা করলে দেখা যায়, কিছু মানুষের মানবিক মূল্যবোধের অবক্ষয় চরমে পৌঁছেছে। তাদের নৈতিকতা বলতে কিছু নেই। সামাজিক অবক্ষয়ও যে চূড়ান্ত পর্যায়ে পৌঁছে গেছে, তা বলার অপেক্ষা রাখে না। ছয় বছরের শিশু ধর্ষণ কিংবা ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের পর যারা হত্যা করতে পারে, তাদের মানুষ হিসেবে বিবেচনা করা যায় না। কথায় কথায় প্রতিপক্ষের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়া কিংবা হত্যা করে ফেলে রাখার মতো ঘটনা বলছে চরম অসহিষ্ণুতার মধ্য দিয়ে দিন যাচ্ছে।

দেশের আইন-শৃঙ্খলা রক্ষার দায়িত্ব মূলত পুলিশের। তারা দক্ষতার সঙ্গে নানা সংকট মোকাবেলা করেছে। জঙ্গিবিরোধী অভিযানে সাফল্যের পরিচয় দিয়েছে। মাদকবিরোধী অভিযানেও তারা সক্রিয়। কিন্তু আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির যেভাবে অবনতি হতে শুরু করেছে, তাতে শঙ্কিত হওয়ার অবকাশ আছে। এই পরিস্থিতির অবনতি হলে দেশের মানুষ দুশ্চিন্তাগ্রস্ত হবে। এখনই লাগাম টেনে ধরতে না পারলে জনমনে নিরাপত্তাহীনতার বোধ বাড়বে। এ অবস্থায় আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে আরো সক্রিয় হতে হবে। দেশের অভ্যন্তরে সাধারণ আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির যেন অবনতি না হয় সেদিকে দৃষ্টি দেওয়া আবশ্যক।

Check Also

কঠোর হাতে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করুন

প্রতীক বরাদ্দের পর প্রার্থীদের পক্ষে প্রচারযুদ্ধে ব্যস্ত সময় কাটছে কর্মী-সমর্থকদের। প্রথম দিনেই উত্তেজনা চরমে। দেশের …

Powered by themekiller.com