Home / সারাদেশ / অভাব দূর করতে প্রবাসে গিয়ে লাশ হল কিশোরী

অভাব দূর করতে প্রবাসে গিয়ে লাশ হল কিশোরী

যমুনা নিউজ বিডিঃ ভালো বেতনের লোভে সংসারের অভাব দূর করতে কিশোরী উম্মে কুলসুমকে (১৪) সৌদি আরবে পাঠানো হয়েছিল। বেতনের পরিবর্তে কপালে জোটে মালিকের যৌন নির্যাতন ও মারধর। অবশেষে সেদেশের হাসপাতালেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করে কুলসুম। অবশেষে লাশ হয়ে দেশে ফিরল এ কিশোরী। এ ঘটনায় উম্মে কুলসুমের পরিবারে চলছে শোকের আহাজারি।

মঙ্গলবার সরেজমিন জানা যায়, বিদেশ যাওয়ার জন্য গোকর্ণ ইউপি চেয়ারম্যান প্রয়াত হাসান খান ও ইউপি সচিব আবেদুর রহমানের সহযোগিতায় ১৯৯৩ সালে ১৩ মার্চ জন্ম তারিখ দেখানো হয়। কিন্তু প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী সনদ অনুযায়ী তার বর্তমান বয়স ১৪ বছর।

১৭ আগস্ট জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোতে কিশোরীর বাবা মেয়ের লাশ ও আট মাসের বকেয়া বেতন ফেরত পেতে একটি লিখিত দেন। অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, স্থানীয় দালাল রাজ্জাক মিয়ার মাধ্যমে ৩০ হাজার টাকা খরচ করে ১৭ মাস আগে এমএইচ ট্রেড ইন্টারন্যাশনালের (আরএল নং-১১৬৬) মাধ্যমে কুলসুমকে গৃহকর্মীর কাজে সৌদি আরব পাঠানো হয়। সেখানে গৃহকর্মী হিসেবে যোগদানের পর কুলসুমের ওপর শারীরিক ও যৌন নির্যাতন শুরু করে মালিকপক্ষ।

নির্যাতনের কারণে আমার মেয়েকে ফিরিয়ে আনতে রিক্রুটিং এজেন্সির সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগ করেও কোনো সাড়া পাওয়া যায়নি। চার মাস আগে গৃহকর্তা ও তার ছেলে মিলে কুলসুমের দুই হাঁটু, কোমর ও পা ভেঙে দেয়। এর কিছুদিন পর একটি চোখ নষ্ট করে রাস্তায় ফেলে দেয়। পরে সৌদি আরবের পুলিশ তাকে উদ্ধার করে কিং ফয়সাল হাসপাতালে ভর্তি করেন। সেখাকার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় ৯ আগস্ট কুলসুম মারা যায়।

Check Also

যমুনা নদীতে নৌ-দুর্ঘটনায় কৃষকের মৃত্যু : আহত ৪

যমুনা নিউজ বিডিঃ যমুনা নদীর বাগচর নামকস্থানে নৌ-দুর্ঘটনায় আব্দুর রাজ্জাক (৩৪) নামে এক কৃষকের মৃত্যু …

error: Content is protected !!
%d bloggers like this:

Powered by themekiller.com